সীতাকুণ্ডে ভয়াবহ আগুনের সূত্রপাত যেভাবে   
সীতাকুণ্ডে ভয়াবহ আগুনের সূত্রপাত যেভাবে    

সংগৃহীত ছবি

সীতাকুণ্ডে ভয়াবহ আগুনের সূত্রপাত যেভাবে   

অনলাইন প্রতিবেদক

শনিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডের বিএম কন্টেইনার ডিপোতে আগুনের সূত্রপাত ঘটে। জানা গেছে, প্রথমে একটি কনটেইনারে আগুন লাগে। পরে আরও কয়েকটি কনটেইনারে দ্রুত আগুন ছড়িয়ে পড়ে। এরপরই ঘটে ভয়াবহ বিস্ফোরণ।

শেষ পর্যন্ত দুই শতাধিক কনটেইনারে আগুন লেগে যায়। ফায়ার সার্ভিস ধারণা করছে, প্রথমে কেমিক্যাল কনটেইনার থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৪৩ জন নিহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে ৫ জন ফায়ার সার্ভিস কর্মী। ১০ জন পুলিশ সদস্যও সহ আগেুনে দগ্ধ হয়েছেন অন্তত সাড়ে চার শতাধিক মানুষ। তাদেরকে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) হাসপাতাল, চট্টগ্রাম সিএমএইচ, নগরীর পার্ক ভিউ হাসপাতাল, শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউট সহ দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয় সূত্র জানায়, প্রথমে বিএম কনটেইনার ডিপোর লোডিং পয়েন্টের ভেতরে আগুনের সূত্রপাত হয়। খবর পেয়ে কুমিরা ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিটের সদস্যরা ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করে। রাত সাড়ে ১০ টার দিকে এক কনটেইনার থেকে অন্য কনটেইনারে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। একটি কনটেইনারে রাসায়নিক থাকায় বিকট শব্দে বিস্ফোরণ ঘটনা ঘটে। এতে ফায়ার সার্ভিস, পুলিশ, স্থানীয় শ্রমিকসহ শতাধিক মানুষ দগ্ধ হন।

খবর পেয়ে কুমিরা ও সীতাকুন্ড ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ শুরু করেন। রাত সাড়ে ১০টার দিকে আগুন কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আসে। তখন হঠাৎ করে আবারো একটি কেমিক্যাল বোঝাই কন্টেইনারে বিকট শব্দে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। সেখানে প্রচুর মানুষ আহত হয়। তাদের উদ্ধার করে বিভিন্ন হাসপাতালে নেওয়া হয়। এখন পর্যন্ত আগুন জ্বলছে। আগুন নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসের ২৫টি ইউনিট কাজ করছে। এছাড়া তাদের সঙ্গে যুক্ত হয়েছে সেনাবাহিনীর সদস্যরা।

news24bd.tv/desk