২৪ ফেব্রুয়ারি ,রবিবার, ২০১৯

শিরোনাম

> সোশ্যাল মিডিয়া

 

নিউজ টোয়েন্টিফোর ডেস্ক

৫ অক্টোবর ,শুক্রবার, ২০১৮ ১৪:০০:২৯

রোহিঙ্গা সংকট: মোকাবেলা যেভাবে


রোহিঙ্গা সংকট: মোকাবেলা যেভাবে

রোহিঙ্গা সংকট


রোহিঙ্গা শরনার্থী সংকট সমাধানে চীনের পক্ষ থেকে যে ফর্মূলা গোড়া থেকেই দেওয়া হচ্ছে তা হচ্ছে দ্বিপাক্ষিক সমাধান। সম্প্রতি নিউইয়র্কে চীনের মধ্যস্থতায় বাংলাদেশ-মিয়ানমারের বৈঠকের উদ্দেশ্যও তাই।

চীন কোনোভাবেই রোহিঙ্গা ইস্যুকে আন্তর্জাতিকীকরণের পক্ষে নয়। এর কারণ একাধিক; মিয়ানমারের, বিশেষত মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর, সঙ্গে চীনের দীর্ঘ ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক তার অন্যতম। অর্থনৈতিক স্বার্থ আরেকটি। কিন্ত তার সঙ্গে যুক্ত হয়েছে এই অঞ্চলে পশ্চিমা দেশুগুলোর কোনো রকম প্রভাব বিস্তার রোধ। চীনের এই সব স্বার্থ এই অঞ্চলের দেশগুলোর জন্যে কতটা লাভজনক বা তার ফলে এই অঞ্চলের দেশগুলোকে কী ভার বইতে হবে সেই বিষয়ে চীনের বিবেচনা সামান্যই।

মিয়ানমারের অর্থনীতিতে ক্রমবর্ধমান সংকট দৃশ্যমান। একথা অস্বীকারের উপায় নেই এই অবস্থার একটা কারণ হচ্ছে 
রাখাইনের পরিস্থিতি। চীনের এবং মিয়ানমারের সরকারের আগ্রহ হচ্ছে দ্রুত একটা জোড়াতালির সমাধানের ব্যবস্থা করে আন্তর্জাতিক বিনিয়োগের পরিমাণ বাড়িয়ে অবস্থার মোকাবেলা করা। সেই কারণেই চীন এবং মিয়ানমার এক ধরনের উৎসাহ দেখাচ্ছে। আগে কেবল কথা বলার জায়গায় ছিল। এখন তার চেয়ে দুই কদম আগাতে চায় – এর বেশি কিছু নয়। কিন্ত তা যে শরনার্থীদের জন্যে সমাধান নয় তা উপলব্ধি করা দরকার।

রোহিঙ্গা সমস্যার যে তিনটি দিক আছে সেগুলো পারস্পরিকভাবে সম্পর্কিত হলেও এখন সেগুলোকে আলাদাভাবে বিবেচনা করা এবং সেগুলোকে মোকাবেলা করার জন্য আলাদাভাবেই বাংলাদেশের অগ্রসর হওয়া দরকার।

প্রথম দিক হচ্ছে শরনার্থীদের প্রত্যাবর্তন; দ্বিতীয় দিক হচ্ছে মিয়ানমারের ভেতরে রাজনৈতিক এবং সাংবিধানিক পরিবর্তনের মাধ্যমে রোহিঙ্গাদের মৌলিক নাগরিক অধিকার প্রতিষ্ঠা করা; তৃতীয়ত হচ্ছে মিয়ানমারে সংগঠিত গণহত্যার বিচারের ব্যবস্থা করা। প্রথমটি যদিও দ্বিপাক্ষিকভাবে সমাধান করতে হবে, পরেরগুলো দ্বিপাক্ষিকভাবে সমাধান সম্ভব নয়। মিয়ানমারের ভেতরের সংস্কার ছাড়া যে শরনার্থীদের ফেরত পাঠানো যাবে না সেটা বোধগম্য। অন্যদিকে গণহত্যার বিচারের দায়িত্ব আন্তর্জাতিক সমাজের। ফলে চীনের মধ্যস্থতায় যে কোনো ধরনের দ্বিপাক্ষিক সমাধানের সময়ে বাংলাদেশকে বলতেই হবে যে চীন তার প্রভাব খাটিয়ে অভ্যন্তরীণ সংস্কারের পদক্ষেপ নিক।

আর অন্যদিকে শরনার্থীদের ফেরত নেওয়া না নেওয়ার সঙ্গে গণহত্যার বিচারের সম্পর্ক নেই। কোনোভাবেই যেন চটজলদি কিছু শরনার্থীকে দেশে ফেরত নেওয়ার কারণে মিয়ানমার এই অপরাধের দায় থেকে মুক্তি লাভ না করে সেটা লক্ষ্য রাখার বিষয়।

