১৯ নভেম্বর ,সোমবার, ২০১৮

শিরোনাম

> অন্যান্য >>

>> ধর্ম-জীবন

 

ধর্ম ডেস্ক

২১ আগস্ট ,মঙ্গলবার, ২০১৮ ১৮:৩৪:২৯

কোরবানির গোশতের বণ্টন ও খাওয়ার বিধান


কোরবানির গোশতের বণ্টন ও খাওয়ার বিধান

ফাইল ছবি


প্রতি বছর ঈদুল আজহাতে মহান সৃষ্টিকর্তার সন্তুষ্টি অর্জনে পশু কোরবানি করে সামর্থ্যবান ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা। আর এই দিনটিতে ধনিদের পাশাপাশি দরিদ্র মানুষগুলোও পেট ভরে গোশত খাওয়ার সুযোগ পায়। কারণ, কোরবানির গোশতের একটি অংশ দরিদ্রদের মাঝে বিতরণ করা হয়। আবার একটি অংশ স্বজন ও প্রতিবেশীদের মাঝে বণ্টন করা হয়। এর মাধ্যমে সকলের মাঝে একটা সম্প্রীতির বন্ধন তৈরি হয়। 

এবার প্রশ্ন হলো, কোরবানির গোশত কী পরিমাণ নিজে খাবে এবং কী পরিমাণ সদকা করবে? এ ব্যাপারে উম্মাহর স্বীকৃত ও অনুসৃত ইমামগণের মাঝে কিছুটা মতানৈক্য রয়েছে। অগ্রগণ্য অভিমত হচ্ছে- এক তৃতীয়াংশ খাওয়া, এক তৃতীয়াংশ হাদিয়া দেওয়া এবং এক তৃতীয়াংশ সদকা করা। যে অংশটুকু খাওয়া জায়েজ সে অংশটুকু সংরক্ষণ করে রাখাও জায়েজ; এমন কি সেটা দীর্ঘ দিন পর্যন্ত হলেও যতদিন পর্যন্ত রাখলে এটি খাওয়া ক্ষতিকর পর্যায়ে পৌঁছবে না। কিন্তু যদি দুর্ভিক্ষের বছর হয় তাহলে তিনদিনের বেশি সংরক্ষণ করা জায়েজ নয়। দলিল হচ্ছে সালামা বিন আকওয়া (রাঃ) এর হাদিস। তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ্‌ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন: “তোমাদের যে মধ্যে ব্যক্তি কোরবানি করেছে তৃতীয় রাত্রির পরের ভোর বেলায় তার ঘরে যেন এর কোন অংশ অবশিষ্ট না থাকে”। পরের বছর সাহাবায়ে কেরাম জিজ্ঞেস করল: ইয়া রাসূলুল্লাহ্‌! আমরা কি গত বছরের মত করব? তখন রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বললেন: “তোমরা খাও, খাওয়াও এবং সংরক্ষণ কর। ওই বছর মানুষ কষ্টে ছিল। তাই আমি চেয়েছি তোমরা তাদেরকে সহযোগিতা কর”।[সহিহ বুখারী ও সহিহ মুসলিম]

অর্থাৎ, আশপাশে যদি ক্ষুধার্ত, অভাবী মানুষ থাকে তাহলে কোরবানির মাংস তিন দিনের বেশি সংরক্ষণ করা উচিত নয়।

ইমাম মালিক (রহ.) এর মতে গোশত বণ্টনের নির্ধারিত কোনো পরিমাণ নেই। আর বণ্টনের ক্ষেত্রে কাঁচা গোশত আর রান্না করা গোশতের মাঝে কোনো তফাৎ নেই। (আল কাফি, ১/৪২৪)

ইমাম শাফেয়ি (রহ.) এর মতে অধিকাংশ গোশত সদকা করে দেওয়া মুস্তাহাব। (আস সিরাজ আল ওয়াহহাজ, ৫৬৩) 

ইমাম আবু হানিফা (রহ.) এবং ইমাম আহমদ (রহ.) এর মতে কোরবানির গোশতের একতৃতীয়াংশ নিজে খাবে, একতৃতীয়াংশ আত্মীয়স্বজন এবং পাড়াপড়শির মাঝে বিতরণ করবে আর বাকি তৃতীয়াংশ গরিব-মিসকিনদেরকে সদকা করবে। বস্তুত এ বিষয়ে হজরত আবদুল্লাহ ইবনে আব্বাস (রা.) থেকে বর্ণিত একটি হাদিস এই মতের সমর্থন করে। তাছাড়া একই কথা হজরত আবদুল্লাহ ইবনে ওমর (রা.) এবং হজরত আবদুল্লাহ ইবনে মাসউদ (রা.) থেকেও বর্ণিত হয়েছে। (আল মুগনি, ৮/৬৩২, আল মুহাল্লা, ৭/২৭০, আস সুনানুল কুবরা; বায়হাকি, ৫/২৪০ প্রভৃতি গ্রন্থ) এ মতটিই অগ্রগণ্য। 

