২৪ অক্টোবর , বুধবার, ২০১৮

শিরোনাম

> খেলাধুলা

>> টেনিস

 

নিউজ টোয়েন্টিফোর ডেস্ক

২২ ফেব্রুয়ারি ,বৃহস্পতিবার, ২০১৮ ১৮:১৪:১৭

সন্তান জন্মের পর মরতে বসেছিলেন সেরেনা! 


সন্তান জন্মের পর মরতে বসেছিলেন সেরেনা! 


টেনিস কোর্টে একের পর এক প্রতিদ্বন্দ্বীকে উড়িয়ে দেন তিনি। ভক্ত-সমর্থকেরা তাকে এভাবেই দেখতে অভ্যস্ত। কিন্তু  গেল বছরের সেপ্টেম্বরে কোর্টের বাইরে তাকে এমন এক লড়াইয়ের সম্মুখীন হতে হয়েছিল, যেখানে রীতিমতো মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে ফিরতে হয়েছে তাকে। এতক্ষণে হয়তো বুঝে নিয়েছেন এই তিনি আসলে কে। ঠিকই ধরেছেন, টেনিসের রানি সেরেনা উইলিয়ামস।

সম্প্রতি এক মার্কিন সংবাদমাধ্যমে মাস পাঁচেক আগে মেয়ে অ্যালেক্সিস অলিম্পিয়ার জন্ম নেওয়ার সময়কার অভিজ্ঞতার কথা তুলে ধরেছেন সেরেনা।  ২৩ গ্র্যান্ড স্ল্যামের মালকিন লিখেছেন, ‘‘অলিম্পিয়া জন্মের পর প্রায় মরেই যাচ্ছিলাম আমি। নেহাত ভাগ্যটা খুব ভাল ছিল। যদিও গর্ভাবস্থায় সে রকম কোনও সমস্যা হয়নি। আমার মেয়ে ইর্মাজেন্সি সি সেকশনে হয়। জন্ম নেওয়ার সময় ওর হৃৎস্পন্দনের গতি হঠাৎ কমে গিয়েছিল। এতে আমি খুব ভয় পেয়ে গিয়েছিলাম।’’ কিংবদন্তি মার্কিন টেনিস খেলোয়াড় আরো লিখেছেন, ‘‘অস্ত্রোপচারটাও ভালমতোই হয়েছিল। কিছু বোঝার আগেই দেখি অলিম্পিয়া আমার কোলে। এ রকম অসাধারণ অভিজ্ঞতা আমার আগে কখনও হয়নি। তবে মা হওয়ার পরের ছয় দিন চরম অনিশ্চয়তায় কেটেছে।’’  

কী সেই অনিশ্চয়তা সেটাও সেরেনা খোলাখুলি লিখেছেন, ‘‘সমস্যাটা শুরু হয় পালমোনারি এম্বোলিজম দিয়ে। এটা এমন একটা অবস্থা যেখানে ধমনীতে রক্ত জমাট বেঁধে যায়। আগেও আমার এই সমস্যা হয়েছে। তাই ভয়ে ভয়ে থাকতাম আবার না সমস্যাটা দেখা দেয়। তাই যখনই নিঃশ্বাস নিতে সমস্যা হতো, এক সেকেন্ডও দেরি না করে নার্সদের ডাক দিতাম।’’

