আগুনে মীমের শরীরের ৯৫ শতাংশ পুড়ে গেছে, স্বামী আটক
আগুনে মীমের শরীরের ৯৫ শতাংশ পুড়ে গেছে, স্বামী আটক

আগুনে মীমের শরীরের ৯৫ শতাংশ পুড়ে গেছে, স্বামী আটক

অনলাইন ডেস্ক

রাজধানীর শাজাহানপুরের গুলবাগ এলাকায় স্বামীর সঙ্গে পারিবারিক কলহের জেরে এক গৃহবধূ নিজের শরীরের আগুন ধরিয়ে দিয়েছেন। এতে মীমের শরীরের ৯৫ শতাংশ পুড়ে গেছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। গৃহবধূর নাম মোসা.মীম আক্তার।  এ ঘটনায় তার স্বামী মো. রামিমকে আটক করেছে পুলিশ।

বর্তমানে মীম আশঙ্কাজনক অবস্থায় শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। শনিবার (২৮ মে) দুপুরে শাজাহানপুর গুলবাগের একটি বাসায় এ ঘটনা ঘটেছে।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের (ঢামেক) পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া বলেন, মীমের স্বামী রামিম রাজধানীর হাবিবুল্লাহ বাহার কলেজের অনার্স তৃতীয় বছরের শিক্ষার্থী। এছাড়া মীম ঢাকা সিটি ইন্টারন্যাশনাল কলেজের প্রথম বছরের শিক্ষার্থী। তারা গুলবাগের একটি বাসায় ভাড়া থাকেন। গতকাল স্বামী-স্ত্রীর মাঝে পারিবারিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে ঝগড়া হয়। এর জের ধরে আজ দুপুরে মীম ওই বাসায় নিজের শরীরের আগুন ধরিয়ে দেন। পরে তাকে উদ্ধার করে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে নিয়ে আসা হয়। আমরা চিকিৎসক মারফতে জানতে পেরেছি, মীমের শারীরিক অবস্থা আশঙ্কাজনক। তারা শরীরের ৯৫ শতাংশ অংশ আগুনে পুড়ে গেছে।

তিনি বলেন, মীমকে হাসপাতালে নিয়ে আসার সময় তার স্বামী রামিমও এসেছিল। পরে রামিমকে আমরা হেফাজতে নিই। বিকেলের দিকে এসে শাজাহানপুর থানা পুলিশ এসে রামিমকে আটক করে নিয়ে গেছে।

news24bd.tv তৌহিদ