২১ নভেম্বর , বুধবার, ২০১৮

শিরোনাম

> বাংলাদেশ

>> সুখবর

 

নিউজ টোয়েন্টিফোর অনলাইন

১ সেপ্টেম্বর ,শনিবার, ২০১৮ ১৮:৪১:৫৪

'ঘোষিত সময়ের আগেই সবার ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে যাবে'


'ঘোষিত সময়ের আগেই সবার ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে যাবে'

গোলটেবিল বৈঠকে বক্তারা


বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, আমরা ঘোষণা দিয়েছিলাম ২০২১ সালে সবার ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দিবো। ইতোমধ্যে ৯২ শতাংশ জনগণ বিদ্যুতের আওতায় চলে এসেছে। আশা করছি ঘোষিত সময়ের আগেই সবার ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে যাবে।

শনিবার ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের (ইডব্লিউএমডিজিএল) কনফারেন্স রুমে ডেইলি সান আয়োজিত এক সেমিনারে তিনি এ মন্তব্য করেন।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, এই মুহূর্তে সাশ্রয়ী মূল্যে ও মানসম্মত বিদ্যুৎ সরবরাহ প্রধান চ্যালেঞ্জ। পিক আওয়ার, অফ পিক আওয়ারের মধ্যে বিদ্যুৎ চাহিদার ব্যবধান অনেক বেশি। এটা কমিয়ে আনা জরুরি। এজন্য দিনের বেলায় বিদ্যুতের ব্যবহার বাড়িয়ে রাতে কমিয়ে দিতে হবে। বিশ্বের অনেক দেশেই সন্ধ্যা ৭টা-৮টার মধ্যে দোকানপাট- শপিং মল বন্ধ হয়ে যায়। কিন্তু আমাদের সন্ধ্যার পর বিদ্যুৎ চাহিদা অনেক বেড়ে যায়। দুই সময়ের মধ্যে বিদ্যুৎ চাহিদা ১০ হাজার মেগাওয়াট হয়ে গেলে তা ম্যানেজ করা জটিল। অফ পিকেও তখন অনেক প্লান্ট চালু রাখতে হয়। আমাদের অফিস টাইম এগিয়ে আনা যায় কি না সেটা ভেবে দেখার সময় হয়েছে।

সেমিনারে বিদ্যুৎ বিভাগের সচিব ড. আহমেদ কায়কাউস বলেন, আমরা অনেক এগিয়ে আছি এ কথা বলতে পারি। এক সময় বলা হতো কুইক রেন্টাল দেশকে দেউলিয়া করবে। কিন্তু না কিছুই হয়নি। দেশ বরং এগিয়ে গেছে।

আলোচনা আসা লোডশেডিংয়ের জবাবে সচিব বলেন, রংপুর-রাজশাহী অঞ্চলে একটি বিদ্যুৎ কেন্দ্র বন্ধ থাকায় কিছুটা লোডশেডিং হচ্ছে। এটা আমরা স্বীকার করছি। অন্য কোথাও লোডশেডিং নেই। তবে কোথাও কোথায় বিতরণ ত্রুটির কারণে বিঘ্ন হচ্ছে। অনেকে এটাকে লোডশেডিং বলে, আমরা এটাকে লোডশেডিং বলতে পারছি না।

পাওয়ার সেলের ডিজি মোহাম্মদ হোসাইন বলেন, ২০২১ সালের যে রূপকল্প ঘোষণা করা হয় তার অনেক কাছে পৌঁছে গেছি। আমরা এখন ২০৪১ সালের নতুন লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে কাজ শুরু করেছি। ২০৪১ সালে ৪৮ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুতের প্রয়োজন হলেও আমরা ৬০ হাজারের লক্ষ্যে কাজ শুরু করেছি। এতে প্রায় ৮২ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ প্রয়োজন হবে। আমরা মনে করছি এটা পারবো। আমাদের  এখন চ্যালেঞ্জ সঞ্চালন ও বিতরণ লাইন। আমরা সে বিষয়ে কাজ শুরু করেছি। এতে কিছুটা সময় লাগছে বলে মন্তব্য করে মোহাম্মদ হোসেন।

পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান মঈন উদ্দিন বলেন, আমরা ৯০ শতাংশ এলাকায় বিদ্যুৎ বিতরণের দায়িত্বে রয়েছি। ২০১৯ সালের মধ্যে শতভাগ বিদ্যুতায়নে সক্ষম হবো। হবে মানসম্মত বিদ্যুৎ সরবরাহে আরও কিছুটা সময় দিতে হবে।

জ্বালানি বিশেষজ্ঞ ম. তামিম বলেন, এক সময় ৮৫ শতাংশ বিদ্যুৎ উৎপাদন হতো গ্যাসে। এখন মাত্র ৪৯ শতাংশ গ্যাসে উৎপাদন হচ্ছে। এখন এলএনজি আনা হচ্ছে। এতে বিদ্যুতের দাম বেড়ে যাবে। এখন ৬টাকার মতো দাম, আমার মনে হচ্ছে তিন-চার বছরের মধ্যে ৮ টাকায় চলে যাবে। এটা কীভাবে সামাল দিবে এখনই ভাবা দরকার।

ম. তামিম বলেন, খারাপ ওয়েদারের কারণে অনেক সময়ে ভাসমান এলএনজি স্টেশন থেকে সরবরাহ বিঘ্ন হতে পারে। অবশ্যই ল্যান্ডবেজড এলএনজি স্টেশনের দিকে যেতে হবে। না হলে ঝুঁকি থেকেই যাবে। বড় বড় কয়লা ভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র হচ্ছে। কিন্তু সে তুলনায় দক্ষ প্রকৌশলী রেডি হচ্ছে বলেও সমালোচনা করেন ম. তামিম।

প্রফেসর ইজাজ হোসেন বলেন, আমরা মেগাওয়ার্ট গেমে অনেক সফল। এখন গেমস শিফট করতে হবে। এখানে অনেক ঘাটতি রয়েছে। লোডশেডিং হচ্ছে কিন্তু কেনো স্বীকার করা হয় না। এ নিয়ে প্রশ্ন তোলেন ইজাজ হোসেন।

ডেইলি সানের সম্পাদক এনামুল হক চৌধুরীর সভাপতিত্বে গোলটেবিল আলোচনায় অন্যদের মধ্যে অংশ নেন, বাংলাদেশ প্রতিদিন’র নির্বাহী সম্পাদক পীর হাবিবুর রহমান, নিউজটোয়েন্টিফোরের নির্বাহী সম্পাদক হাসনাইন খুরশিদ, কোল পাওয়ার জেনারেশন কোম্পানির এমডি গোলাম কিবরিয়া, বিজিএমইএ’র ভাইস প্রেসিডেন্ট ফারুক হাসান, সামিট পাওয়ারের এমডি আব্দুল ওয়াহেদ প্রমুখ।


