১৯ ফেব্রুয়ারি ,মঙ্গলবার, ২০১৯

শিরোনাম

> প্রবাস

 

এনআরবি নিউজ, নিউইয়র্ক থেকে

২ জুন ,শনিবার, ২০১৮ ১৫:০৩:৫৮

আত্মোৎসর্গকারী ৪ বাংলাদেশি শান্তিরক্ষীকে জাতিসংঘের সম্মাননা প্রদান


আত্মোৎসর্গকারী ৪ বাংলাদেশি শান্তিরক্ষীকে জাতিসংঘের সম্মাননা প্রদান

জাতিসংঘ মহাসচিবের হাত থেকে দ্যাগ হ্যামারশোল্ড মেডেল গ্রহণ করছেন রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন [ছবি: এনআরবি নিউজ]


শান্তিরক্ষা মিশনে দায়িত্বরত বাংলাদেশের ৪ শান্তিরক্ষীসহ বিশ্বের ৩৭টি দেশের ১২৮ জন আত্মোৎসর্গকারী শান্তিরক্ষী কর্মীকে সর্বোচ্চ ত্যাগের জন্য ‘দ্যাগ হ্যামারশোল্ড মেডেল’ প্রদান করলো জাতিসংঘ। 

কাল (১ জুন) জাতিসংঘ সদর দপ্তরে আন্তর্জাতিক শান্তিরক্ষী দিবসে আয়োজিত এক শোকাচ্ছন্ন অনুষ্ঠানে বাংলাদেশসহ ৩৭টি দেশের স্থায়ী প্রতিনিধিদের হাতে এই মেডেল তুলে দেন জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস।

বাংলাদেশের পক্ষ থেকে এই মেডেল গ্রহণ করেন জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন। 

আত্মোৎসর্গকারী ৪ বাংলাদেশি শান্তিরক্ষী হলেন- ২০১৭ সালের ৫ জানুয়ারি মধ্য আফ্রিকান প্রজাতন্ত্র মিশনে কর্তব্যরত অবস্থায় নিহত বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সৈনিক মো. আব্দুর রহিম, ২০১৭ সালের ২৪ সেপ্টেম্বর মালি মিশনে কর্তব্যরত অবস্থায় নিহত সিপাহী মো. মনোয়ার হোসেন, ল্যান্স কর্পোরাল মো. জাকিরুল আলম সরকার ও সার্জেন্ট মো. আলতাফ হোসেন। 

বাংলাদেশ মিশনের প্রতিরক্ষা বিষয়ক উপদেষ্টা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল খান ফিরোজ আহমেদসহ জাতিসংঘে কর্মরত বাংলাদেশ সেনা, নৌ, বিমান ও পুলিশ বাহিনীর কর্মকর্তাগণ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

জাতিসংঘ মহাসচিব জীবনদানকারী সামরিক ও বেসামরিক শান্তিরক্ষী কর্মীর বিদেহী আত্মার স্মরণে জাতিসংঘ সদর দপ্তরের উত্তর লেনে অবস্থিত পিসকিপিং মেমোরিয়াল সাইটে পুস্পস্তবক অর্পণ করেন। 

জাতিসংঘ নিযুক্ত সদস্য রাষ্ট্রসমূহের স্থায়ী প্রতিনিধিগণসহ বিভিন্ন পর্যায়ের কূটনৈতিক, সামরিক ও পুলিশ বাহিনীর কর্মকর্তা এবং জাতিসংঘের কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গ সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

সমাবেত সুধীমণ্ডলীর উদ্দেশ্যে অ্যান্তোনিও গুতেরেস বলেন, ‘আজ থেকে ৭০ বছর আগে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা কার্যক্রমের প্রথম মিশন থেকে শুরু করে এ পর্যন্ত ৩৭০০ জনেরও বেশি সামরিক, বেসামরিক ও পুলিশ কর্তব্যরত অবস্থায় নিহত হয়েছেন। এ সকল শান্তিরক্ষীগণ অন্যদের জীবন রক্ষা করার জন্য নিজেদের জীবন উৎসর্গ করেছেন। আমরা সারা জীবন তাঁদের কাছে ঋণী এবং তাঁরা সবসময়ই আমাদের অন্তরে গভীর মমতায় প্রোথিত থাকবেন।’

কর্মক্ষেত্রে শান্তিরক্ষীদের নিরাপত্তা ও সুরক্ষা নিশ্চিত করার ক্ষেত্রে জাতিসংঘের সাম্প্রতিক পদক্ষেপের কথা উল্লেখ করে জাতিসংঘ মহাসচিব বলেন, ‘আমি জাতিসংঘের সকল কর্মীদের বিশেষ করে সম্মুখ সারিতে নিয়োজিত সৈনিকদের সুরক্ষার উন্নয়নে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।’

তিনি বিশ্ব শান্তির জন্য জীবনদানকারী এ সকল শান্তিরক্ষী কর্মীদের সর্বোচ্চ অবদান গভীর শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করেন। এর আগে আত্মদানকারী শান্তিরক্ষীদের প্রতি সম্মান জানিয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

উল্লেখ্য, জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে বাংলাদেশ অন্যতম বৃহৎ শান্তিরক্ষী প্রেরণকারী দেশ। ১৯৮৯ সাল থেকে এ পর্যন্ত শান্তিরক্ষা মিশনে কর্তব্যরত অবস্থায় বাংলাদেশের ১৪৩জন শান্তিরক্ষী মৃত্যুবরণ করেছেন।

