১৫ নভেম্বর ,বৃহস্পতিবার, ২০১৮

শিরোনাম

> আন্তর্জাতিক

 

নিউজ টোয়েন্টিফোর ডেস্ক

৫ সেপ্টেম্বর , বুধবার, ২০১৮ ১৩:৪৭:০৯

সৎ মেয়েকে দাড়িয়ে থেকে গণধর্ষণ করাল মা


সৎ মেয়েকে দাড়িয়ে থেকে গণধর্ষণ করাল মা

প্রতীকী ছবি


ছেলেকে সঙ্গে নিয়ে সৎ মেয়েকে জঙ্গলে তুলে নিয়ে গেল মা। ডাকা হল ছেলের বন্ধুদের। তার পর সেই সৎ মা নিজে দাড়িয়ে থেকে চোদ্দো বছরের ছেলে এবং তার বন্ধুদের দিয়ে গণধর্ষণ করাল বছর নয়েকের কিশোরী মেয়েকে। ধর্ষণের পর সেই সৎ মা-ই গলা টিপে হত্যা করল মেয়েকে। কুড়ুল দিয়ে কোপাল সৎ ভাই। এক জন তুলে নিল চোখ। অন্য জন ঢেলে দিল অ্যাসিড।

এমনই হাড় হিম করা এক ঘটনা রোববার সামনে আসার পর তোলপাড় শুরু হয় ভরতের জম্মু কাশ্মীরের বারামুলা। পুলিশের দাবি, পারিবারিক শত্রুতার জেরেই এমন নৃশংস ও ভয়াবহ কাণ্ড ঘটিয়েছেন ওই মহিলা। অভিযুক্ত সৎ মা, সৎ ভাই-সহ পাঁচ জনকেই গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। জেরায় ধৃতেরা গোটা ঘটনার কথা স্বীকার করে নিয়েছে বলে দাবি পুলিশের।

গত সপ্তাহে বারামুলার বনিয়ার এলাকার এক ব্যক্তি মেয়ে নিখোজের বিষয়ে একটি ‘মিসিং ডায়েরি’ করেন। রোববার ওই ব্যক্তির বাড়ি থেকে প্রায় এক কিলোমিটার দূরে জঙ্গলে এক কিশোরীর বিকৃত দেহ উদ্ধার হয়। পরনের জামাকাপড় দেখে তাকে শনাক্ত করেন তার বাবা। পুলিশ তদন্তে নেমে ওই কিশোরীর সৎ মা, সৎ ভাই এবং আরও তিন জনকে গ্রেপ্তার করে। তাদের জিজ্ঞাসাবাদে উঠে আসে নারকীয় এই ঘটনার কথা।

ধৃতদের জেরায় পুলিশ জানতে পেরেছে, ছেলের সাহায্য নিয়ে সৎ মা কিশোরী মেয়েকে বাড়ির পাশের জঙ্গলে তুলে নিয়ে যায়। ছেলের বন্ধুদেরও ডাকা হয়। দুষ্কর্মে যোগ দেয় নাসির আহমেদ খান ওরফে গুড্ডু (২৮), কায়সার আহমেদ (১৯) এবং ছেলের বছর চোদ্দোর এক বন্ধু। এর পর সবাই মিলে মেয়েকে গণধর্ষণের নির্দেশ দেয় ওই মহিলা।

পুলিশের দাবি, মহিলার নির্দেশ মতো কিশোরীর সৎ ভাই ও তার বন্ধুরা মিলে গণধর্ষণ করে। তার পর ওই মহিলাই মেয়েকে গলা টিপে হত্যা করে। কুড়ুল দিয়ে গোটা মুখে কুপিয়ে বিকৃত করে দেয় কিশোরীর সৎ ভাই। কায়সার তার দু’টি চোখই খুবলে তুলে নেয়। গুড্ডু বাড়িতে গিয়ে নিয়ে আসে অ্যাসিডের বোতল। অ্যাসিড দিয়ে মুখ-সহ প্রায় সারা শরীর বিকৃত করে দেওয়া হয়। জঙ্গলে কিশোরীর দেহ পুঁতে উপরে গাছের ডালপালা চাপা দিয়ে বাড়িতে ফিরে আসে সবাই।

বীভৎস ও ভয়ানক এই ধর্ষণ-খুনের বর্ণনা শুনে শিউরে উঠেছেন পুলিশ কর্মীরাও। উরির মহকুমা পুলিশ অফিসারের নেতৃত্বে একটি বিশেষ তদন্তকারী দল (স্পেশাল ইনভেস্টিগেশন টিম বা সিট) গঠন করা হয়েছে। ফরেনসিক বিশেষজ্ঞদের নিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে সিট। সেখান থেকে উদ্ধার হয়েছে কুড়ুল, চোখ তুলে নেওয়ার অস্ত্র এবং একটি অ্যাসিডের বোতল।

তদন্তে উঠে এসেছে, কিশোরীর বাবার দুই স্ত্রী। প্রথম স্ত্রী এলাকারই বাসিন্দা। অন্য জন ঝাড়খণ্ডের। তবে দু’জন একই বাড়িতে থাকতেন। ঝাড়খণ্ডের মহিলাকে বিয়ের পর থেকেই প্রথম স্ত্রীর দিকে তেমন নজর ছিল না। দ্বিতীয় স্ত্রীর মেয়ে হওয়া এবং তার বেড়ে ওঠার সঙ্গে সঙ্গে কার্যত প্রথম স্ত্রীকে উপেক্ষা করা শুরু করেন স্বামী। পুলিশের দাবি, বহু বছর ধরে জমে থাকা ক্ষোভের জেরেই সৎ মেয়েকে এমন নৃশংস খুন ও ধর্ষণ করিয়েছেন প্রথম স্ত্রী।

