অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা লাইভ করতে গিয়ে প্রাণ গেল তরুণের
অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা লাইভ করতে গিয়ে প্রাণ গেল তরুণের

সংগৃহীত ছবি

অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা লাইভ করতে গিয়ে প্রাণ গেল তরুণের

অনলাইন ডেস্ক

সীতাকুণ্ডে বিএম কনটেইনার ডিপোতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ফেসবুকে লাইভ করছিলেন তরুণ অলিউর রহমান। একপর্যায়ে বিস্ফোরণের শব্দের সাথে লাইভ বন্ধ হয়ে যায়। পরে তার ক্ষতবিক্ষত মরদেহ পাওয়া যায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতাল মর্গে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তার এক সহকর্মী রুয়েল ও পরিবারের পক্ষ থেকে চাচা সুন্দর আলী।

 

জানা গেছে, অলিউর মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার কর্মধা ইউনিয়নের ফটিগুলী গ্ৰামের আশিক মিয়ার ছেলে। তিনি সীতাকুণ্ডে বিএম কনটেইনার ডিপোতে শ্রমিকের কাজ করতেন।

বিএম কনটেইনার ডিপো থেকে রাত শনিবার ১১ টায় ফেসবুকে লাইভে যুক্ত অলিউর। লাইভ চলাকালীন সময়ে হঠাৎ ভয়াবহ বিস্ফোরণের শব্দ শোনা যায়। এরপর থেকে তার লাইভটি অন্ধকার দেখা যাচ্ছিল। বিস্ফোরণের পর থেকে নিখোঁজ ছিলেন লাইভে থাকা অলিউর রহমান।

অলিউর রহমানের সহকর্মী রুয়েল জানান, বিস্ফোরণের আগে আগে তারা খাবার খাওয়ার জন্য ডিপো থেকে চলে আসলেও লাইভ করার জন্য অলিউর সেখানে থেকে যায়। পরে তার লাইভে বিস্ফোরণ দেখে ঘটনাস্থলে গিয়ে অলিউরকে আর জীবিত পাননি তারা।

অলিউরের ক্ষতবিক্ষত মরদেহ চট্টগ্ৰাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে রয়েছে বলেও জানান তিনি।  অলিউর রহমানের চাচা সুন্দর আলী জানান, অলিউরের মরদেহ আনার জন্য তিনি চট্টগ্রাম যাচ্ছেন।  

news24bd.tv/আলী