শক্তি বাড়াতে সিরিয়ায় হেলিকপ্টার ও জঙ্গিবিমান পাঠাল রাশিয়া
শক্তি বাড়াতে সিরিয়ায় হেলিকপ্টার ও জঙ্গিবিমান পাঠাল রাশিয়া

শক্তি বাড়াতে সিরিয়ায় হেলিকপ্টার ও জঙ্গিবিমান পাঠাল রাশিয়া

অনলাইন ডেস্ক

সিরিয়ার উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় হাসাকা প্রদেশের রুশ ঘাঁটিতে হেলিকপ্টার ও জঙ্গিবিমান পাঠিয়েছে রাশিয়া। দামেস্ক সরকারের অনুরোধে মস্কো নতুন করে এই পদক্ষেপ নিয়েছে।

সিরিয়ার সার্বভৌমত্ব ও ভৌগোলিক অখণ্ডতার প্রতি রাশিয়ার সমর্থন অব্যাহত থাকবে বলে রুশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শোইগু প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করার কয়েক দিনের মাথায় মস্কো এই সিদ্ধান্ত নিল।

লেবাননের আল-মায়াদিন টেলিভিশন চ্যানেল জাানিয়েছে, সিরিয়ায় সম্প্রতি সামরিক শক্তি বাড়াচ্ছে রাশিয়া।

এর অংশ হিসেবে হাসাকা প্রদেশের কামিশলি বিমান ঘাঁটিতে হেলিকপ্টার ও জঙ্গিবিমান পাঠানো হয়েছে। তবে কয়টি হেলিকপ্টার ও জঙ্গিবিমান পাঠানো হয়েছে তা পরিষ্কার নয়। কামিশলি হচ্ছে কুর্দি অধ্যুষিত একটি এলাকা।

বৃহস্পতিবার আরটি টেলিভিশন চ্যানলকে দেয়া সাক্ষাৎকারে রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ বলেছেন, সিরিয়ায় রাশিয়ার সেনা উপস্থিতি সম্পূর্ণভাবে জাতিসংঘ সনদ ও নীতি মেনেই ঘটানো হয়েছে। জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে পাস হওয়া ২২৫৪ নম্বর প্রস্তাব অনুসারে রুশ সেনারা সিরিয়ায় কাজ করছে।

ল্যাভরভ পরিষ্কার করে বলেন, আরব এ দেশটির ভৌগোলিক অখণ্ডতা রক্ষার জন্য আমরা সিরিয়া সরকারকে পরিপূর্ণ সমর্থন দেবো।

সিরিয়া সরকারের প্রতি সমর্থন জানিয়ে রুশ সেনারা ২০১৫ সাল থেকে উগ্র সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলোর বিরুদ্ধে সরাসরি লড়াই করে আসছে। রুশ সরকারের সমর্থন সিরিয়ার পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে বিশেষ ভূমিকা রেখেছে।

news24bd.tv তৌহিদ