সূত্র: আনন্দবাজার


কামরুল▐ NEWS24


 রণবীর-দীপিকার বিয়ের ছবি ভাইরাল
চীন বা রাশিয়ার সঙ্গে যুদ্ধে হারবে আমেরিকা?
বিয়ের পর কেমন বাড়িতে থাকবেন মুকেশকন্যা ইশা?
মির্জা ফখরুলকে ক্ষমা চাইতে আল্টিমেটাম
দ্বিতীয় বিয়েতে দীপিকা-রণবীর
'বর্তমান পরিস্থিতিতে থাকলে নিরপেক্ষ নির্বাচন অসম্ভব'
কাশ্মীর নিয়ে মন্তব্য, তোপের মুখে আফ্রিদি
'নির্বাচন পেছালে আইনি জটিলতায় পড়বে'
‘ভোট, উইন্ডিজ সিরিজে নেই মাশরাফি’
ধানের শীষ নিয়ে লড়বে ঐক্যফ্রন্ট: মান্না
মনোনয়নপত্র কিনলেন বাবরের স্ত্রী শ্রাবণী
২১৮ রানের বিশাল জয় বাংলাদেশের
খাসোগি হত্যায় সালমান জড়িত: সিআইএ
পর নারীর সঙ্গে কথা বলায় স্বামীর গোপনাঙ্গ ছেদ
যশোরে বাস দুর্ঘটনায় একজন নিহত, আহত ১৫
নির্বাচন পেছানোর দাবি অবান্তর: কাদের
‘মুহাম্মদ আলী বক্সার না হলে ইমাম হতেন’
নির্বাচনের ২-১০ দিন আগে সেনা মোতায়েন: ইসি সচিব
পুরুষদের দুবার বিয়ে বাধ্যতামূলক যেখানে!
ফ্রান্স যুক্তরাষ্ট্রের খেলার পুতুল নয়: ম্যাকরন
বিএনপি সদস্য নিপুর রায় চৌধুরী গ্রেপ্তার
 রণবীর-দীপিকার বিয়ের ছবি ভাইরাল
চীন বা রাশিয়ার সঙ্গে যুদ্ধে হারবে আমেরিকা?
নোয়াখালীতে ডোবা থেকে কলেজছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার
ময়মনসিংহে ছাত্রলীগের বিক্ষোভ মিছিল
বিয়ের পর কেমন বাড়িতে থাকবেন মুকেশকন্যা ইশা?
'চলনবিলবাসীকে উন্নয়ন,সুশাসন ও নিরাপদ জনপদ উপহার দিয়েছি' 
মির্জা ফখরুলকে ক্ষমা চাইতে আল্টিমেটাম
দ্বিতীয় বিয়েতে দীপিকা-রণবীর
নোবিপ্রবিতে কৃষি দিবস  পালিত
দিনাজপুরে তিনদিন ব্যাপী নবান্ন উৎসব শুরু
বিচার না হওয়া পর্যন্ত ফিরতে চায় না রোহিঙ্গারা
দীপন হত্যা মামলার অভিযোগপত্র দাখিল
'বর্তমান পরিস্থিতিতে থাকলে নিরপেক্ষ নির্বাচন অসম্ভব'
কাশ্মীর নিয়ে মন্তব্য, তোপের মুখে আফ্রিদি
শ্রীলঙ্কায় এখন কোনও প্রধানমন্ত্রী নেই
'নির্বাচন পেছালে আইনি জটিলতায় পড়বে'
পাকুন্দিয়ায় মা ও স্ত্রীকে হত্যার দায়ে একজনের মৃত্যুদণ্ড 
খুলনায় নবান্ন উৎসব উদযাপিত
ঝিনাইদহে নবান্ন উৎসব
নির্বাচন করবেন হিরো আলম!
৩০ ডিসেম্বর নির্বাচন ‘উদ্দেশ্যপ্রণোদিত’: রব
'পুলিশ রাষ্ট্রের কর্মচারী, প্রতিপক্ষ ভাববেন না'
বিএনপিকে চাঙ্গা করতে আসছেন জোবাইদা
চীন সফরে বিএনপির প্রতিনিধি দল
মাশরাফির নির্বাচন নিয়ে যা বললেন তার বাবা
ইসলাম গ্রহণকারী ভারতীয় সেই নারী খুন
হামাসের ক্ষেপণাস্ত্রে ইসরাইলের সেনাবাস ভস্মীভূত
বিএনপির কাছে ১০০ আসন চাচ্ছেন শরিকরা
মৃত্যুর আগে যে কথা বলেন খাসোগি
আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র কিনবেন মাশরাফি
সংসদ নির্বাচনে যাচ্ছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট
বয়স বাড়বে কিন্তু শক্তি কমবে না
‘বিনা উসকানিতে’ এটা করল বিএনপি: কাদের
চাঁদা চাওয়া সেই এসআই বরখাস্ত
ফকিরাপুল-কাকরাইল বিএনপির দখলে
২০ দল বেড়ে হলো ২৩ দলীয় জোট
‘আমাদের নির্বাচনে যাওয়ার দরকার নেই’
একসঙ্গে দুই বোনের আত্মহত্যা!
'মহাজোট থেকে জাতীয় পার্টি নির্বাচনে অংশ গ্রহণ'

সব খবর