২৫ সেপ্টেম্বর ,মঙ্গলবার, ২০১৮

শিরোনাম

> বাংলাদেশ

>> জনদুর্ভোগ

 

ফাতেমা জান্নাত মুমু  • রাঙামাটি

৬ সেপ্টেম্বর ,বৃহস্পতিবার, ২০১৮ ১৯:৪৬:৪৭

পাহাড় ধসে রাঙামাটি সড়কের বেহাল দশা


পাহাড় ধসে রাঙামাটি সড়কের বেহাল দশা

রাঙামাটি সড়কের এখন এমনই হাল!


দেড় বছরেও সংস্কার হয়নি রাঙামাটিতে পাহাড় ধসে বিধ্বস্ত সড়কগুলো। এরই মধ্যে পাহাড় ধসের বিপর্যয় কাটলেও ঝুঁকিমুক্ত হয়নি শহরের বিভিন্ন সড়ক। ক্ষতিগ্রস্ত সে সড়কগুলো এখন যেন মৃত্যুর ফাঁদ! দীর্ঘদিন যাবত মেরামত না করায় এসব সড়ক এখন চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। তবুও ঝুঁকি নিয়েই চলাচল করছে ভারি, মাঝারি ও ছোট-বড় সব ধরনের যানবাহন। 

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, সড়কগুলোর বিভিন্ন স্থানে কার্পেটিং উঠে খানাখন্দে পরিণত হয়েছে। কোনো কোনো সড়কের দু’পাশ ভেঙে ভারি যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। তবুও সড়ক উন্নয়নে দৃশ্যমান কোনো প্রদক্ষেপ নেয়নি সংশ্লিষ্টরা। তাই ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষকে প্রতিনিয়ত চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে,২০১৭সালের ১৩জুন প্রাকৃতিক দুর্যোগে তছনছ হয়ে যায় পুরো রাঙামাটি। পাহাড় ধসে বিধ্বস্ত হয়ে যায় রাঙামাটির বিভিন্ন সড়কের ১৪৫টি স্থান। তার মধ্যে ১১৩টি স্থানে সড়কে একেবারেই চলাচলের অযোগ্য হয়ে  যায়। 

এছাড়া শহরের ৩টি গুরুত্বপূর্ণ স্থানে সড়ক ধসে সারা দেশের সাথে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় রাঙামাটির। সে সময় ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয় রাঙামাটি-চট্টগ্রাম, রাঙামাটি-খাগড়াছড়ি, রাঙামাটি-বান্দরবান ও রাঙামাটি-আসামবস্তি-কাপ্তাই সড়ক। সে ক্ষত শুকাতে না শুকাতেই চলতি বছর বর্ষায় নতুন করে ভেঙে পড়ে সড়কের আরও ৬টি স্থানে। যার মোট পরিসংখ্যন দাঁড়ায় ১৫১টিতে। কিন্তু সংস্কার হয়নি একটিও। তাই ক্ষতিগ্রস্ত সড়কে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে বিভিন্ন যানবাহনের হাজার হাজার যাত্রী। 

রাঙামাটি অটোরিক্সা (সিএনজি) চালক সমিতির নেতা মো. বাবুল হোসেন বলেন, ‘আকাঁ-বাকাঁ পাহাড়ি সড়কগুলো ভেঙে গিয়ে মারাত্মক রূপ ধারণ করেছে। প্রায় প্রতিদিনই ঘটছে ছোট-বড় দুর্ঘটনা। সড়কের  প্লাস্টার, ইট, কংক্রিট উঠে গিয়ে বড় বড় গর্তে পরিণত হয়েছে। আবার কোথাও ভেঙে পড়েছে সড়কের বিরাট অংশ। এসব সড়কে বালির বস্তা দিয়ে কোনো রকম যোগাযোগ ব্যবস্থা চালু রাখা হলেও এড়ানো যাচ্ছে না দুর্ঘটনা। তাই পর্যটন শহর হিসেবে পরিচিত রাঙামাটির সড়কগুলো দীর্ঘ দিন ধরে বেহাল অবস্থায় থাকায় ক্ষোভ দেখা দিয়েছে স্থানীয়দের মধ্যে।’

এ ব্যাপারে রাঙামাটি সড়ক ও জনপদ বিভাগ নির্বাহী প্রকৌশলী মো. এমদাদ হোসেন বলেন, ‘গেল বছর ও চলতি বছর অতিবৃষ্টির কারণে ব্যাপক পাহাড় ধস হয়েছে। ভেঙেছে বেশির ভাগ সড়ক।আমরা আপতত বালির বস্তা দিয়ে সড়কগুলো ধরে রাখার চেষ্টা করছি। তবে স্থায়ী কাজ করা না হলে এ সড়কগুলো ধরে রাখা সম্ভব না।’

‘তাই ক্ষতিগ্রস্ত সড়কের স্থায়ী কাজের জন্য ১৫১টি স্থানের নকশা তৈরি করে ২৩০ কোটি টাকার প্রকল্প সরকারের কাছে পাঠানো হয়েছে। এ প্রকল্পের আওতায় ৫হাজার ২৭০ মিটার রিটার্নিং ওয়াল নির্মাণ করা হবে’- যোগ করেন প্রকৌশলী মো. এমদাদ।

অভিযোগ রয়েছে, রাঙামাটিতে পাহাড় ধসে ক্ষতিগ্রস্ত সড়কের সংখ্যা বাড়লেও কাজের অগ্রগতি বাড়েনি। প্রকল্প অনুমোদনের আশায় ঝুলে আছে সড়ক উন্নয়ন কাজ। যার দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে জনসাধারণকে। তাই এ সমস্যা দ্রুত নিরসনে সরকারের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন রাঙামাটিবাসী। 


