১৬ ফেব্রুয়ারি ,শনিবার, ২০১৯

শিরোনাম

> বাংলাদেশ

>> অপরাধ

 

নিউজ টোয়েন্টিফোর ডেস্ক

১২ সেপ্টেম্বর , বুধবার, ২০১৮ ২০:৪০:০৬

শপিং করতে গিয়ে মাদক কারবারীর সাথে পরিচয়, অতঃপর...


শপিং করতে গিয়ে মাদক কারবারীর সাথে পরিচয়, অতঃপর...

এক নারী মাদকসেবী


বছর দুয়েক আগে ঢাকা নিউ মার্কেটে কেনাকাটা করতে যান গৃহবধূ সাদিয়া ইসলাম মায়া। সেখানে দুই নারীর সাথে পরিচয় হয় তার। ফোন নম্বরও আদান-প্রদান হয়। কিন্তু এই পরিচয় যে সাদিয়ার জীবনকে অন্ধকারে ঠেলে দিবে তখন তা ঘুনাক্ষরেও বুঝতে পারেননি সাদিয়া। গৃহবধূ সাদিয়া এখন আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে আটক। তিনি এখন ঢাকা শহরের শীর্ষ মাদক সম্রাজ্ঞী।

কীভাবে সাদিয়া এই অন্ধকার জগতে পা বাড়ালেন? সেই ঘটনা অনেকটা সিনেমার মতো। অর্থ-বিত্তের আকাঙ্ক্ষা সবারই থাকে। ছিল সাদিয়ারও। কেউ সৎ পথে দীর্ঘদিন পরিশ্রম করে সম্পদ গড়েন, কেউ অসৎ সঙ্গে পড়ে সহজে টাকা বানাতে খুঁজে নেন বিপজ্জনক অবৈধ পথ। সাদিয়াও তেমন 'শর্টকাট' বিপজ্জনক পথ খুঁজে পেয়েছিলেন নিউ মার্কেট এলাকায় পরিচয় হওয়া দুই নারীর সঙ্গে পরিচয়ের পর। ওই দুই নারীই জড়িত ছিল মাদক ব্যবসার সঙ্গে। তারা পরিচয়ের পর থেকেই সাদিয়ার সঙ্গে নিয়মিত ফোনে যোগাযোগ করতে শুরু করেন। মাদক ব্যবসায় নগদ টাকা, অল্প সময়ে বিত্তবান হওয়ার গল্প দুই মাদক কারবারীর কাছ থেকে প্রায়ই শুনতো সাদিয়া। একটা সময় ওই দুই মাদক কারবারী সাদিয়া ওরফে মায়াকে মাদক ব্যবসায় যোগ দেওয়ার প্রস্তাব দেয় এবং মাদকের চালান পেতে সহযোগিতারও আশ্বাস দেয়। কাচা টাকার লোভ সামলাতে পারেননি সাদিয়া। একপর্যায়ে মাদক কারবারীর খাতায় নাম লেখান। সেই থেকে শুরু সাদিয়ার অন্ধকার জগতে পথচলা।

এক সময় পুলিশের খাতায় নাম ওঠে সাদিয়ার। মাদক ব্যবসা করতে গিয়ে মাঝে মধ্যে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে ধরাও পড়তে হয়েছে তাকে। জেলও খাটতে হয়েছে। তবে অধিকাংশ সময়ই আইনের ফাঁক গলে বেরিয়ে আসে সে। ফের একই কাজে নেমে পড়ে। দীর্ঘদিন ধরে রাজধানীর বাড্ডা এলাকায় থেকে ইয়াবাসহ বিভিন্ন মাদকের অন্যতম নেটওয়ার্ক হিসেবে কাজ করছিলেন সাদিয়া। সর্বশেষ আজ (১২ সেপ্টেম্বর, বুধবার) দুপুরে সহযোগীসহ ফের ধরা পড়েছে বাড্ডা এলাকার শীর্ষ এই মাদক সম্রাজ্ঞী।

র‌্যাব-৩ এর কোম্পানি কমান্ডার লেফটেন্যান্ট আশিকুর রহমান বলেন, ‘বুধবার বাড্ডা এলাকার ১৩ নম্বর রোডের ‘সি’ ব্লকের একটি বাসা থেকে সাদিয়া ও তার সহযোগী মুহাম্মদ কাইয়ুম খানকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় তাদের কাছ থেকে ১০ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে।’ 

‘গোপন সূত্রে র‌্যাব জানতে পারে, সাদিয়ার বাড্ডার বাসায় ইয়াবার বড় একটি চালান এসেছে। সেই সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালানো হয়। সাদিয়া দীর্ঘ দিন ধরে চট্টগ্রাম থেকে ইয়াবা এনে ব্যবসা করতো। বাড্ডা ও ভাটারা থানায় তার নামে মামলা রয়েছে। এর আগে জেলও খেটেছে সে। জেল থেকে বের হয়ে ফের একই পেশায় যুক্ত হয়েছে সে’- জানান র‌্যাব কর্মকর্তা আশিকুর রহমান।

র‌্যাব জানায়, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা গেছে, বেশ কয়েক বছর আগে কাইয়ুম ও সাদিয়ার পরিবার একই ভবনে ভাড়া থাকতো। সেই সুবাদে তাদের পরিচয়। তবে মাঝে কাইয়ুম লন্ডনে চলে যায়। বছর দুয়েক আগে সে দেশে ফেরে। দেশে আসার পর সাদিয়া কাইয়ুমকে মাদক ব্যবসায় যুক্ত করে। তাদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট ধারায় মামলা করে পুলিশে হস্তান্তর করা হবে।


