২০ জানুয়ারী ,রবিবার, ২০১৯

শিরোনাম

> বাংলাদেশ

>> বিবিধ

 

নিউজ টোয়েন্টিফোর ডেস্ক

৬ ডিসেম্বর , বুধবার, ২০১৭ ১৬:৪১:৩৪

ফের বাস-ট্রাকের দখলে তেজগাঁও!


ফের বাস-ট্রাকের দখলে তেজগাঁও!

সংগৃহীত ছবি


২০১৫ সালের ডিসেম্বরের আগের ঘটনা। তেজগাঁও ট্রাক স্ট্যান্ড এলাকায় রাস্তার জায়গা দখল করে দাঁড়িয়ে থাকতো শত শত ট্রাক, কাভার্ড ও পিকআপ ভ্যান। ফলে রাস্তা দিয়ে যান চলাচল তো দূরের কথা পথচারীদের চলতেও কষ্ট হতো। কিন্তু ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র নির্বাচিত হয়ে সেই রাস্তা উচ্ছেদ করেন সদ্য প্রয়াত আনিসুল হক। ২০১৫ সালের ১০ ডিসেম্বর তেজগাঁও ট্রাক স্ট্যান্ড পার্কিংমুক্ত ঘোষণা করেন তিনি। যদিও একাজ করতে গিয়ে তাকে অনেক বাধা-বিপত্তি ও এক শ্রেণির প্রভাবশালীর তোপের মুখে পড়তে হয়। এমনকি তেজগাঁও ট্রাক স্ট্যান্ড এলাকার একটি ঘরে তাকে অবরুদ্ধও করে রাখা হয়। তবে জীবনের মায়া ত্যাগ করে এবং অন্যায়ের কাছে নতি স্বীকার না করে নগরবাসীর আস্থার প্রতিদান দিয়েছিলেন তিনি। একই সঙ্গে রাতারাতি জনপ্রিয় মেয়রের তকমা পেয়ে যান। অতচ মেয়র আনিসুল হকের মৃত্যুর এক সপ্তাহ পার হতে না হতেই সেই রাস্তা আবারও ট্রাক-ভ্যানের দখলে চলে যাওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

তবে শুধু তেজগাঁও ট্রাক স্ট্যান্ড নয়, অবৈধ দখল থেকে মুক্ত করা মহাখালী বাস টার্মিনালের সামনের রাস্তা ও তেজগাঁও শিল্প এলাকার সড়কগুলো দখল নিয়েছেন বাস-ট্রাক, পিকআপ-ভ্যান চালকরা।

রাত হলেই তারা সড়কে যত্রতত্র গাড়ি পার্কিং করছেন। এতে ভোগান্তিতে পড়ছেন রাতে চলাচলরত পথচারী ও চালকরা। মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১টায় তেজগাঁও এলাকায় সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, মূল সড়কের দুই পাশে কোথাও এক লাইন, কোথাও দুই লাইনে করে পার্কিং করা হয়েছে শত শত ট্রাক ও বাস। এতে ভোগান্তি হচ্ছে রাতে ওই পথ দিয়ে চলাচলকারী পথচারী ও যানবাহনের।   
বিশেষ করে মহাখালী থেকে মগবাজার ময়মনসিংহ রোডে ময়মনসিংহ, শেরপুর, জামালপুরগামী বাসগুলো মূল সড়কে দুই লাইনে দাঁড়িয়েছে। ফলে এই সড়ক দিয়ে কোনোভাবে একটি বাস কিংবা ট্রাক যাতায়াত করতে গিয়েও ঝামেলা পোহাতে হচ্ছে। এ কারণে গভীর রাতেও দীর্ঘ লাইন তৈরি হয়েছে। একই অবস্থা তেজগাঁও ট্রাক স্ট্যান্ডের সামনের সড়কে। শত শত ট্রাক সড়কের দুই পাশে দুই লাইনে দাঁড়িয়ে আছে।

এই দুই এলকার রাস্তা দিয়ে কোনো রকম একটি বাস কিংবা গাড়ি পার হতে পারলেও নাবিস্কো থেকে গুলশান লিংক রোডসহ শিল্পাঞ্চল এলাকার রাস্তাগুলোতে এমনভাবে গাড়ি রাখা হয়েছে যে রিকশা চলাচল তো দূরের কথা মানুষ চলাচলেরও কোনো জায়গা নেই। রাস্তায় অবৈধ এই পার্কিংয়ের কারণে ওই এলাকায় চুরি ও ছিনতাই বেড়েছে বলে জানিয়েছেন পথচারী ও পরিবহন শ্রমিকরা।  

নাম প্রকাশ না করার শর্তে তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানার টহলরত পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, এক লাইন, দুই লাইন করে অবৈধভাবে রাস্তা দখল করে রাখা হয়েছে বাস-ট্রাক। যার ফলে এলাকায় চুরি-ছিনতাইয়ের উৎপাত বেড়েছে। পাশাপাশি বেড়েছে মাদক ও দেহ ব্যবসায়ীদের তৎপড়তা। জনগণের নিরাপত্তা ও স্বার্থ রক্ষায় দ্রুত রাস্তাগুলোকে দখল মুক্ত রাখা দরকার বলে মনে করেন তিনি। এই পুলিশ কর্মকর্তার দাবি, রাস্তায় বাস-ট্রাক দাঁড়ানো না থাকলে এলাকায় চুরি-ছিনতাই হবে না। মানুষ নিরাপদে রাস্তা দিয়ে যাতায়াত করতে পারবে। সূত্র: বাংলা নিউজ


