ঘুষের টাকাসহ কারখানা অধিদপ্তরের উপমহাপরিদর্শক আটক
ঘুষের টাকাসহ কারখানা অধিদপ্তরের উপমহাপরিদর্শক আটক

সংগৃহীত ছবি

ঘুষের টাকাসহ কারখানা অধিদপ্তরের উপমহাপরিদর্শক আটক

অনলাইন ডেস্ক

দিনাজপুর সমন্বিত দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) একটি টিম অভিযান চালিয়ে ঘুষের ৮০ হাজার টাকাসহ দিনাজপুর কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তর কার্যালয়ের উপমহাপরিদর্শক মো. মোস্তাফিজুর রহমানকে আটক করেছে।

বুধবার বিকেলে দিনাজপুর শহরের বালুয়াডাঙ্গায় তার অফিসে অভিযান চালিয়ে আটক করা হয়। অভিযানে নেতৃত্ব দেন সমন্বিত দুর্নীতি দমন কমিশনের উপ-পরিচালক আহসানুল কবির পলাশ।

তিনি জানান, ২৫ এপ্রিল চিরিরবন্দর উপজেলার আমবাড়ীতে অবস্থিত ইশান এগ্রো অ্যান্ড ফুডের সিনিয়র এক্সিকিউটিভ মো. রাশেদুজ্জামান রাসেল দিনাজপুর কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরে লাইসেন্স নবায়ন করতে যান।

তখন উপমহাপরিদর্শক মোস্তাফিজুর রহমান লাইসেন্স নবায়নের জন্য ৮০ হাজার টাকা ঘুষ দাবি করেন। তিনি ২৭ এপ্রিল রাশেদুজ্জামান রাসেলকে টাকা ও কাগজপত্রসহ আসতে বলেন।

উপ-পরিচালক আহসানুল কবির পলাশ আরও জানান, তিনি (রাশেদুজ্জামান) টাকা না দেওয়ায় মোস্তাফিজুর রহমান রাশেদুজ্জামান রাসেলকে ফোন করে জানান, মিলের ইশতিয়াক আহমেদ ও ম্যানেজার আশরাফুলের নামে মামলা প্রক্রিয়াধীন, সুতরাং মামলা থেকে রেহাই পেতে ২৩ মে টাকাসহ অফিসে আসতে বলেন।

২৩ মে সকালে মোস্তাফিজুর রহমানের কাছে রাশেদুজ্জামান রাসেল কাগজপত্র নিয়ে গেলে তার সাথে খারাপ ব্যবহার করে কাগজপত্র ফেরত দেন। পরে রাশেদুজ্জামান দিনাজপুর সমন্বিত জেলা দুদক কার্যালয়ে অভিযোগ করেন। বুধবার দুপুরে তিনি ৮০ হাজার ঘুষের টাকাসহ কাগজপত্র নিয়ে গেলে আমরা হাতেনাতে উপমহাপরিদর্শক মোস্তাফিজুর রহমানকে আটক করি। তার বিরুদ্ধে মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানান তিনি।

news24bd.tv/কামরুল