অরিন▐ NEWS24


সংরক্ষিত নারী আসনে ৪৯ জন নির্বাচিত
মাদক নিয়ন্ত্রণে সীমান্তকে কঠোরভাবে সুরক্ষা করব: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
জানাজা সম্পন্ন, আল মাহমুদের দাফন হবে গ্রামের বাড়িতে
'জামায়াত ক্ষমা চাইলেও যুদ্ধাপরাধের বিচার চলবে'
শপথ নিলেন সৈয়দ আশরাফের বোন
রোহিঙ্গাদের জন্য আরও ৯২০ মিলিয়ন ডলারের আবেদন
'হোয়াইটওয়াশ এড়ানোর চেষ্টা করতেই হবে'
যে ইয়াবা ব্যবসায়ীরা আত্মসমর্পণ করছেন 
বন্দুকধারীদের গুলিতে ৬৬ জন নিহত
বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বের আখেরি মোনাজাত অনুষ্ঠিত
বাদ জোহর কবি আল মাহমুদের জানাজা
ফের গাপটিলের সেঞ্চুরি, নিউজিল্যান্ডের সিরিজ জয়
সুবর্ণচরে নারী পুলিশের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার
পিকআপ ভ্যান চাপায় এসএসসি পরীক্ষার্থী নিহত
১৩ কোটি টাকার মূল্যের ইয়াবা উদ্ধার
প্রধানমন্ত্রীর রুপকল্প বাস্তবায়ন করতে কাজ করছে শিল্প মন্ত্রালয়
যুবলীগ নেতা হত্যার ঘটনায় নাটোর থমথমে
ক্রাইস্টচার্চে সিরিজ বাঁচানোর লড়াই
বিএনপিকে ‘মামলাবাজ দল' বললেন নাসিম
এমপি ও নায়ক ফারুক আহত
সংরক্ষিত নারী আসনে ৪৯ জন নির্বাচিত
ট্রা‌কের ধাক্কায় দুই মোটরসাই‌কেলের অ‌রোহী নিহত
মাদক নিয়ন্ত্রণে সীমান্তকে কঠোরভাবে সুরক্ষা করব: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
জানাজা সম্পন্ন, আল মাহমুদের দাফন হবে গ্রামের বাড়িতে
'জামায়াত ক্ষমা চাইলেও যুদ্ধাপরাধের বিচার চলবে'
ঘরেই তৈরি করতে পারবেন 'চিকেন গ্রিল'
শপথ নিলেন সৈয়দ আশরাফের বোন
রোহিঙ্গাদের জন্য আরও ৯২০ মিলিয়ন ডলারের আবেদন
'হোয়াইটওয়াশ এড়ানোর চেষ্টা করতেই হবে'
যে ইয়াবা ব্যবসায়ীরা আত্মসমর্পণ করছেন 
বন্দুকধারীদের গুলিতে ৬৬ জন নিহত
বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বের আখেরি মোনাজাত অনুষ্ঠিত
বাদ জোহর কবি আল মাহমুদের জানাজা
ফের গাপটিলের সেঞ্চুরি, নিউজিল্যান্ডের সিরিজ জয়
সুবর্ণচরে নারী পুলিশের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার
পিকআপ ভ্যান চাপায় এসএসসি পরীক্ষার্থী নিহত
১৩ কোটি টাকার মূল্যের ইয়াবা উদ্ধার
প্রধানমন্ত্রীর রুপকল্প বাস্তবায়ন করতে কাজ করছে শিল্প মন্ত্রালয়
মঠবাড়িয়ায় ট্রাক চাপায় স্কুলছাত্র নিহত
যুবলীগ নেতা হত্যার ঘটনায় নাটোর থমথমে
নিজের ফাঁসি চেয়ে আ.লীগ নেত্রীর ১০ প্রশ্ন
ভালোবাসা দিবসে বিয়ে করলেন প্রীতম-মিথিলা
‘শেখ হাসিনার কিছুই করার নেই’
প্রেমের টানে গাজীপুরে মার্কিন তরুণ, ধর্মান্তরিত হয়ে বিয়ে
সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ফেরদৌস-পূর্ণিমা  
হনুমানের লাশ কাঁধে নিয়ে মনি পাগলের আহাজারি
রাজনীতি থেকে অবসর নেয়ার পর গ্রামে চলে যাব: প্রধানমন্ত্রী
প্রশ্নপত্রে ভুল, বুধবারের এসএসসি পরীক্ষা পেছাল
সুবর্ণচরে নারী পুলিশের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার
এমপি ও নায়ক ফারুক আহত
'কাশ্মীরের হামলার ঘটনায় পাকিস্তান দায়ী'
অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে খুনের পর ভোরে থানায় হাজির স্বামী!
সড়ক থেকে নছিমন ব্রীজের নিচে, যুবক নিহত
তৃতীয় স্বামীকে বাদ দিয়ে চতুর্থ বিয়ে, অতঃপর খুন
যশোরে সড়ক দুর্ঘটনায় আ.লীগ নেতার মৃত্যু
ধর্ষণে অভিযোগে দুই পুলিশ কর্মকর্তা গ্রেপ্তার
মালয়েশিয়ায় গুলিতে ২ বাংলাদেশি নিহত
৬ দিনের সফরে জার্মানি-ইউএই যাবেন প্রধানমন্ত্রী
আবাসিক হোটেল থেকে ৩১ তরুণ-তরুণী আটক
ফুলবাড়িয়া থানা ঘেরাও, এসআইসহ গ্রেপ্তার ২

সব খবর