নির্বাচনকে ‘জায়েজ’ করার উৎসব হাস্যকর: রিজভী
‘ইভিএম’ নয়, ‘চোর মেশিন’
মেঘনায় ট্রলারডুবি: সকালের পর ‍দুপুরের মিলল লাশ
মেঘনায় ট্রলারডুবি: একজনের লাশ উদ্ধার
‘মাদকসেবি’ চালকের কারণে নিহত ২৮
মাদকসেবি বহনকারী মাইক্রোবাস খাদে, নিহত ৪
টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ইয়াবা ব্যবসায়ী নিহত
জাকির নায়েকের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত
বরফভেদী জাহাজ বানাল রাশিয়া
সালাহ’র জোড়া গোলে লিভারপুলের জয়
ভূমধ্যসাগরে জাহাজডুবি, ১৭০ অভিবাসীর মৃত্যু
গাজীপুরে গ্রেপ্তার তিন ডাকাতের স্বীকারোক্তি
খাগড়াছড়িতে যুবককে গুলি করে হত্যা
ইসরাইলকে মাহাথিরের ‘চপেটাঘাত’
মেক্সিকোয় নিহত বেড়ে ৬৬
ভারতে সাজা শেষে দেশে ফিরল ২১ বাংলাদেশি
কুড়িয়ে পাওয়া আমড়া খেয়ে শিশুর মৃত্যু
সিরিয়ার আর হামলা করতে দেবে না রাশিয়া
এবার ভারতে গরুর জন্য শ্মশান
ছেলে সন্তানের মা হলেন টিউলিপ
নির্বাচনকে ‘জায়েজ’ করার উৎসব হাস্যকর: রিজভী
‘ইভিএম’ নয়, ‘চোর মেশিন’
মেঘনায় ট্রলারডুবি: সকালের পর ‍দুপুরের মিলল লাশ
মেঘনায় ট্রলারডুবি: একজনের লাশ উদ্ধার
‘মাদকসেবি’ চালকের কারণে নিহত ২৮
মাদকসেবি বহনকারী মাইক্রোবাস খাদে, নিহত ৪
টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ইয়াবা ব্যবসায়ী নিহত
জাকির নায়েকের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত
বরফভেদী জাহাজ বানাল রাশিয়া
সালাহ’র জোড়া গোলে লিভারপুলের জয়
ভূমধ্যসাগরে জাহাজডুবি, ১৭০ অভিবাসীর মৃত্যু
গাজীপুরে গ্রেপ্তার তিন ডাকাতের স্বীকারোক্তি
খাগড়াছড়িতে যুবককে গুলি করে হত্যা
ইসরাইলকে মাহাথিরের ‘চপেটাঘাত’
মেক্সিকোয় নিহত বেড়ে ৬৬
ভারতে সাজা শেষে দেশে ফিরল ২১ বাংলাদেশি
কুড়িয়ে পাওয়া আমড়া খেয়ে শিশুর মৃত্যু
সিরিয়ার আর হামলা করতে দেবে না রাশিয়া
এবার ভারতে গরুর জন্য শ্মশান
হ্যাকারদের হাতে ৭৭ কোটি ইমেইল!
অবতরণের সময় বিমান বিধ্বস্ত!
২৫ এর আগে বিয়ে না করলে শাস্তি!
বিয়ে করলেন সঙ্গীতশিল্পী সালমা
‘গরীবের ডাক্তার’ ডা. রাকিবুল ইসলাম লিটু আর নেই
‘‌সৌদিতে সংস্কার না হলে বিপ্লব ঘটবে’
মায়ের লাশ বাইসাইকেলে বেঁধে একা ছেলে!
প্রতিমন্ত্রী পলকের ঘোষণার ২৪ ঘণ্টায় চাঁদাবাজি বন্ধ
অস্ত্র কারখানার সন্ধান, স্বামী-স্ত্রীসহ আটক ৩
ছেলে সন্তানের মা হলেন টিউলিপ
বাসায় ফিরেছেন অভিনেত্রী অহনা
ইরান-রাশিয়া-চীনকে নিয়ে উদ্বেগে ট্র্রাম্প
বেতন কাঠামো প্রত্যাখ্যান, ফের বিক্ষোভে শ্রমিকরা
ব্রেক্সিট ভোট দিয়েছেন অন্তঃসত্ত্বা টিউলিপ
টিআইবির অভিযোগ লজ্জাকর: নূরুল হুদা
এরশাদের অবর্তমানে কে পাচ্ছেন দলের দায়িত্ব!
‘আমি ধর্ষণ মামলার মূল আসামি’
স্বামী পরিত্যক্তা নারীকে ধর্ষণ করল ৫ যুবক
ধনী বৃদ্ধির হারে বাংলাদেশ তৃতীয়!
'ওয়ার্নারের সঙ্গে আমার ‘ঝগড়া’ গুরুতর কিছু নয়'
চীনের ‘মহাপ্রাচীর’ ঠেকাবে হাইপারসনিকের হামলা

সব খবর