মুমু▐ অরিন▐ NEWS24


দাঁড়িয়ে থাকা অটোরিকশায় ট্রাক ধাক্কা নিহত ৪
ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব পেয়েছে শাহজাদ
ফিফার ‘দ্য বেস্ট’ হলেন মদ্রিচ
রোহিঙ্গা সংকটে জাতিসংঘে প্রধানমন্ত্রীর তিন দফা
রাজধানীতে ৩ দিনব্যাপী বিমান ট্যুরিজম ফেস্ট
‘পাকিস্তান পরাশক্তির কাছে মাথানত করে না’
ট্রেনের ছাদ থেকে ছাত্রকে ফেলে দিল দুর্বৃত্তরা
তাপে পাকানো হয় কদবেল, নষ্ট হচ্ছে গুণাগুণ!
‘জাতিসংঘের হস্তক্ষেপ করার অধিকার নেই’
‘দলের শৃঙ্খলা ভাঙলে বরদাশত করা হবে না’
নেত্রকোনায় মাথাবিহীন শিশুর জন্ম!
ট্রাম্পের কথা রাখল না ওপেক
বাগানে মিলল দু’মাথাওয়ালা সাপ
সাগরে ভেসে ৪৯ দিন বেঁচে ছিল এই তরুণ
মোটরসাইকেলে ওড়না পেঁচিয়ে আ.লীগ নেত্রীর মৃত্যু
‘বাবার মৃত্যু ক্রিকেট ক্যারিয়ার পাল্টে দিয়েছে’
গাংনীতে আড়াই বছরের শিশু ধর্ষণ!
সিরিয়ায় মার্কিন বিমান হামলায় নিহত ৩,৩০০
‘রুহানির সঙ্গে বৈঠক করতে চান ট্রাম্প’
পিরোজপুর চলছে ‘ইলিশ উৎসব’ 
দাঁড়িয়ে থাকা অটোরিকশায় ট্রাক ধাক্কা নিহত ৪
ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব পেয়েছে শাহজাদ
প্রধানমন্ত্রীর ফ্লাইটে কেবিন ক্রুর মদপান
ফিফার ‘দ্য বেস্ট’ হলেন মদ্রিচ
রোহিঙ্গা সংকটে জাতিসংঘে প্রধানমন্ত্রীর তিন দফা
রাজধানীতে ৩ দিনব্যাপী বিমান ট্যুরিজম ফেস্ট
‘পাকিস্তান পরাশক্তির কাছে মাথানত করে না’
ট্রেনের ছাদ থেকে ছাত্রকে ফেলে দিল দুর্বৃত্তরা
তাপে পাকানো হয় কদবেল, নষ্ট হচ্ছে গুণাগুণ!
‘জাতিসংঘের হস্তক্ষেপ করার অধিকার নেই’
‘দলের শৃঙ্খলা ভাঙলে বরদাশত করা হবে না’
নেত্রকোনায় মাথাবিহীন শিশুর জন্ম!
ট্রাম্পের কথা রাখল না ওপেক
বাগানে মিলল দু’মাথাওয়ালা সাপ
সাগরে ভেসে ৪৯ দিন বেঁচে ছিল এই তরুণ
মোটরসাইকেলে ওড়না পেঁচিয়ে আ.লীগ নেত্রীর মৃত্যু
‘বাবার মৃত্যু ক্রিকেট ক্যারিয়ার পাল্টে দিয়েছে’
গাংনীতে আড়াই বছরের শিশু ধর্ষণ!
সিরিয়ায় মার্কিন বিমান হামলায় নিহত ৩,৩০০
‘রুহানির সঙ্গে বৈঠক করতে চান ট্রাম্প’
কাবা শরীফের ভেতরে ঢুকলেন ইমরান খান(ভিডিও)
আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে টাইগারদের সম্ভাব্য একাদশ
শিক্ষক হলেন হাছান মাহমুদ, পড়াবেন জাহাঙ্গীরনগরে
‘মন্ত্রীর পা ধরেও সড়কের কাজ শুরু করা যায় নি’
‘দলের শৃঙ্খলা ভাঙলে বরদাশত করা হবে না’
কুড়িগ্রামে কিশোর-কিশোরীর লাশ উদ্ধার
ইসরাইলকে রাশিয়ার হুঁশিয়ারি
ওমরাহ ভিসায় সৌদি ভ্রমণে বিশেষ ছাড়
প্রধান শিক্ষকের নির্যাতনে শিক্ষার্থী অজ্ঞান!
ট্রাম্পের গোপন বিষয়ে ‘বোমা’ ফাটালেন স্টর্মি
সুন্দরী তরুণীদের ধর্ষণ ও হত্যা করাই তার কাজ
নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতাল থেকে ৯ দালাল আটক
রোববার চালু হচ্ছে সিম্ফোনির কারখানা 
এক অবিশ্বাস্য জয় এনে দিলেন মোস্তাফিজ
যেসব নারীকে বিবাহ করা হারাম
সন্তান জন্ম দিয়ে বিপাকে প্রবাসীর স্ত্রী
নির্বাচনে দাঁড়াচ্ছেন সেই খুনি শম্ভুলাল(ভিডিও)
ইরানে সামরিক কুচকাওয়াজে হামলায় নিহত বেড়ে ২৪
‘নারীর লজ্জাস্থানে মাদকের কারবার’
নওগাঁয় প্রতারক চক্রের ৪ যুবতী ও তাদের সহযোগী আটক

সব খবর