মাসআলা : কোরবানির গোশতের এক-তৃতীয়াংশ গরিব-মিসকীনকে এবং এক -তৃতীয়াংশ আত্মীয়স্বজন ও পাড়া-প্র তিবেশীকে দেওয়া উত্তম। অবশ্য পুরো গোশত যদি নিজে রেখে দেয় তাতেও কোনো অসুবিধা নেই। (বাদায়েউস সানায়ে ৫/৮১, আল বাহরুর রায়েক ৮/২০৩)

মাসআলা : কোরবানির গোশত তিন দিনের চেয়ে অধিক সময় রেখে দেওয়া ও খাওয়া জায়েজ। (সহীহ মুসলিম ২/১৫৯, মুয়াত্তা মালেক ১/৩১৮, বাদায়েউস সানায়ে ৫/৮১)

মাসআলা : কোরবানির গোশত হিন্দু ও অন্য ধর্মাবলম্বীকে দেওয়া জায়েজ। (ফাতাওয়া হিন্দিয়া ৫/৩০০)

মাসআলা : মান্নতকৃত কোরবানির গোশত নিজে ও পরিবার-পরিজন খেতে পারবে না, বরং তা কোনো মুসলমান ফকীরকে সদকা করে দেওয়া ওয়াজিব। (রদ্দুল মুহতার ৬/৩২১)

কোরবানির পশুর অংশ বিক্রয়

মাসআলা : কোরবানির পশুর কোনো অংশ যথা গোশত, চর্বি, হাড্ডি ইত্যাদি বিক্রি করা জায়েজ নয়। বিক্রি করলে পূর্ণ মূল্য সদকা করে দিতে হবে। (বাদায়েউস সানায়ে ৫/৮১, কাযীখান ৩/৩৫৪)

মাসআলা : কোরবানির পশুর চামড়া কোরবানিদাতা নিজেও ব্যবহার করতে পারবে। তবে কেউ যদি নিজে ব্যবহার না করে বিক্রি করে, তবে বিক্রির মূল্য পুরোটা সদকা করা জরুরি। (ফাতাওয়া হিন্দিয়া ৫/৩০১)

মাসআলা : কোরবানির পশুর চামড়া বিক্রি করলে মূল্য সদকা করে দেওয়ার নিয়্যাতে বিক্রি করবে। সদকার নিয়্যাত না করে নিজের খরচের নিয়্যাত করা গোনাহ। নিয়্যাত যা-ই হোক বিক্রীত অর্থ পুরোটাই যাকাতের উপযুক্ত কাউকে সদকা করে মালিক বানিয়ে দেওয়া জরুরি। (ফাতাওয়া হিন্দিয়া ৫/৩০১, কাযীখান ৩/৩৫৪)

মাসআলা : কোরবানির চামড়ার বিক্রীত মূল্য যাকাতের উপযুক্ত খাতে সদকা করা জরুরি, তা মাদরাসা-মসজিদ ইত্যাদির নির্মাণে খরচ করা সহীহ নয়। (রদ্দুল মুহতার ২/৩৪৪)


