১৩ নভেম্বর ,মঙ্গলবার, ২০১৮

শিরোনাম

> খেলাধুলা

>> ফুটবল বিশ্বকাপ

 

নিউজ টোয়েন্টিফোর ডেস্ক

২৯ জুন ,শুক্রবার, ২০১৮ ০৯:২৭:২৫

রাশিয়ায় গিয়ে ফুটবল ফ্যানরা যা খাচ্ছেন


রাশিয়ায় গিয়ে ফুটবল ফ্যানরা যা খাচ্ছেন

রাশিয়ান খাবার।


বিশ্বকাপ উপলক্ষে রাশিয়ার জুড়ে ছড়িয়ে পড়েছেন বিভিন্ন দেশ থেকে আসা ফুটবল ভক্তরা। ভাষা সমস্যা তো আছেই। সেই সঙ্গে তাদের চেখে দেখতে হচ্ছে ভিন্ন স্বাদের সব খাবার।

রাশিয়ায় গিয়ে আপনি কী খেতে পারেন? বিবিসির রুশ বিভাগ পরিচয় করিয়ে দিচ্ছে কিুছু রুশী খাবারের সঙ্গে। কোনো দিন রাশিয়ায় গেলে এটা আপনারও কাজে লাগতে পারে। খবর বিবিসির

১. কেফির:
ফুটবলের গোল দেখার আগে আপনার দিনটা শুরু করুন এই রুশী ঘোল দিয়ে। প্রতি গ্লাস কেফিরে রয়েছে প্রচুর ভিটামিন আর পুষ্টিকারক। নোনা ভাব একটু বেশি মনে হলে খেতে পারেন রিয়াঝেংকা। সেটাও ঘোলের কাছাকাছি ড্রিংক।

দাম: ৩০ রুবল (৫০ সেন্ট)

কোথায় পাবেন: সুপার মার্কেটের চিলার সেকশনে দুধেরে বোতলের কাছাকাছি।

২. পেলমেনি:
পেলমেনি হচ্ছে খাঁটি রুশী পিঠা। অনেকটা পুলি পিঠার মতো। সুপার মার্কেটে এটা ফ্রোজেন কিংবা ফ্রেশ দু'ধরনেই পাওয়া যায়। কিনে ফুটন্ত পানিতে আট মিনিট সেদ্ধ করুন। ই পিঠার ভেতরে থাকে মাংস (চেক করে নিন কিসের মাংস), মাশরুম কিংবা পনির। মাখন, সাওয়ার ক্রিম কিংবা মেওনেইজ দিয়ে পরিবেশন করুন।

দাম: প্রতি কেজি ২০০ রুবল (৩ ডলার)

কোথায় পাবেন: সুপার মার্কেটের চিলার সেকশনে পাবেন ফ্রেশ পেলমেনি। ফ্রোজেন সেকশনেও এটা পাওয়া যায়।

৩. গ্রেচকা:
বাংলাদেশে যাকে 'বাজরা' নামে ডাকা হয় গ্রেচকা আসলে তাই। ইংরেজি নাম 'বাকহুইট'। স্বাস্থ্যগুনের জন্য রুশরা একে 'সুপারফুড' নামে ডাকেন। মিষ্টি কিংবা ঝাল দু'ভাবেই এই গ্রেচকা রান্না করা যায়।দুধ আর চিনি দিয়ে সেদ্ধ করে সকালে নাস্তা হিসেবে খেতে পারেন। অথবা নোনা জলে সেদ্ধ করে মাখন মিশিয়ে দুপুরের খাবারে সাইড ডিশ হিসেবেও গ্রেচকা পরিবেশন করা যায়।

দাম: প্রতি কেজি ৬০ রুবল (১ ডলার)।

কোথায় পাবেন: সুপার মার্কেটের তৈরি খাবার সেকশনে। অথবা সেখানেআটা ময়দা পাওয়া যায় সেখানে গ্রেচকা পাবেন।

৪. সব্জীর আচার, সোলেনিয়া:
এই আচার ছাড়া কোন রুশী খাবার সম্পুর্ণ হয় না। এগুলো কাঁচের জারে পাওয়া যায়। বরফ ঠান্ডা ভদকার সাথে নোনা শসা আর কালো বোরোডিনো রুটি খেতে পারেন। মাছ-মাংসের সাথে খেতে পারেন বাঁধাকপির আচার। রুশরা বলেন, হ্যাংওভার কাটাতে এক গ্লাস আচারের নোনা জলের জুড়ি নেই।

দাম: প্রতি কেজি ১০০ রুবল (১.৬০ ডলার)

