শেষ ওভারের তিন বলে তিন ছক্কা, ফাইনালে গুজরাট 
শেষ ওভারের তিন বলে তিন ছক্কা, ফাইনালে গুজরাট 

শেষ ওভারের তিন বলে তিন ছক্কা, ফাইনালে গুজরাট 

অনলাইন ডেস্ক

জস বাটলারের ৮৯ রানের ইনিংসে ভর করে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) প্রথম কোয়ালিফায়ারে ফাইনালে পা রেখেছে গুজরাট টাইটানস। শেষ ওভারের রোমাঞ্চে প্রথম তিন বলে টানা ছক্কা হাঁকিয়ে রাজস্থান রয়্যালসকে উড়িয়ে দিল ডেভিড মিলার।

আইপিএলে মঙ্গলবার (২৪ মে) ১৮৯ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ১৯.৩ ওভারে মাত্র ৩ উইকেট হারিয়ে গুজরাট সংগ্রহ করে ১৯১ রান। ৩৮ বল মোকাবিলায় ৩ চার ও ৫ ছক্কার মারে ৬৮ রানে অপরাজিত থাকেন মিলার।

অন্যদিকে ২৭ বলে ৫ চারের সাহায্যে ৪০ রান করে অপরাজিত থাকেন হার্দিক পান্ডিয়া। রাজস্থানের হয়ে একটি করে উইকেট শিকার করেন ট্রেন্ট বোল্ট ও ওবেদ ম্যাককয়।

এর আগে রান তাড়ায় নেমে শুরুতেই হোঁচট খায় গুজরাট। ইনিংস শুরুর দ্বিতীয় বলে ট্রেন্ট বোল্টের শিকার হয়ে শূন্য রানে মাঠ ছাড়েন ওপেনার ঋদ্ধিমান সাহা। এরপর ক্রিজে এসে শুভমান গিলের সঙ্গে ৭২ রানের জুটি গড়েন ম্যাথু ওয়েড। দুজনে সমান ৩৫ রানের ইনিংস খেলেন। ২১ বল মোকাবিলায় গিল তার ইনিংসটি সাজান ৫ চার ও এক ছক্কার মারে। অন্যদিকে ওয়েড ৩০ বল মোকাবিলায় ৬টি চার হাঁকান। এরপর বাকি দায়িত্বটা সামলান হার্দিক পান্ডিয়া ও ডেভিড মিলার।

এর আগে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে গুজরাট টাইটান্সের বিপক্ষে জস বাটলার জাদুতে নির্ধারিত ওভার শেষে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৮৮ রান সংগ্রহ করে রাজস্থান। ওপেনিংয়ে নেমে শেষ পর্যন্ত ক্রিজে ছিলেন ইংলিশ ব্যাটার বাটলার। ৫৬ বল মোকাবিলায় তিনি ৮৯ রানের ইনিংস খেলে রান আউট হন ১৯তম ওভারের পঞ্চম বলে। ইনিংসে ১২ চারের সঙ্গে তিনি হাঁকিয়েছেন ২টি ছক্কা। আর তাতেই প্রথম কোয়ালিফায়ারেই ফাইনালে যাওয়ার মতো স্কোর পেয়ে গেল রাজস্থান।

এর আগে কলকাতার ইডেন গার্ডেনে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা মন্থর ছিল রাজস্থান রয়্যালসের। ওপেনার যশস্বী জসওয়াল ৮ বল মোকাবিলায় সাজঘরে ফেরেন মাত্র ৩ রান করে। এরপর উইকেটে এসে ঝড়ো ব্যাটিংয়ে রানের গতি বাড়ান অধিনায়ক সানজু স্যামসন। ২৬ বল মোকাবিলায় তিনি করেন ৪৭ রান। তার ব্যাট থেকে ৫ চারের বিপরীতে আসে ৩টি ছক্কার মার। অন্যদিকে জস বাটলার যেন ছিল না তার চিরচেনা রূপে। তার মন্থর ব্যাটিং চলতে থাকে ইনিংসের ১৫তম ওভার পর্যন্ত।

শেষদিকে অবশ্য হাত খোলেন তিনি। তার আগে ২০ বলে সমান ২ চার ও ২ বাউন্ডারিতে ২৮ রানের ইনিংস খেলেন দেবদূত পাডিক্কেল। তিনি প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন হার্দিক পান্ডিয়ার করা ইনিংসের ১৫তম ওভারের প্রথম বলে বোল্ড হয়ে। এরপর ক্রিজে আসেন ক্যারিবীয় ব্যাটার হেটমায়ার। ৭ বল মোকাবিলা করলেও, এই হার্ড হিটারের ব্যাট থেকে আসে মাত্র ৪ রান। গুজরাটের বোলারদের মধ্যে একটি করে উইকেট শিকার করেছেন মোহাম্মদ শামি, যশ দয়াল, সাই কিশোর ও হার্দিক পান্ডিয়া।

news24bd.tv তৌহিদ