শিশুদের নিয়ে আর্ত-মানবতার সেবায় কাজ করে যাচ্ছে 'ভরসাস্থল'
শিশুদের নিয়ে আর্ত-মানবতার সেবায় কাজ করে যাচ্ছে 'ভরসাস্থল'

শিশুদের জন্য উন্নয়নমূলক কাজ করছে ভরসাস্থল

শিশুদের নিয়ে আর্ত-মানবতার সেবায় কাজ করে যাচ্ছে 'ভরসাস্থল'

নিজস্ব প্রতিবেদক

একঝাঁক তরুণ-তরুণী। সতেজ প্রাণ সবাই শিক্ষার্থী। কেউ স্কুলে, কেউ কলেজে, কেউ বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ছে, কেউবা পড়াশোনার গণ্ডি পেরিয়ে সবে চাকরিতে ঢুকেছেন। সবার একই উদ্দেশ্য।

শিশুদের মুখে হাসি ফোটানো, মানুষের দ্বার প্রান্তে গিয়ে সেবা করা। বলছিলাম অবহেলিত শিশুদের নিয়ে আর্ত-মানবতার সেবায় কাজ করে যাওয়া শিশু শিক্ষা কেন্দ্র 'ভরসাস্থল' এর কথা।  

সব প্রতিবন্ধকতা মাড়িয়ে অবহেলিত ও সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের পাশে দাঁড়াতে পেরেছে সংগঠনটি। শহরজুড়ে রয়েছে তাদের সুনাম। সম্প্রতি তারা অবহেলিত শিশুদের জন্য উন্নয়নমূলক কয়েটি কাজ শেষ করেছে। হাতে আছে আরও কিছু কাজ। দুটি ভাগে বিভক্ত হয়ে কাজ করছে সংগঠনটি।

প্রথম ভাগে গত ২৪ ও ২৬ এপ্রিল ঢাকা আহসানিয়া মিশনে ভরসাস্থল "অবহেলিত শিশুদের সঙ্গে ইফতার" আয়োজন করে। স্কুলে ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য বিনোদনমূলক কার্যক্রম ও তাদের মাঝে পুরষ্কার বিতরণ, ১৮০ জনের মাঝে খাবার বিতরণ করেছে সংগঠনটি। এই অসহনীয় গরমে বাচ্চাদের ক্লাস করতে দেখে ভরসাস্থলের পক্ষ থেকে দুটি ফ্যান, একটি বাল্ব ও লাইব্রেরির জন্য বেশ কিছু বই স্কুল কর্তৃপক্ষর কাছে তুলে দেওয়া হয়।

ভরসাস্থল

এছাড়া করোনা দুর্যোগের সময়েও ভরসাস্থলের তরুণেরা শিশুদের সেবায় কাজ করছেন। দ্বিতীয় ভাগে ২৮০ জন পথশিশু ও গরিব মানুষের মাঝে ইফতার বিতরণ করে সংগঠনটি।

তরুণপ্রাণ ছাড়াও অনেকেই সংগঠনটির পাশে সময়ে অসময়ে থেকেছেন। তরুণেরা যাতে দক্ষ হতে পারেন, সেসব দেখভাল করার দায়িত্বও নিয়েছেন। তারা হলেন ঢাকা রেসিডেনসিয়াল মডেল কলেজের অধ্যক্ষ কাজী শামীম ফরহাদসহ কয়েকজন সিনিয়র শিক্ষক।

ভরসাস্থলে বিশেষ অবদান এবং ফান্ড রেইজিং করতে যারা সাহায্য করেছেন তাদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন টিমের সদস্যরা। এছাড়া কৃতজ্ঞতা জানান সংগঠনটির ৩০০ জন দাতা সদস্যদের প্রতি।

news24bd.tv/কামরুল