ব্যাংকের কাছে তথ্য চাইতে পারবে মন্ত্রণালয়!
আফগানিস্তানে ঈদ-ই-মিলাদুন্নবীর জমায়েতে বোমা হামলা, নিহত ৪০
শেষ রক্তবিন্দু দিয়ে লড়তে হবে: ফখরুল
কারামুক্ত হলেন আলোকচিত্রী শহিদুল আলম
জাসদের ২২৪ প্রার্থীর তালিকা ঘোষণা
বিএনপির নেতা রফিকুল ইসলাম গ্রেপ্তার
ইসি সচিব ও ডিএমপি কমিশনারসহ চারজনের শাস্তি দাবিতে চিঠি
র‍্যাংকিংয়ে উন্নতি মুশফিক-মিরাজদের
'সব সিদ্ধান্ত আমার ওপর ছেড়ে দাও'
'পরকীয়ার আগুনে' পুড়ে হাসপাতালে স্বামী-স্ত্রী
শরিকদের ৬৫-৭০টি আসন দেওয়া হবে: কাদের
দলীয় মনোনয়ন পাচ্ছেন না বদি ও রানা
পোস্টারে খালেদার ছবি রাখায় ‘বাধা নেই’
রফিকুল ইসলাম মিয়ার ৩ বছরের কারাদণ্ড, গ্রেপ্তারি পরোয়ানা
নরসিংদীতে বাস-মোটরসাইকেল সংঘর্ষ, নিহত ২
চাঁপাইনবাবগঞ্জে জামায়াত কর্মী সন্দেহে ১২ নারী আটক
জাতীয় পার্টির মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎ আজ
বিএনপি শরিকদের ৩৫-৪০ আসন দিতে চায়! 
'নির্বাচনে পর্যবেক্ষরা গণমাধ্যমকে প্রতিক্রিয়া জানাতে পারবেন না'
'পাকিস্তানকে বলির পাঁঠা বানাতে চাইছেন ট্রাম্প'
ঘরেই তৈরি করুন ইলিশ কোরমা
ব্যাংকের কাছে তথ্য চাইতে পারবে মন্ত্রণালয়!
আফগানিস্তানে ঈদ-ই-মিলাদুন্নবীর জমায়েতে বোমা হামলা, নিহত ৪০
শেষ রক্তবিন্দু দিয়ে লড়তে হবে: ফখরুল
কারামুক্ত হলেন আলোকচিত্রী শহিদুল আলম
জাসদের ২২৪ প্রার্থীর তালিকা ঘোষণা
বিএনপির নেতা রফিকুল ইসলাম গ্রেপ্তার
খুলেছে স্কাইপে
ইসি সচিব ও ডিএমপি কমিশনারসহ চারজনের শাস্তি দাবিতে চিঠি
নৌকা পেলেন কাজী জাফরউল্লাহ্
র‍্যাংকিংয়ে উন্নতি মুশফিক-মিরাজদের
'সব সিদ্ধান্ত আমার ওপর ছেড়ে দাও'
নাটোরে বাবা-মেয়ে প্রতিদ্বন্দ্বী
মাদারীপুরে বিলবোর্ড, ব্যানার ও পোস্টার অপসারণ শুরু
'পরকীয়ার আগুনে' পুড়ে হাসপাতালে স্বামী-স্ত্রী
খুলনায় অর্ধশতাধিক কচ্ছপসহ দুই পাচারকারী আটক
রাঙামাটিতে তক্ষক পাচারের অভিযোগে আটক ২
চাঁদাবাজির অভিযোগে ইউপিডিএফ কর্মী আটক
শরিকদের ৬৫-৭০টি আসন দেওয়া হবে: কাদের
দলীয় মনোনয়ন পাচ্ছেন না বদি ও রানা
'পুলিশ রাষ্ট্রের কর্মচারী, প্রতিপক্ষ ভাববেন না'
সোহাগ গ্রেপ্তার
নাইম হত্যা: ছাত্রলীগ নেতাসহ আটক ৫, বিক্ষোভ
চীন সফরে বিএনপির প্রতিনিধি দল
নৌকা প্রতীক নিয়ে লড়বে যুক্তফ্রন্ট
ইসলাম গ্রহণকারী ভারতীয় সেই নারী খুন
আইপিএলে লিটন দাসকে কিনতে প্রতিযোগিতা !
দ্বিতীয় বিয়েতে দীপিকা-রণবীর
খাসোগি ইস্যুতে ‘ফেঁসেই গেল’ সৌদি আরব
মনোনয়নপত্র কিনলেন বাবরের স্ত্রী শ্রাবণী
বয়স বাড়বে কিন্তু শক্তি কমবে না
মির্জা ফখরুলকে ক্ষমা চাইতে আল্টিমেটাম
নির্বাচন করবেন ইলিয়াসপুত্র ‘অর্ণব’
‘বিনা উসকানিতে’ এটা করল বিএনপি: কাদের
চট্টগ্রামের ডিআইজি প্রিজন ও সিনিয়র জেল সুপারকে বদলি
আ.লীগের চেয়ে বেশি আয় বিএনপির!
‘আমাদের নির্বাচনে যাওয়ার দরকার নেই’
ফকিরাপুল-কাকরাইল বিএনপির দখলে
নোয়াখালীতে ডোবা থেকে কলেজছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার
নির্বাচনে আসলে দোষ কী: হিরো আলম

সব খবর