৫. সুশ্কি, বারানকিআর বুবলিকি:
এগুলো হলে রুশী রুটি -- বে‌গ্‌ল এবং প্রেটজেল। সুশ্কি হচ্ছে রিং-এর মতো দেখতে ছোট, শক্ত বিস্কুট। এগুলো প্লেন হতে পারে, মিস্টি এবং নোনা -- দু'ধরনেরই হতে পারে। ভ্যানিলা ফ্লেভার্ড হতে পারে। সুশ্কির ওপরে কালজিরা কিংবা পোস্তদানা দেয়া থাকতে পারে। বারান্‌কি খেতে সুশ্কিরা তুলনায় নরম। কিন্তু বুবলিকি সবচেয়ে বড় এবং সবচেয়ে নরম।

দাম: ২০০ গ্রাম প্যাকেটের দাম ৩০ রুবল (৫০ সেন্ট)।

কোথায় পাবেন: দোকানের যে অংশে রুটি এবং কেক বিক্রি হয়।

৬. গাযিরোভকা:
আপনার খাওয়াদাওয়ার গুরুত্বপূর্ণ অংশ জুড়ে থাকবে এসব রুশী ড্রিংক। এগুলোর বেশির ভাগই তৈরি হয়েছিল সোভিয়েত আমলে। তারা মার্কিন কোকাকোলার সাথে পাল্লা দিতে চাইছিল।
'বাইকাল' দেখতে কোকাকোলার মতই। কিন্তু এটি তৈরি হয়েছে নানা ধরনের লতাপাতা দিয়ে, যা আপনার স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী। তার্খুন দেখতে উজ্জ্বল সবুজ। এটি ট্যারাগন দিয়ে তৈরি।
সিট্রো দেখতে উজ্জ্বল হলুদ -- লেবু এবং ভ্যানিলা দিয়ে তৈরি। সায়ানির রং সবুজাভ সোনালি। এটিও লেবু আর নানা লতাপাতা থেকে তৈরি।

দাম: বোতল প্রতি ৪০ রুবল (০.৬ ডলার)।

কোথায় পাবেন: চিল্ড ড্রিংক সেকশনে, কিংবা অ্যালকোহলমুক্ত ড্রিংকসের তাকে।

৭. পিচচিয়ে মালাকো:
রুশ ভাষায় এর মানে হলো 'পাখির দুধ'। এটা খাবারের পর ডেজার্ট হিসেবে খুবই জনপ্রিয়। মার্শমেলোর ওপর চকোলেট দিয়ে তৈরি। ১৯৭০-এর দশকে এই মিষ্টি তৈরি হয়েছিল।

দাম: প্রতি পাঁচশো গ্রাম ৩০০ রুবল।

কোথায় পাবেন: সুপার মার্কেটের সুইট সেকশনে।

8. গ্ল্যাযিরোভানি সিরক:
আরেকটা জনপ্রিয় মিস্টি হচ্ছে গ্ল্যাযিরোভানি সিরক। পনীরের ওপর চকোলেটের আস্তুর। খেতে অনেকটা চিক কেকের মত।

দাম: প্রতি পিস ২০-৪০ রুবল (৩০-৬০ সেন্ট)

কোথায় পাবেন: যেখানে ডেইরি প্রডাক্ট থাকে।

৯. কুলিউভকা ভি সাখারে:
টক-মিস্টি এই খাবার ফুটবল ম্যাচের দর্শকদের অপরিহার্য সঙ্গী।

দাম: ৭০ রুবল (১ ডলার), প্রতি ১০০ গ্রাম।

কোথায় পাবেন: সুইট সেকশনে।

১০. প্রিয়ানিকি:
আপনি দিন শেষ করবেন এক কাপ চা আর এই রুশী মিস্টি জিঞ্জারব্রেড কেক দিয়ে। মধু দিয়ে তৈরি এই কেক কিনে অনেক ফুটবল ফ্যান স্যুভেনির হিসেবে বাড়িতে নিয়ে যাবেন। কেনার সময় লক্ষ্য করুন সেগুলো টুলা-তে তৈরি কিনা। কারণ সেগুলোই স্বাদে-গন্ধ্যে সেরা।

দাম: প্রতি কেজি ১৮০ রুবল (২.৮০ ডলার)

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)