পরবর্তীতে সমস্যাটা আরও গুরুতর রূপ নেয়। মার্কিন কৃষ্ণকলি লিখেছেন, ‘‘এর পরেই জটিল কিছু শারীরিক সমস্যা দেখা দেয়। আমার ভাগ্য ভাল সেগুলো কাটিয়ে উঠতে পেরেছি। প্রথমে ধমনীতে রক্ত জমাট বেঁধে যাওয়ার জন্য আমার প্রচণ্ড কাশি হচ্ছিল। তাতে অস্ত্রোপচারের সময় আমার শরীরের সেলাই করা অংশটা  উন্মুক্ত হয়ে যায়। ফের অস্ত্রোপচার করতে হয়। সেখানে চিকিৎকরা আবিষ্কার করেন আমার তলপেটে একটা বড় অংশে রক্ত জমাট বেঁধে আছে। চিকিৎসকরা এর পরে চেষ্টা করতে থাকেন যাতে জমাট বাঁধা রক্তটা আমার ফুসফুসে না পৌঁছায়। শেষ পর্যন্ত যখন আমি হাসপাতাল থেকে বাড়িতে ফিরলাম, তত দিনে মাতৃত্বের ছয় সপ্তাহ আমাকে বিছানাতেই কাটাতে হয়েছে।’’ এর আগে ২০১১ সালে একই সমস্যায় পড়েছিলেন সেরেনা। মিউনিখের একটি রেস্তোরাঁয় কাচ দিয়ে পা কেটে গেলে  পালমোনারি এম্বোলিজমে ভুগতে শুরু করেন তিনি।  সে সময় প্রায় এক বছর চিকিৎসা সেবা গ্রহণের পর সুস্থ হন তিনি।

৩৬ বছর বয়সী তারকা ধন্যবাদ দিয়েছেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে, ‘‘যেভাবে পেশাদারি দক্ষতায় হাসপাতালের সবাই সাহায্য করেছেন, সেটা না থাকলে আজ আমি এই জায়গায় থাকতাম  না।’’ পাশাপাশি  বিশ্বজুড়ে গর্ভবতী নারীদের মাঝে সচেতনতা গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়েছেন সেরেনা।

আপাতত মাতৃত্বের দায়িত্ব সামলানো শেষ। এখন নিজেকে ফিরে পাওয়ার পালা। সাবেক ওয়ার্ল্ড  নাম্বার ওয়ানকে আবারো স্বমহিমায় দেখতে মুখিযে আছেন তার ভক্তরাও । চলতি মাসের শুরুতে বড় বোন ভেনাসের সঙ্গে ফেড কাপে জুটি বেঁধেছিলেন সেরেনা।  যদিও নেদারল্যান্ডসের কাছে হেরে যান দুই সহোদরা। এই ধাক্কা সামলে নব উদ্দীপনায় কোর্টে ফেরার লড়াইয়ে সেরেনা কত দ্রুত মানিয়ে নিতে পারেন, এখন সেটাই দেখার বিষয়। 

