২৬ সেপ্টেম্বর , বুধবার, ২০১৮

শিরোনাম

> স্বাস্থ্য

 

নিউজ টোয়েন্টিফোর ডেস্ক

২৭ আগস্ট ,সোমবার, ২০১৮ ১৬:৪৪:৪৮

কাশির চিকিৎসায় অ্যান্টিবায়োটিক নয়


কাশির চিকিৎসায় অ্যান্টিবায়োটিক নয়

অ্যান্টিবায়োটিক ওযুধ।


সর্দি কাশির চিকিৎসায় অ্যান্টিবায়োটিকের ওপর নির্ভরতা থেকে সরে দাঁড়াতে শুরু করেছেন চিকিৎসকরা। খুঁজছেন প্রাকৃতিক সমাধান।

সর্দি কাশি হলেই এখন আর ঘড়ির কাঁটা গুনে অ্যান্টিবায়োটিক ওষুধ খাওয়া জরুরি নয়। সেক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় সহায়ক হতে পারে মধু। নতুন এক গবেষণায় এমন তথ্য উঠে এসেছে।

সেখান থেকে জানা যায় কাশির সমস্যায় ভুগছেন তাদের চিকিৎসায় অব্যর্থ ভূমিকা রাখতে পারে এই মধু। যেখানে অ্যান্টিবায়োটিক এতো ভালো কাজ করে না। খবর বিবিসির

তবে কাশি বেশিরভাগ সময় দুই থেকে তিন সপ্তাহের মধ্যে আপনা আপনি ঠিক হয়ে যায়।

চিকিৎসকদের উদ্দেশ্যে স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের এই পরামর্শ অতিরিক্ত অ্যান্টিবায়োটিক ব্যবহারের সমস্যা মোকাবিলায় সাহায্য করবে বলে আশা করা হচ্ছে।

কেননা অতিরিক্ত অ্যান্টিবায়োটিক ওষুধের প্রয়োগের ফলে মানুষের শরীর ওষুধ প্রতিরোধী হয়ে পড়ে। ফলে অনেক ধরণের ইনফেকশন সারিয়ে তোলা কঠিন হয়ে যায়।

কাশির সহজ সমাধান:
গরম পানিতে সামান্য মধু, লেবুর রস আর আদার রসের মিশ্রণ কফ এবং গলা ব্যথা নিরাময়ের জন্য বহুল প্রচলিত এই ঘরোয়া পানীয়।

যুক্তরাজ্যের ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট ফর হেলথ অ্যান্ড কেয়ার এক্সিলেন্স (এনআইসিই) এবং পাবলিক হেলথ ইংল্যান্ড সম্প্রতি এ সংক্রান্ত নতুন একটি প্রস্তাবিত নির্দেশিকা প্রকাশ করে।

সেখান থেকে জানা যায়, কফের সমস্যা পুরোপুরি সারিয়ে তোলার ব্যাপারে সীমিত কিছু প্রমাণ পাওয়া গেছে যেটা অনেকের কাজে আসতে পারে।

যেসব কফ মেডিসিনে পেলারগোনিয়াম, গুয়াইফেনেসিন বা ডিক্সট্রোমেথরফ্যান উপাদান রয়েছে সেটা বেশ উপকারী হতে পারে।

রোগীদের ঘরোয়া পানীয় তৈরির পাশাপাশি এ ধরণের ওষুধ খাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।

চিকিৎসকের কাছে যাওয়ার আগে নিজে নিজে রোগ সেরে ওঠা পর্যন্ত অপেক্ষা করা ভাল বলে জানান তারা।

অ্যান্টিবায়োটিক কেন নয়?
বেশিরভাগ ক্ষেত্রে ভাইরাসের কারণে এই কাশির সমস্যা হয়ে থাকে। যেটা সব সময় অ্যান্টিবায়োটিক দিয়ে চিকিৎসা করা যায় না। বরং এটি নিজে নিজেই ঠিক হয়ে যায়।

তা সত্ত্বেও আগের গবেষণায় দেখা গেছে যে যুক্তরাজ্যের ৪৮ শতাংশ চিকিৎসক কাশি বা ব্রংকাইটিস রোগের জন্য অ্যান্টিবায়োটিক খাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন।