হামাসের ক্ষেপণাস্ত্রে ইসরাইলের সেনাবাস ভস্মীভূত
'মহাজোট থেকে জাতীয় পার্টি নির্বাচনে অংশ গ্রহণ'
'ক্ষমতার জোরে' অন্যের কৃষি জমি থেকে বালু উত্তোলনের অভিযোগ
আ.লীগ বিএনপির প্রার্থী যাচাই-বাছাই হবে যেভাবে
'বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় এমপি হলে দুঃখ লাগে'
তাইজুলের ৫ উইকেট, বাংলাদেশ এগিয়ে ২১৮ রানে
অবশেষে শুরু হচ্ছে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন
৫৪ দিন পর ফিরলেন নিখোঁজ ১৫ জেলে
বুধবার ইসি কার্যালয়ে যাবে ঐক্যফ্রন্ট
স্বতন্ত্র প্রার্থী হচ্ছেন ইমরান এইচ সরকার
রাস্তায় ফেলে যাওয়া সেই বৃদ্ধাকে মারা গেছেন 
'নির্বাচন আর পেছানোর সুযোগ নেই'
ঐক্যফ্রন্টের জরুরি বৈঠক চলছে
অ্যামনেস্টির পুরস্কার হারালেন সু চি
বিএনপির কাছে ১০০ আসন চাচ্ছেন শরিকরা
সাভারে 'বন্দুকযুদ্ধে' ডাকাত নিহত
নির্বাচন করতে রাজি নন ড. কামাল
 নৌপথ খনন প্রটোকল মন্ত্রিসভায় অনুমোদন
খালেদা জিয়ার প্রার্থীতা নিয়ে অনিশ্চয়তা
সেরা করদাতার সম্মাননা পেল ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপ
হামাসের ক্ষেপণাস্ত্রে ইসরাইলের সেনাবাস ভস্মীভূত
'মহাজোট থেকে জাতীয় পার্টি নির্বাচনে অংশ গ্রহণ'
খাসোগি হত্যায় ফেঁসে যাচ্ছেন যুবরাজ সালমান!
সুনামগঞ্জে অধ্যক্ষের অপসারণ দাবিতে এলাকাবাসীর প্রতিবাদ সভা
নির্বাচন নিয়ে খুলনা বিএনপি'র দাবি
'ক্ষমতার জোরে' অন্যের কৃষি জমি থেকে বালু উত্তোলনের অভিযোগ
প্রচার-প্রচারণা বন্ধ রাখতে ইসির নির্দেশ
নিউইয়র্কে শামস আল মমীনের একক কবিতা সন্ধ্যা
আ.লীগ বিএনপির প্রার্থী যাচাই-বাছাই হবে যেভাবে
'বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় এমপি হলে দুঃখ লাগে'
তাইজুলের ৫ উইকেট, বাংলাদেশ এগিয়ে ২১৮ রানে
চাঁপাইনবাবগঞ্জে সম্প্রীতি বাংলাদেশের সমাবেশ
হুমায়ূন আহমদের জন্মদিনে নুহাশ পল্লীতে কেক কাটলেন শাওন
প্রতিবন্ধী কিশোরীকে চকলেটের লোভ দেখিয়ে ধর্ষণ 
অবশেষে শুরু হচ্ছে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন
৫৪ দিন পর ফিরলেন নিখোঁজ ১৫ জেলে
বুধবার ইসি কার্যালয়ে যাবে ঐক্যফ্রন্ট
স্বতন্ত্র প্রার্থী হচ্ছেন ইমরান এইচ সরকার
রাস্তায় ফেলে যাওয়া সেই বৃদ্ধাকে মারা গেছেন 
'নির্বাচন আর পেছানোর সুযোগ নেই'
ইতালিতে সন্তান হলে জমি পুরস্কার
নির্বাচন করবেন হিরো আলম!
বিএনপিকে চাঙ্গা করতে আসছেন জোবাইদা
৩০ ডিসেম্বর নির্বাচন ‘উদ্দেশ্যপ্রণোদিত’: রব
মাশরাফির নির্বাচন নিয়ে যা বললেন তার বাবা
নিজের মেয়েকে ধর্ষণের দায়ে পিতা গ্রেপ্তার
নির্বাচনের তারিখ চূড়ান্ত করেছে ইসি!
জিম্বাবুয়েতে দুই বাসের সংঘর্ষে নিহত ৪৭
আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র কিনবেন মাশরাফি
সংসদ নির্বাচনে যাচ্ছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট
মৃত্যুর আগে যে কথা বলেন খাসোগি
চাঁদা চাওয়া সেই এসআই বরখাস্ত
খাসোগি হত্যাকাণ্ডে ইসরায়েলি প্রযুক্তি
২০ দল বেড়ে হলো ২৩ দলীয় জোট
বিএনপির কাছে ১০০ আসন চাচ্ছেন শরিকরা
ট্রাম্পের হার
একসঙ্গে দুই বোনের আত্মহত্যা!
‘আ.লীগে যুক্ত হবে যুক্তফ্রন্ট’
বাবাকে পেছন থেকে ঘাড়ে কোপ দিল ছেলে, অতঃপর...
মনোনয়নপত্র কিনলেন অভিনেতা ডিপজল

সব খবর