ইরানের অত্যাধুনিক এই ক্ষেপণাস্ত্র বসবে ড্রোনে
ইরানের অত্যাধুনিক এই ক্ষেপণাস্ত্র বসবে ড্রোনে

ইরানের অত্যাধুনিক এই ক্ষেপণাস্ত্র বসবে ড্রোনে

অনলাইন ডেস্ক

 ইরানের সশস্ত্র বাহিনী আজ নতুন ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র ও ড্রোন উন্মোচন করেছে। এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সশস্ত্র বাহিনীর প্রধান মেজর জেনারেল মোহাম্মাদ বাকেরি।

ভূগর্ভস্থ ড্রোন ঘাঁটি পরিদর্শনের সময় ড্রোন ও ক্ষেপণাস্ত্র উন্মোচন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্রটির নাম রাখা হয়েছে 'হেইদার-১'।

এটি ইরানের বিমান বাহিনীর ড্রোন 'কামান-২২' এ বসানোর পাশাপাশি সেখান থেকেই নিক্ষেপ করা যায়।

হেইদার-১ ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্রের পাল্লা ২০০ কিলোমিটার এবং লক্ষ্যবস্তুতে আঘাতের সময় এর গতি থাকে ঘণ্টায় এক হাজার কিলোমিটার। এটি ইরানের প্রথম ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র যা ড্রোন থেকে নিক্ষেপ করা যায়।

এছাড়া, আজ যে ড্রোনটি উন্মোচন করা হয়েছে সেটার নাম দেওয়া হয়েছে, হেইদার-২। এটি হেলিকপ্টারে বসানো যায়।

ইরাকের সশস্ত্র বাহিনীর প্রধান বাকেরি আজ যে ড্রোন ঘাঁটিটি পরিদর্শন করেছেন তা একটি গোপন ঘাঁটি। এটি মাটির শত শত মিটার গভীরে গড়ে তোলা হয়েছে।

এই ড্রোন ঘাঁটি চালু হওয়ায় ইরান এই অঞ্চলের সবচেয়ে বড় ড্রোন শক্তিতে পরিণত হয়েছে। শুধু পশ্চিম এশিয়া নয় গোটা বিশ্বের বৃহৎ ড্রোন শক্তিধর দেশগুলোর সঙ্গে এ ক্ষেত্রে পাল্লা  দিতে পারে ইরান।

news24bd.tv তৌহিদ