অস্ত্র বোঝাই ইউক্রেনের বিমান ধ্বংস করল রাশিয়া
অস্ত্র বোঝাই ইউক্রেনের বিমান ধ্বংস করল রাশিয়া

সংগৃহীত ছবি

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের দাবি

অস্ত্র বোঝাই ইউক্রেনের বিমান ধ্বংস করল রাশিয়া

অনলাইন ডেস্ক

ইউক্রেনে সামরিক অভিযান চালাচ্ছে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম পরাশক্তি রাশিয়া। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ভোর থেকে শুরু হওয়া এই অভিযান। চলমান যুদ্ধে রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলেছে, রুশ সেনারা অস্ত্র বোঝাই ইউক্রেনের একটি বিমান ধ্বংস করেছে। খবর রুশ বার্তা সংস্থা স্পুতনিক'এর।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় রাশিয়ার বিমান প্রতিরক্ষা ইউনিটগুলো ইউক্রেনের একটি সামরিক বিমান ধ্বংস করে যা অস্ত্র ও গোলা-বারুদ বহন করছিল। বিমানটি ওদিসা বন্দরের কাছে কৃষ্ণ সাগরে ধ্বংস হয়। এ ছাড়াও গত ২৪ ঘণ্টায় ইউক্রেনের ১৭টি ড্রোন ধ্বংস করে।

ওদিকে ইউক্রেনে আসা বিদেশী ভাড়াটে সেনাদের একটি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে রুশ ক্ষেপণাস্ত্রগুলো আঘাত হানলে তাদের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়। রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ইউক্রেনে আসা বিদেশী ভাড়াটে সেনাদের সংখ্যা ছিল প্রায় ছয় হাজার ৫০০, কিন্তু রুশ হামলায় তাদের সংখ্যা এখন প্রায় তিন হাজার ৫০০-তে দাঁড়িয়েছে এবং এ ধরনের বিপর্যয়ের কারণে ইউক্রেনে বিদেশী ভাড়াটে সেনা আসা বন্ধ হয়ে গেছে। ভাড়াটে সেনাদের বেশিরভাগেরই তেমন একটা প্রশিক্ষণ নেই বলে রুশ সূত্র উল্লেখ করেছে।  

ইউক্রেনে রুশ সেনা অভিযান শুরু হওয়ার পর থেকে এ পর্যন্ত ইউক্রেনের ১৮৭টি বিমান, ১২৯টি হেলিকপ্টার, এক হাজার ১০৪টি ড্রোন, ৩২৮টি বিমান-বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র ইউনিট, তিন হাজার ৪০৬টি ট্যাংক ও অন্যান্য সাঁজোয়া যান, ৪৬৬টি ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপক, এক হাজার ৭৭২টি মর্টার ও কামান এবং তিন হাজার ৩১১টি বিশেষ সামরিক যান ধ্বংস করেছে রাশিয়া।  

রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ বলেছেন, ইউক্রেনে রাশিয়ার সব লক্ষ্যগুলো অর্জিত না হওয়া পর্যন্ত সেনা অভিযান অব্যাহত থাকবে।

উল্লেখ্য, ইউক্রেনে রুশ সেনা অভিযান ১০০ দিন অতিক্রম করেছে অর্থাৎ চতুর্থ মাসে পড়ল এই সেনা অভিযান। রাশিয়া তার পাশের এই দেশটিতে সামরিক সাজ-সরঞ্জাম ও অস্ত্র পাঠানোর বিরুদ্ধে ইউরোপ ও মার্কিন সরকারকে হুশিয়ারি দিয়ে বলেছে, এর ফলে সংঘাত জোরদার হবে এবং তা অনিশ্চিত পরিণতি বয়ে আনতে পারে।

news24bd.tv/রিমু