পাবলিক হেলথ ইংল্যান্ডের উপ পরিচালক ডা. সুজান হপকিন্স বলেছেন, মানুষের শরীর যদি অ্যান্টিবায়োটিক প্রতিরোধী হয়ে পড়ে তাহলে সেটা বড় সমস্যা তৈরি করতে পারে। অ্যান্টিবায়োটিকের ব্যবহার কমাতে আমাদের এখন থেকেই পদক্ষেপ নিতে হবে।

এই নতুন নির্দেশিকাগুলি প্রেসক্রিপশনে অ্যান্টিবায়োটিকের হার কমাতে বড় ধরণের ভূমিকা রাখবে বলে আশা করছেন ডক্টর সুজান।

তিনি মনে করেন, চিকিৎসকদের উচিত ওষুধের ওপর নির্ভরতা কমিয়ে নিজেদের খেয়াল রাখার ব্যাপারে রোগীদের আরও উৎসাহিত করা।

ইংল্যান্ডের প্রধান মেডিকেল কর্মকর্তা প্রফেসর ডেইম স্যালি ডেভিস ইতোমধ্যে অ্যান্টিবায়োটিকের পরবর্তী প্রতিক্রিয়ার ব্যাপারে সতর্ক করেছেন।

তিনি বলেছেন, যদি অ্যান্টিবায়োটিক ওষুধ কাজ করতে ব্যর্থ হয়, তাহলে রোগের চিকিৎসা করা আরও জটিল হয়ে যায়।

সেইসঙ্গে সাধারণ চিকিৎসা পদ্ধতি যেমন ক্যান্সার এবং অঙ্গ প্রতিস্থাপনের চিকিৎসা অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়বে বলে জানান প্রফেসর ডেইম স্যালি।

কখন অ্যান্টিবায়োটিক প্রয়োজন?
নির্দেশিকাগুলো এটাও সুপারিশ করে যে, কাশি যদি বড় ধরণের কোনো অসুস্থতার কারণে হয়ে থাকে, অথবা রোগী যদি আরও জটিলতায় আক্রান্ত হওয়ায় ঝুঁকিতে থাকে যেমন দীর্ঘস্থায়ী স্বাস্থ্য সমস্যা বা দুর্বল রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা তখন অ্যান্টিবায়োটিকের প্রয়োজন হতে পারে।

মধু এক্ষেত্রে আদর্শ ওষুধ হলেও এক বছরের বয়সের নীচে শিশুদের মধু খাওয়াতে নিষেধ করেছেন বিশেষজ্ঞরা।

কেননা মধুতে অনেক ধরণের ব্যাকটেরিয়া থাকতে পারে যেটা খেলে শিশুর পেট খারাপের ঝুঁকি থাকে।

ডক্টর টেসা লুইস একজন চিকিৎসক এবং এন্টিমাইক্রোবায়াল প্রেসক্রাইবিং গাইডলাইন গ্রুপের সভাপতি।

তিনি মনে করেন, যদি কাশি সেরে ওঠার পরিবর্তে দিন দিন খারাপের দিকে যায়, অথবা রোগী যদি খুব বেশি অসুস্থ বোধ করেন বা নিঃশ্বাস নিতে কষ্ট হয়, তাহলে তাদের চিকিৎসকের সঙ্গে যোগাযোগ করতে হবে।

খসড়া সুপারিশগুলি নতুন অ্যান্টিবায়োটিক নির্ধারণের নির্দেশিকার একটি অংশ যেটা ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট ফর হেলথ অ্যান্ড কেয়ার এক্সিলেন্স (এনআইসিই) এবং পাবলিক হেলথ ইংল্যান্ড যৌথভাবে তৈরি করছে।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)