সূত্র: দ্য গার্ডিয়ান


সিলেটে ঐক্যফ্রন্ট নেতাদের মাজার জিয়ারত
‘মেয়েদের দেহ স্পর্শ দোষের কিছু না’
রংপুরে দুই বাসের সংঘর্ষ, নিহত ২
‘প্রধানমন্ত্রীর ১০০ বছরের প্ল্যান’
বাবরী মসজিদ ইস্যুতে ওয়াইসির হুঁশিয়ারি
খাসোগির ছেলের সঙ্গে সৌদি বাদশাহ ও যুবরাজের সাক্ষাৎ
পাঁচ ম্যাচ পর রিয়ালের জয়
ছেলেকে বেড়াতে পাঠিয়ে পুত্রবধূকে ধর্ষণ!
ডা. জাফরুল্লাহর গণস্বাস্থ্য ফার্মাসিউটিক্যালস সিলগালা
জর্ডানকে ভয় দেখাচ্ছে ইসরাইল!
নারায়ণগঞ্জে গৃহবধূকে গণধর্ষণ
লাশ পাওয়া গেছে খাসোগির!
ভবনের ছাদে মিলল যুবকের লাশ
কেক কেটে ডেইলি সানের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন শুরু
‘রাজনীতি নয়, ব্যক্তিগত কারণে মইনুল গ্রেপ্তার’
রণবীরের আগেও পাঁচটি প্রেম করে দীপিকা?
‘রাজনৈতিক নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তার অনাকাঙ্ক্ষিত‘
মাদারীপুরে জেএমবির সামরিক কমান্ডার গ্রেপ্তার
যুক্তরাষ্ট্রে ভয়াবহ আগুন, ধসে পড়ল ভবন
যৌন হেনস্তা নিয়ে মুখোমুখি রাখি-তনুশ্রী
সিলেটে ঐক্যফ্রন্ট নেতাদের মাজার জিয়ারত
‘মেয়েদের দেহ স্পর্শ দোষের কিছু না’
রংপুরে দুই বাসের সংঘর্ষ, নিহত ২
‘প্রধানমন্ত্রীর ১০০ বছরের প্ল্যান’
বাবরী মসজিদ ইস্যুতে ওয়াইসির হুঁশিয়ারি
খাসোগির ছেলের সঙ্গে সৌদি বাদশাহ ও যুবরাজের সাক্ষাৎ
পাঁচ ম্যাচ পর রিয়ালের জয়
ছেলেকে বেড়াতে পাঠিয়ে পুত্রবধূকে ধর্ষণ!
ডা. জাফরুল্লাহর গণস্বাস্থ্য ফার্মাসিউটিক্যালস সিলগালা
'মাসুদা ভাট্টি আমার জন্য ছুরি শানাতে ব্যস্ত ছিল'
জর্ডানকে ভয় দেখাচ্ছে ইসরাইল!
নারায়ণগঞ্জে গৃহবধূকে গণধর্ষণ
পলাশে ২০০ পিস ইয়াবাসহ মাদক সম্রাজ্ঞী আটক
লাশ পাওয়া গেছে খাসোগির!
ভবনের ছাদে মিলল যুবকের লাশ
সিডনিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শোক দিবস পালন
কেক কেটে ডেইলি সানের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন শুরু
‘রাজনীতি নয়, ব্যক্তিগত কারণে মইনুল গ্রেপ্তার’
রণবীরের আগেও পাঁচটি প্রেম করে দীপিকা?
বিয়ের জন্য মদ্যপান ছেড়েছেন কপিল
ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়লেই পরমানু হামলা, পুতিনের হুঁশিয়ারি
সালমান ইন, সালমান আউট!
খাসোগির দেহের টুকরো সৌদি যায় যেভাবে
মাসুদা ভাট্টি ভীষণরকম চরিত্রহীন: তসলিমা নাসরিন
বিশ্বের সবচেয়ে দীর্ঘতম সমুদ্র সেতু
অবশেষে খাসোগি হত্যার কথা স্বীকার সৌদির
টেলিভিশনে খবর পড়লেন চঞ্চল-জয়া
এস-৩০০-এর ভয়ে সিরিয়ায় যায় না ইসরাইল
ডা. জাফরুল্লাহর গণস্বাস্থ্য ফার্মাসিউটিক্যালস সিলগালা
লাশ পাওয়া গেছে খাসোগির!
যৌতুক দাবি, বরের মাথা ন্যাড়া করল গ্রামবাসী!
মহানবী (স.) এর রওজা জিয়ারত করেছেন প্রধানমন্ত্রী
মইনুলের গ্রেপ্তার উদ্বেগজনক: ড. কামাল
‘শীঘ্রই চীন-রাশিয়ার সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের যুদ্ধ’
বিনিয়োগ বাড়াতে সৌদির প্রতি প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান
চার বছর ধরে বোনকে ধর্ষণ করল দুই ভাই
জেলেদের হাতে পুলিশ আটক!
শারীরিক সম্পর্কে রাজি না হওয়ায়...
সৌদির সঙ্গে হাজার কোটি ডলারের অস্ত্রচুক্তি বাতিল!
'ক' ইউনিটে ফেল করা ছাত্র যেভাবে 'ঘ' ইউনিটে প্রথম

সব খবর