অরিন/নিউজ টোয়েন্টিফোর
 


কালীগঞ্জের রেল বস্তিতে আগুন, ৮ বাড়ি পুড়ে ছাই
কুয়েতে পিকআপ ভ্যান চাপায় বাংলাদেশি নিহত
কুষ্টিয়ায় ‘বন্দকযুদ্ধে’ ‘ডাকাত ও ছিনতাইকারী’ নিহত
ময়লার স্তূপে ২২ ‌‘শিশুর মরদেহ’
যে কারণে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী পিতা-পুত্র ও পুত্রবধূ
পিকনিকের বাস উল্টে খাদে, শিক্ষার্থী নিহত
বাস থেকে পালাতে গিয়ে ধরা ইয়াবা কারবারি
দুই মর্মান্তিক মৃত্যু
সাবেক মন্ত্রী লতিফ সিদ্দিকীর বিরুদ্ধে দুদকের অভিযোগপত্র
মোটরসাইকেল মহাসড়কে উঠতেই বাসচাপা, নিহত ৩
টাকার ব্যাগ ফেরৎ দিলেন পুলিশ কনস্টেবল
অস্ত্রসহ শীর্ষ জেএমবি সদস্য গ্রেপ্তার
মসজিদ কমিটি নিয়ে গোলাগুলি, দুই কাউন্সিলরসহ গ্রেপ্তার ২২
‘মার্কিনীরা আপনাদের রক্ষা করবে না’
সৌদি যুবরাজকে নিয়ে গাড়ি চালালেন ইমরান খান
সুন্দরবনে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ আছাবুর বাহিনীর সদস্য নিহত
ওয়ানডেকে বিদায় জানাচ্ছেন গেইল
মসজিদ কমিটি নিয়ে গোলাগুলি, আহত ১০
‘ইরানকে হাতছাড়া করে কষ্ট পাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র’
কাশ্মীরে জঙ্গি হামলায় ৪ ভারতীয় সেনা নিহত
কালীগঞ্জের রেল বস্তিতে আগুন, ৮ বাড়ি পুড়ে ছাই
কুয়েতে পিকআপ ভ্যান চাপায় বাংলাদেশি নিহত
কুষ্টিয়ায় ‘বন্দকযুদ্ধে’ ‘ডাকাত ও ছিনতাইকারী’ নিহত
ময়লার স্তূপে ২২ ‌‘শিশুর মরদেহ’
যে কারণে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী পিতা-পুত্র ও পুত্রবধূ
পিকনিকের বাস উল্টে খাদে, শিক্ষার্থী নিহত
বাস থেকে পালাতে গিয়ে ধরা ইয়াবা কারবারি
দুই মর্মান্তিক মৃত্যু
সাবেক মন্ত্রী লতিফ সিদ্দিকীর বিরুদ্ধে দুদকের অভিযোগপত্র
মোটরসাইকেল মহাসড়কে উঠতেই বাসচাপা, নিহত ৩
টাকার ব্যাগ ফেরৎ দিলেন পুলিশ কনস্টেবল
অস্ত্রসহ শীর্ষ জেএমবি সদস্য গ্রেপ্তার
মসজিদ কমিটি নিয়ে গোলাগুলি, দুই কাউন্সিলরসহ গ্রেপ্তার ২২
‘মার্কিনীরা আপনাদের রক্ষা করবে না’
সৌদি যুবরাজকে নিয়ে গাড়ি চালালেন ইমরান খান
সুন্দরবনে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ আছাবুর বাহিনীর সদস্য নিহত
ওয়ানডেকে বিদায় জানাচ্ছেন গেইল
মসজিদ কমিটি নিয়ে গোলাগুলি, আহত ১০
‘ইরানকে হাতছাড়া করে কষ্ট পাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র’
কাশ্মীরে জঙ্গি হামলায় ৪ ভারতীয় সেনা নিহত
ভালোবাসা দিবসে বিয়ে করলেন প্রীতম-মিথিলা
‘শেখ হাসিনার কিছুই করার নেই’
প্রেমের টানে গাজীপুরে মার্কিন তরুণ, ধর্মান্তরিত হয়ে বিয়ে
হনুমানের লাশ কাঁধে নিয়ে মনি পাগলের আহাজারি
ডাকাতির প্রস্তুতিকালে আট ডাকাত গ্রেপ্তার
সুবর্ণচরে নারী পুলিশের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার
রাজনীতি থেকে অবসর নেয়ার পর গ্রামে চলে যাব: প্রধানমন্ত্রী
এমপি ও নায়ক ফারুক আহত
'কাশ্মীরের হামলার ঘটনায় পাকিস্তান দায়ী'
প্রশ্নপত্রে ভুল, বুধবারের এসএসসি পরীক্ষা পেছাল
যশোরে সড়ক দুর্ঘটনায় আ.লীগ নেতার মৃত্যু
মালয়েশিয়ায় গুলিতে ২ বাংলাদেশি নিহত
আবাসিক হোটেল থেকে ৩১ তরুণ-তরুণী আটক
ঘরেই তৈরি করতে পারবেন 'চিকেন গ্রিল'
হাতীবান্ধায় স্কুলছাত্রীকে গণধর্ষণ 
দৌলতদিয়ায় যৌনকর্মীকে গলাকেটে হত্যা
'রোহিঙ্গা নিপীড়নের কোনও প্রমাণ নেই'
শপথ নিলেন সৈয়দ আশরাফের বোন
ইজতেমার মাঠে চার মুসল্লির মৃত্যু
উপজেলা নির্বাচনে বিএনপি অংশ না নেয়া হতাশাজনক: সিইসি 

সব খবর