(ফেসবুক থেকে সংগৃহীত)

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)


‘আমরা শান্তিপ্রিয়, তবে হুমকির মুখে ভীত নই’
‌‘যুদ্ধে বিজয়ী হতে সব করবে ভারত’
জাজাই তাণ্ডবে অস্ট্রেলিয়ার রেকর্ড চুরমার
চকবাজারে ফের আগুন আতঙ্ক
মুশফিকের টেস্ট খেলা অনিশ্চিত!
অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় জাতিসংঘের শোক
‘৮ লাখ ফেরত পাঠানোর চেষ্টা চলছে’
বিশ্বকাপে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ নিয়ে যা বললেন বিরাট
ভারতে বিস্ফোরণে ১১ জন নিহত
‘হেফজতিরাও কাদিয়ানী হামলায় জড়িত’  
‘পাহাড়ে আগের মতো আনন্দ নেই’
অস্ট্রেলিয়ায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন 
জমি নিয়ে সংঘর্ষে গেল দুই প্রাণ
চিকিৎসকের অবহেলায় রোগীর মৃত্যু, ক্লিনিকে হামলা
‘ট্রাম্প পছন্দ করে, তাই বিস্মিত করবে ইরান’
‘গ্যাস সিলিন্ডার থেকেই আগুন লাগে’
আসামে মদপানে মৃত বেড়ে ৮৪
সেফটিক ট্যাংকে যুবকের লাশ
কক্সবাজারে গোলাগুলিতে নিহত ২
ইভটিজিংয়ের অভিযোগে ছাত্রলীগ নেতার কারাদণ্ড
‘আমরা শান্তিপ্রিয়, তবে হুমকির মুখে ভীত নই’
‌‘যুদ্ধে বিজয়ী হতে সব করবে ভারত’
জাজাই তাণ্ডবে অস্ট্রেলিয়ার রেকর্ড চুরমার
চকবাজারে ফের আগুন আতঙ্ক
মুশফিকের টেস্ট খেলা অনিশ্চিত!
অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় জাতিসংঘের শোক
‘এমএ পাস’ ওসি দিচ্ছেন এসএসসি পরীক্ষা
‘৮ লাখ ফেরত পাঠানোর চেষ্টা চলছে’
বিশ্বকাপে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ নিয়ে যা বললেন বিরাট
ভারতে বিস্ফোরণে ১১ জন নিহত
‘হেফজতিরাও কাদিয়ানী হামলায় জড়িত’  
‘পাহাড়ে আগের মতো আনন্দ নেই’
অস্ট্রেলিয়ায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন 
জমি নিয়ে সংঘর্ষে গেল দুই প্রাণ
চিকিৎসকের অবহেলায় রোগীর মৃত্যু, ক্লিনিকে হামলা
‘ট্রাম্প পছন্দ করে, তাই বিস্মিত করবে ইরান’
‘গ্যাস সিলিন্ডার থেকেই আগুন লাগে’
আসামে মদপানে মৃত বেড়ে ৮৪
সেফটিক ট্যাংকে যুবকের লাশ
কক্সবাজারে গোলাগুলিতে নিহত ২
মোদিকে বড় ভাই বললেন সালমান, ব্যাপক বিক্ষোভ
ঘর ভাঙলো কমেডি অভিনেতা সিমান্ত ও মীমের
শ্বশুরবাড়ির সবাইকে অচেতন করে শ্যালিকাকে ধর্ষণ!
পাকিস্তানিদের ৪৮ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দিল ভারত
'আধুনিক একটি গাড়িও উদ্ধারকাজে ব্যবহার করতে পারিনি'
গর্ভবতী স্ত্রী নামতে পারেননি, তাই নামেননি স্বামীও
ভারতে মধ্য আকাশে ২ বিমানের সংঘর্ষ
আইপিএলের প্রথম পর্বের সূচি প্রকাশ
ভারত-পাকিস্তানকে যা বলল জাতিসংঘ
জার্মান সাংবাদিকদের ওপর রোহিঙ্গাদের হামলা
সাঈদীর ছেলে মাসুদ সাঈদী কারাগারে
'আক্রমণ করলে প্রত্যুত্তরে জন্য প্রস্তুত রয়েছে পাকিস্তানও'
চকবাজারে অগ্নিকাণ্ডে স্বজনদের আহাজারি
চকবাজারে ফের আগুন আতঙ্ক
‘আত্মঘাতি বোমা হামলাকারী পাকিস্তানের’
‘এমএ পাস’ ওসি দিচ্ছেন এসএসসি পরীক্ষা
বাংলাদেশে বিনিয়োগ করতে চায় আমিরাতের দুই কোম্পানি
'রোহিঙ্গা নিপীড়নের কোনও প্রমাণ নেই'
চকবাজারে আগুনের ঘটনায় মমতার শোক
অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৭০টি মরদেহ উদ্ধার: আইজিপি

সব খবর