১৩ ডিসেম্বর , বুধবার, ২০১৭

শিরোনাম

> বিনোদন

 

নিউজ টোয়েন্টিফোর ডেস্ক

৪ ডিসেম্বর ,সোমবার, ২০১৭ ১৮:৩৪:০৩

বিচ্ছেদের নোটিশ : দেনমোহরের ৭ লাখ টাকা পাবেন অপু


বিচ্ছেদের নোটিশ : দেনমোহরের ৭ লাখ টাকা পাবেন অপু

ফাইল ছবি



'শাকিব-অপুর সংসার ভাঙছে'- বেশ কিছুদিন ধরে চলা এমন গুঞ্জনকে সত্যে পরিণত করে অপু বিশ্বাসকে তালাকের নোটিশ পাঠিয়েছেন চিত্রনায়ক শাকিব খান। আজ সোমবার সেই নোটিশ অপু বিশ্বাসের হাতে পৌঁছানোর কথা। শাকিব খানের আইনজীবী শেখ সিরাজুল ইসলাম এ তথ্য জানিয়েছেন। তবে তালাক কার্যকর হতে তিন মাস সময় লাগবে বলে জানান তিনি।

সিরাজুল ইসলাম বলেন, তালাক কার্যকর হলে বিয়ের দেনমোহর বাবদ সাত লাখ টাকা অপুকে পরিশোধ করবেন শাকিব খান। এ ছাড়া তিনি একমাত্র সন্তান আব্রাম খান জয়ের ভরণপোষণ করবেন।

জানা গেছে, তালাকের কারণ হিসেবে নোটিশে শাকিব উল্লেখ করেছেন, অপু তাঁর পছন্দের সীমার মধ্যে থাকেননি। সম্প্রতি তাঁদের সন্তানকে গৃহপরিচারিকার কাছে রেখে দেশের বাইরে যান অপু। এ ব্যাপারে অপুর কাছ থেকে তিনি কোনো সন্তোষজনক জবাব পাননি। এরপর শাকিব ধরে নিয়েছেন, অপু তাঁর সঙ্গে সংসার করতে চান না। আর এ কারণেই তালাকের সিদ্ধান্ত।

তালাকের বিষয়টি আজ সোমবার গণমাধ্যমে আসলেও এ ব্যাপারে শাকিব প্রক্রিয়া শুরু করেন গত মাসেই। আইনজীবী শেখ সিরাজুল ইসলাম জানান, গত ২২ নভেম্বর সন্ধ্যায় শাকিব খান তাঁর চেম্বারে গিয়ে অপুকে তালাক দেওয়ার ব্যাপারে আইনগত সহায়তা চান। এরপর শাকিব খানের পক্ষে আইনজীবী শেখ সিরাজুল ইসলামের অফিস থেকে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন মেয়র কার্যালয়, অপু বিশ্বাসের ঢাকার নিকেতনের বাসা এবং বগুড়ার ঠিকানায় মুসলিম শরীয়া আইনের ৭(১) ধারায় এই তালাকের নোটিশ পাঠানো হয়েছে। এ নিয়ে সিটি করপোরেশনের মধ্যস্থতায় সালিশের মাধ্যমে সমস্যা সমাধান হতে পারে। অন্যথায় নোটিশ পাঠানোর তারিখ থেকে তিন মাস পর তালাক কার্যকর হবে।

দীর্ঘদিন বিয়ে গোপন রাখার পর চলতি বছরের এপ্রিলে সন্তানসহ নিউজ টোয়েন্টিফোরের মুখোমুখি হন অপু বিশ্বাস। সেই অনুষ্ঠানেই শাকিবের সন্তানকে প্রথমবারের মতো দেখে দেশবাসী। সেদিন অপু বলেন, ‘আমি শাকিবের স্ত্রী, আমাদের ছেলে আছে।’

২০০৮ সালের ১৮ এপ্রিল শাকিব খান ও অপু বিশ্বাসের বিয়ে হয়। প্রায় নয় বছর পর বিয়ের সেই খবর জনসমক্ষে আসার পর দুজনের সম্পর্কের টানাপোড়েন তৈরি হয়। গণমাধ্যমে পাল্টা-পাল্টি অভিযোগ করতে থাকেন তারা দু'জন। এক পর্যায়ে শাকিব খান ও অপু বিশ্বাসের মুখ দেখাদেখি পর্যন্ত বন্ধ হয়ে যায়। শাকিব মাঝেমধ্যে সন্তান জয়কে দেখতে গেলেও কথা হতো না অপুর সঙ্গে। সম্প্রতি অপু বিশ্বাস হঠাৎ অসুস্থ হয়ে জয়কে বাসায় রেখে ভারতে চিকিৎসার জন্য গেলে শাকিবের সঙ্গে সম্পর্কের চূড়ান্ত অবনতি ঘটে। এবার অপুকে তালাকের নোটিশ পাঠালেন শাকিব খান।