'দেশে চালের অভাব নেই, কিছু প্রতিষ্ঠান কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করছে'
'দেশে চালের অভাব নেই, কিছু প্রতিষ্ঠান কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করছে'

ফাইল ছবি

'দেশে চালের অভাব নেই, কিছু প্রতিষ্ঠান কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করছে'

শাহনাজ ইয়াসমিন

দেশে চালের অভাব নেই, কিছু প্রতিষ্ঠান কৃত্রিম সংকট সৃষ্টির চেষ্টা করছে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। আজ বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে এ কথা বলেন বাণিজ্যমন্ত্রী।

মন্ত্রী বলেন, দেশে চালের কোনো অভাব নেই বরং কৃত্রিম সংকট তৈরি করা হচ্ছে চালের বাজারে। যা প্রয়োজন সে পরিমান চাল বাজারে আছে।

এটা যারা করছে তাদের বিরুদ্ধে অভিযান চালানো হচ্ছে।

তিনি বলেন, অনেকগুলো বড় গ্রুপ খোলা চালকে প্যাকেট করে বিক্রি করে। এ জন্য চালের দাম বেড়ে গেছে।

তিনি আরও বলেন, মানুষ কিনছে বলেই কর্পোরেট কোম্পানিগুলো প্যাকেট করে চাল বিক্রি করছে। মানুষের ক্রয়ক্ষমতা আগের চেয়ে বেড়েছে। এটাকে জোর বন্ধ করার উপায় নেই। আইন করে এদের এসব কাজ বন্ধ করা যায় কি না তা নিয়ে চিন্তা করা হচ্ছে। তবে, চালের দাম কমাতে প্যাকেটজাত চাল বন্ধ করার জন্য যদি খাদ্য মন্ত্রণালয় বানিজ্য মন্ত্রণালয়ের কাছে সহায়তা চায় সেটা করবে তারা।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, মানুষের চিকন চাল খাওয়ার প্রবণতা বেড়েছে বলেই এর দাম বাড়ছে। পরিস্থিতি উন্নতি না হওয়া পর্যন্ত এক কোটি মানুষকে স্বল্পমূল্যে পণ্য দেয়া হবে। আগের মত ছয়টি পন্যই দেয়া হবে। যতদিন পর্যন্ত পরিস্থিতির উন্নতি না হয় ততদিন পর্যন্তই স্বল্প দামে ১ কোটি মানুষকে পণ্য দেয়া  হবে বলে জানান তিনি।

দেশের বাজারে তেলের দাম আর বাড়বে না। আগামী এক থেকে দেড় মাসের মধ্যে তেলের দাম কমে আসবে। পাম তেলের দাম আগের চেয়ে কমেছে বলেও জানান মন্ত্রী।

news24bd.tv/রিমু