সেই হৃদয় সরকার ঢাবিতে সুযোগ পেয়েছে
কলেজ ছাত্র হত্যার দায়ে ৪ জনের ফাঁসি  
মুশফিকের ফিফটি, শতরানের জুটিতে এগিয়ে বাংলাদেশ
দেশে ফিরেছেন লক্ষাধিক হাজি
নোয়াখালীতে যুবককে নির্মমভাবে হত্যা
সুনামগঞ্জে হত্যার দায়ে একজনের ফাঁসি 
আজ দলে নেই সাকিব
ইন্টারনেটে বাংলাদেশ-পাকিস্তান ম্যাচ দেখবেন যেভাবে 
বগুড়ায় দশ হাজার ইয়াবাসহ আটক ২
রাঙামাটিতে অগ্নিকাণ্ডে ২৩টি দোকান পুড়ে ছাই
ফেসবুককে সরকারের ৩ প্রস্তাব 
বাজারে এসেছে এইচপির ক্ষুদ্রতম লেজার প্রিন্টার
ইউএস-বাংলার উড়োজাহাজের জরুরি অবতরণ
‘সিরিয়ার ওপর হামলা চলবেই’
১৬-তেই ধর্ষিত হয়েছিলেন এই অভিনেত্রী
স্বামী কালো তাই...
পাকিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশ
ইরান ইস্যুতে ইউরোপ-আমেরিকার ফাটল
কুকুর কামড়ালে যা করবেন, যা করবেন না
'ইন্টারনেটের অপব্যবহার বিশ্ব শান্তির জন্য হুমকি'
মিঠুন-মুশফিক জুটিতে ভর করে বাংলাদেশের ১৫০
সেই হৃদয় সরকার ঢাবিতে সুযোগ পেয়েছে
কলেজ ছাত্র হত্যার দায়ে ৪ জনের ফাঁসি  
মুশফিকের ফিফটি, শতরানের জুটিতে এগিয়ে বাংলাদেশ
দেশে ফিরেছেন লক্ষাধিক হাজি
একনজরে বাংলাদেশ-পাকিস্তান ম্যাচে হার-জিত
নোয়াখালীতে যুবককে নির্মমভাবে হত্যা
মুশফিক-মিঠুনের জুটিতে বাংলাদেশ ৯০
সুনামগঞ্জে হত্যার দায়ে একজনের ফাঁসি 
তিন উইকেট হারিয়ে বিপর্যয়ে বাংলাদেশ
আজ দলে নেই সাকিব
ইন্টারনেটে বাংলাদেশ-পাকিস্তান ম্যাচ দেখবেন যেভাবে 
বগুড়ায় দশ হাজার ইয়াবাসহ আটক ২
রাঙামাটিতে অগ্নিকাণ্ডে ২৩টি দোকান পুড়ে ছাই
কানাডায় চলচ্চিত্র উৎসবের জুরিতে বাংলাদেশি নির্মাতা
ফেসবুককে সরকারের ৩ প্রস্তাব 
বাজারে এসেছে এইচপির ক্ষুদ্রতম লেজার প্রিন্টার
ইউএস-বাংলার উড়োজাহাজের জরুরি অবতরণ
‘সিরিয়ার ওপর হামলা চলবেই’
নিউইয়র্কে গণমাধ্যম কর্মীদের ঐক্যবদ্ধ থাকার অঙ্গীকার
এনার্জি ড্রিংক নিষিদ্ধ করলো বিএসটিআই
স্বামী কালো তাই...
‘দলের শৃঙ্খলা ভাঙলে বরদাশত করা হবে না’
আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে টাইগারদের সম্ভাব্য একাদশ
শিক্ষক হলেন হাছান মাহমুদ, পড়াবেন জাহাঙ্গীরনগরে
ইসরাইলকে রাশিয়ার হুঁশিয়ারি
প্রধান শিক্ষকের নির্যাতনে শিক্ষার্থী অজ্ঞান!
নগ্ন হয়ে ঘর পরিষ্কার করেন ইনি!
ডাকাত দেখে চিৎকার দিল গৃহবধূ, অতঃপর
ট্রাম্পের গোপন বিষয়ে ‘বোমা’ ফাটালেন স্টর্মি
‘প্রিন্সিপাল আমাকে পর্ন ভিডিও দেখাতেন’
এক অবিশ্বাস্য জয় এনে দিলেন মোস্তাফিজ
রোববার চালু হচ্ছে সিম্ফোনির কারখানা 
ইরানে সামরিক কুচকাওয়াজে হামলায় নিহত বেড়ে ২৪
মোস্তাফিজকে নিয়ে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের টুইট
‘নারীর লজ্জাস্থানে মাদকের কারবার’
নওগাঁয় প্রতারক চক্রের ৪ যুবতী ও তাদের সহযোগী আটক
ছেলের চুরির অপরাধে মা-বোনকে পিটিয়ে জখম
রাতে ফেসবুক বন্ধ চান রওশন এরশাদ
চরমোনাই পীরের ওয়াজ মাহফিল পণ্ডের অভিযোগ

সব খবর