কুয়েত থেকে ১৩ শিক্ষার্থীর সমাপনী পরীক্ষা
হাত-পায়ের তালু ঘামা কি অসুখ? 
বিজিবির কাছে বিএসএফ পরাজিত 
প্রিয়াঙ্কার বিয়েতে দৈনিক খরচ ৫০ লাখ টাকা!
আ.লীগ-বিএনপি সংঘর্ষ: পুলিশসহ আহত ১২
তাজমহলে নামাজ ‘বন্ধ করে’ আরতি করার দাবি!
বাথরুমের ঝর্ণায় ওড়না পেঁচিয়ে ফাঁস
সৌদি পরিচালনা করছে বেদুঈন মাফিয়া: ইরান
মোবাইলে প্রেম: ষষ্ঠ শ্রেণির দুই ছাত্রীকে ধর্ষণ!
এটা বিএনপির নিজস্ব ব্যাপার, কাদেরকে ফখরুল
সৌদিতে পিএসসি পরীক্ষা দিল ২৬৭জন
সপ্তম শ্রেণির স্কুলছাত্রী ধর্ষণ, রক্তাক্ত উদ্ধার
সোহাগ গ্রেপ্তার
শুটিং করতে গিয়ে মারাত্মক আহত সাল্লু
সরকার নয়, রিজভী অদ্ভুত প্রাণী: হাছান মাহমুদ
নয়াপল্টনের ঘটনায় আব্বাস দম্পতির জামিন
'থার্টিফার্স্টে সব ধরনের উদযাপন নিষিদ্ধ'
সর্বশেষ ঘাঁটিও হারাল দায়েশ
'তারেক সাজাপ্রাপ্ত হয়েও কিভাবে কার্যক্রমে অংশ নেন'
আ.লীগের চেয়ে বেশি আয় বিএনপির!
কুয়েত থেকে ১৩ শিক্ষার্থীর সমাপনী পরীক্ষা
হাত-পায়ের তালু ঘামা কি অসুখ? 
বিজিবির কাছে বিএসএফ পরাজিত 
প্রিয়াঙ্কার বিয়েতে দৈনিক খরচ ৫০ লাখ টাকা!
আ.লীগ-বিএনপি সংঘর্ষ: পুলিশসহ আহত ১২
তাজমহলে নামাজ ‘বন্ধ করে’ আরতি করার দাবি!
বাথরুমের ঝর্ণায় ওড়না পেঁচিয়ে ফাঁস
কিশোরগঞ্জে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় শিশুসহ নিহত ২
ইন্দুরকানীতে প্রকাশ্যে পিয়নকে কুপিয়ে হত্যা
নোয়াখালীতে কিশোরের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার
সৌদি পরিচালনা করছে বেদুঈন মাফিয়া: ইরান
মোবাইলে প্রেম: ষষ্ঠ শ্রেণির দুই ছাত্রীকে ধর্ষণ!
এটা বিএনপির নিজস্ব ব্যাপার, কাদেরকে ফখরুল
সৌদিতে পিএসসি পরীক্ষা দিল ২৬৭জন
সপ্তম শ্রেণির স্কুলছাত্রী ধর্ষণ, রক্তাক্ত উদ্ধার
সোহাগ গ্রেপ্তার
শুটিং করতে গিয়ে মারাত্মক আহত সাল্লু
সরকার নয়, রিজভী অদ্ভুত প্রাণী: হাছান মাহমুদ
নয়াপল্টনের ঘটনায় আব্বাস দম্পতির জামিন
কাউখালীতে আগুনে ভস্মীভূত পরিবারকে সহযোগিতা
নির্বাচন করবেন হিরো আলম!
'পুলিশ রাষ্ট্রের কর্মচারী, প্রতিপক্ষ ভাববেন না'
৩০ ডিসেম্বর নির্বাচন ‘উদ্দেশ্যপ্রণোদিত’: রব
নাইম হত্যা: ছাত্রলীগ নেতাসহ আটক ৫, বিক্ষোভ
বিএনপিকে চাঙ্গা করতে আসছেন জোবাইদা
সোহাগ গ্রেপ্তার
চীন সফরে বিএনপির প্রতিনিধি দল
নৌকা প্রতীক নিয়ে লড়বে যুক্তফ্রন্ট
ইসলাম গ্রহণকারী ভারতীয় সেই নারী খুন
মাশরাফির নির্বাচন নিয়ে যা বললেন তার বাবা
দ্বিতীয় বিয়েতে দীপিকা-রণবীর
আইপিএলে লিটন দাসকে কিনতে প্রতিযোগিতা !
খাসোগি ইস্যুতে ‘ফেঁসেই গেল’ সৌদি আরব
হামাসের ক্ষেপণাস্ত্রে ইসরাইলের সেনাবাস ভস্মীভূত
মনোনয়নপত্র কিনলেন বাবরের স্ত্রী শ্রাবণী
বিএনপির কাছে ১০০ আসন চাচ্ছেন শরিকরা
বয়স বাড়বে কিন্তু শক্তি কমবে না
মির্জা ফখরুলকে ক্ষমা চাইতে আল্টিমেটাম
‘বিনা উসকানিতে’ এটা করল বিএনপি: কাদের
নির্বাচন করবেন ইলিয়াসপুত্র ‘অর্ণব’

সব খবর