স্বর্ণ ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে জখম, এখনও গ্রেপ্তার হয়নি হামলাকারীরা
স্বর্ণ ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে জখম, এখনও গ্রেপ্তার হয়নি হামলাকারীরা

স্বর্ণ ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে জখম, এখনও গ্রেপ্তার হয়নি হামলাকারীরা

মাদারীপুর প্রতিনিধি :

মাদারীপুর শহরের পুরানবাজারের স্বর্ণকারপট্টি এলাকায় মুন্না জমাদ্দার নামে এক স্বর্ণ ব্যবসায়ীকে শনিবার বেলা ১১টার দিকে প্রকাশ্যে কুপিয়ে জখম করেছে দুই যুবক। ঘটনার ২৪ ঘণ্টা পার হলেও গ্রেপ্তার হয়নি হামলাকারীরা।  

আহতের পরিবারের দাবি, মাদারীপুর শহরের আমিরবাদ এলাকার শিশির খান ও শীতল হাওলাদার পুরানবাজারের স্বর্ণ ব্যবসায়ী মুন্না জমাদ্দারের (জমাদ্দার জুয়েলার্স) কাছে দুই লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে আসছিল। চাঁদা দিতে অস্বীকৃতি জানালে শিশির ও শীতল নামের ওই দুই যুবক এ হামলা চালায় মুন্না জমাদ্দারের উপর।

 

এরই মধ্যে এই ঘটনার একটি সিসিটিভি ফুটেজ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। ফুটেজে দেখা যায়, মোটরসাইকেলে করে দুই যুবক দোকানের সামনে এসে স্বর্ণ ব্যবসায়ীকে ডেকে বাইরে নিয়ে আসে। এরপর একটি ব্যাগে থাকা রামদা বের করে কোপানো শুরু করে। ব্যবসায়ী মুন্না জমাদ্দার আত্মরক্ষায় চিৎকার দিলে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসে। তখন পালিয়ে যায় ওই দুই যুবক। এই ঘটনার বিচার দাবি করেছেন আহতদের স্বজন ও স্থানীয় ব্যবসায়ীরা।

আহত মুন্নার বাবা লিটন জমাদ্দার জানান, প্রকাশ্যে একজন ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যাচেষ্টা করা হবে, এটা কাম্য নয়। এই ঘটনায় অপরাধীদের আইনের আওতায় এনে সুষ্ঠু বিচার দাবি করছি। তবে চাঁদা দাবির অভিযোগ অস্বীকার করেছেন হামলাকারী শিতলের বাবা শাহিন হাওলাদার। তিনি বলেন, পারিবারিক ঝামেলার কারণে এই ঘটনা ঘটেছে।

বাংলাদেশ জুয়েলার্স অ্যাসোসিয়েশন (বাজুস) মাদারীপুর জেলা শাখার সভাপতি হারুন অর রশিদ শিকদার বলেন, অভিযুক্ত দুইজনকেই গ্রেপ্তারের দাবি জানাচ্ছি। তা না হলে জেলার সকল জুয়েলারি দোকান বন্ধ করে কঠোর কর্মসূচি দেয়া হবে।

মাদারীপুর সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনোয়ার হোসেন চৌধুরী বলেন, এই ঘটনায় দুই পক্ষের লোকজনই থানায় এসেছিল। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্তরা পতালক রয়েছে। তাদের ধরতে একাধিক স্থানে অভিযান চালিয়েছি। তবে আহত মুন্নার পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা করতে চাইলে আমরা আইনগত সব ব্যবস্থা নিব। তারা এখন মামলা করবে কিনা সেই সিদ্ধান্ত নেয়নি।

news24bd.tv/কামরুল