ইমরানের লংমার্চে বাধা না দেওয়ার নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের
ইমরানের লংমার্চে বাধা না দেওয়ার নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের

ইমরানের লংমার্চে বাধা না দেওয়ার নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের

অনলাইন ডেস্ক

সদ্য ক্ষমতাচ্যুত পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের লংমার্চে বাধা না দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন দেশটির সুপ্রিম কোর্ট। সেই সঙ্গে লংমার্চ থেকে আটক সব নেতাকর্মীকে ছেড়ে দেওয়ারও নির্দেশও দেওয়া হয়েছে।

সুপ্রিম কোর্ট এ বিক্ষোভ ইসলামাবাদের এইচ-৯ এবং জি-৯ এলাকার মধ্যে পেশোয়ার মোড়ের কাছে করা যাবে।

এর আগে বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানী ইসলামাবাদে ‘আজাদি মার্চ’ থেকে নতুন নির্বাচনের জন্য দেশটির সরকারকে ছয়দিনের আল্টিমেটাম দিয়েছেন ইমরান খান।

অন্যথায়, পরবর্তীতে গোটা জাতিকে সঙ্গে নিয়ে আবারও রাজধানীতে আসার হুঁশিয়ারি দেন তিনি।

ইমরান খান বলেন, আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম- সরকার সংসদ ভেঙে দিয়ে নির্বাচন ঘোষণা না করা পর্যন্ত এখানে বসে থাকব, কিন্তু আমি গত ২৪ ঘণ্টায় যা দেখেছি, তারা (সরকার) জাতিকে নৈরাজ্যের দিকে নিয়ে যাচ্ছে। তারা জাতি ও পুলিশের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টির চেষ্টাও করছে।

ইমরান বলেন, “সরকার খুশি হবে যদি আমি ইসলামাবাদে অবস্থান ধর্মঘট পালন করি। কারণ এতে জনগণ, পুলিশ ও সেনাবাহিনীর মধ্যে সংঘর্ষ হবে। ”

এ সময় তিনি পিটিআই-এর মিছিল ঠেকাতে অভিযান এবং গ্রেফতারসহ ‘আমদানি করা সরকার’ দ্বারা ব্যবহৃত ‘কৌশলের’ নিন্দা জানান। একই সঙ্গে লংমার্চের বিষয়টি আমলে নিয়ে নির্দেশনা দেওয়ায় সুপ্রিম কোর্টকেও ধন্যবাদ দেন তিনি।

এদিকে, বুধবার মধ্যরাতে ইমরান খানের ‘আজাদি লংমার্চের গাড়িবহর রাজধানী ইসলামাবাদে এসে পৌঁছায়। বৃহস্পতিবার সকালে ইমরান খানের আল্টিমেটাম ঘোষণার পর ডি–চকের ‘রেড জোনে’ ঢুকে পড়ে তার দলের কর্মী–সমর্থকরা।  

পাকিস্তানের প্রভাবশালী ডন পত্রিকার অনলাইনের খবরে বলা হয়, পুলিশি বাধা উপেক্ষা করেই রেড জোনে ঢুকে পড়ে পিটিআই সমর্থকরা।

ডনের খবরে আরও বলা হয়েছে, ইসলামাবাদের ‘রেড জোনের’ নিরাপত্তায় সেনাবাহিনীর সাহায্য চেয়েছে শাহবাজ শরিফের সরকার। ইতোমধ্যে সেনাবাহিনী মোতায়েনের অনুমতিও দিয়েছে সরকার। সরকারি গুরুত্বপূর্ণ ভবন রক্ষায় সেনাবাহিনী মোতায়েনের কথা বলা হয়েছে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রানা সানাউল্লাহ একটি প্রজ্ঞাপন টুইট করে বলেছেন, সংবিধানের ২৪৫ অনুচ্ছেদের অধীনে রেড জোনে সেনাবাহিনী মোতায়েনের অনুমোদন দিয়েছে সরকার।

news24bd.tv তৌহিদ