আরও এক মডেলের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার
আরও এক মডেলের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

সংগৃহীত ছবি

আরও এক মডেলের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

অনলাইন ডেস্ক

মাত্র ১৫ দিনের মধ্যে পশ্চিমবঙ্গে চতুর্থ মডেল-অভিনেত্রীর মৃত্যু হলো। গতকাল রোববার রাতে দক্ষিণ কলকাতার কসবা এলাকা থেকে পাখার সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় সরস্বতী দাসের (১৯) লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ পাঠানো হয়েছে কলকাতার ন্যাশনাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। পুলিশ জানিয়েছে, সরস্বতীর লাশের পাশে কোনো সুইসাইড নোট মেলেনি।

সরস্বতী ছিলেন উঠতি মডেল। অভিনয়জগতে নাম লেখানোর প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। পাশাপাশি মেকআপ আর্টিস্ট হিসেবেও কাজ করতেন। কিন্তু আচমকাই বেছে নিয়েছেন আত্মহননের পথ।

ভারতীয় গণমাধ্যম থেকে জানা গেছে, ঘটনাস্থলে কোনো সুইসাইড নোট পাওয়া যায়নি। তাই এখনই বোঝা যাচ্ছে না, তার মৃত্যু কি আত্মহত্যা নাকি অন্য কিছু। কসবায় সরস্বতীর মামার বাড়ি। সেখানেই থাকতেন তিনি। শনিবার (২৮ মে) রাতে দিদিমার সঙ্গে বাড়িতে একা ছিলেন। এরপর সকালেই তার ঝুলন্ত দেহ দেখতে পান বাড়ির লোকজন। তাৎক্ষনিক থানায় খবর দেওয়া হলে পুলিশ এসে তার মরদেহ উদ্ধার করে। এ বিষয়ে পরিবার থেকে এখনো কোনো অভিযোগ দায়ের করা হয়নি।

শোনা যাচ্ছে, ১৯ বছরের এই উঠতি মডেলের এক যুবকের সঙ্গে সম্পর্ক ছিল। কয়েকদিন ধরে সেই সম্পর্কে টানাপোড়েন চলছিল। পরিবারের দাবি, এ কারণে অবসাদে ভুগছিলেন সরস্বতী।

উল্লেখ্য, গত দুই সপ্তাহের মধ্যে কলকাতায় এ নিয়ে চারজন মডেল-অভিনেত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ পাওয়া গেল। শুরুটা হয় ১৫ মে অভিনেত্রী পল্লবী দে’র মাধ্যমে। এরপর অভিনেত্রী বিদিশা দে মজুমদার ও মঞ্জুষা নিয়োগীর মরদেহ উদ্ধার হয়। এবার সেই তালিকায় যুক্ত হলেন ১৯ বছর বয়সী সরস্বতী।
news24bd.tv/আলী