ইউক্রেনকে দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র পাঠাচ্ছে যুক্তরাজ্য
ইউক্রেনকে দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র পাঠাচ্ছে যুক্তরাজ্য

সংগৃহীত ছবি

ইউক্রেনকে দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র পাঠাচ্ছে যুক্তরাজ্য

অনলাইন ডেস্ক

ইউক্রেনে সামরিক অভিযান চালাচ্ছে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম পরাশক্তি রাশিয়া। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ভোর থেকে শুরু হওয়া এই অভিযান ৩ মাসেরও বেশি সময় ধরে চলছে। ইউক্রেন-রাশিয়ার চলমান যুদ্ধে ইউক্রেনকে আত্মরক্ষার জন্য রাশিয়ার দেওয়া হুমকি উপেক্ষা করে ইউক্রেনে প্রথমবার দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র পাঠাচ্ছে যুক্তরাজ্য।

ব্রিটিশ প্রতিরক্ষামন্ত্রীর বরাত দিয়ে বিবিসি এ তথ্য জানিয়েছে।

বেন ওয়ালেস বলেন, এম২৭০ মাল্টিপল-লঞ্চ রকেট সিস্টেম ইউক্রেনকে রাশিয়ার বিরুদ্ধে আত্মরক্ষা করতে সাহায্য করবে। তবে ঠিক কত সংখ্যক অস্ত্র ইউক্রেনে পাঠানো হচ্ছে, সে ব্যাপারে কিছু জানানো হয়নি।

বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, তিনটি এম২৭০ মাল্টিপল-লঞ্চ রকেট সিস্টেম ইউক্রেনকে দিচ্ছে যুক্তরাজ্য। যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সমন্বয় করে সিদ্ধান্তটি নেওয়া হয়েছে।

সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্র ঘোষণা করেছে, তারা এম১৪২ হাই মোবিলিটি আর্টিলারি রকেট সিস্টেম (হিমার্স) পাঠাবে ইউক্রেনে। এটি আরো নির্ভুলভাবে ৪৫ মাইল দূরের লক্ষ্যবস্তুতে ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়তে পারে। বর্তমানে ইউক্রেনের যে আর্টিলারি রয়েছে তার চেয়ে এর ক্ষমতা অনেক বেশি।

এদিকে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেন, পশ্চিমা দেশগুলো যদি ইউক্রেনে দূরপাল্লার অস্ত্র পাঠায় তাহলে রাশিয়া ইউক্রেনে হামলার লক্ষ্যবস্তু আরো বাড়াবে।  

গতকাল রবিবার রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় টিভিতে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে পুতিন বলেন, আমার মতে সাধারণভাবে বাড়তি অস্ত্র সরবরাহ নিয়ে এই সব শোরগোলের একমাত্র লক্ষ্য সশস্ত্র সংঘাতকে যতদিন সম্ভব দীর্ঘায়িত করা।

পুতিন আরো বলেন, যুক্তরাষ্ট্র যে ইউক্রেনকে অস্ত্র সরবরাহ করছে তা ‘নতুন কিছু নয়’। দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র পাঠানোর বিরুদ্ধে সতর্ক করে দিয়ে তিনি বলেন, যদি সেগুলো সরবরাহ করা হয়, তাহলে আমরা যথাযথ সিদ্ধান্তে পৌঁছাব এবং আমাদের অস্ত্রগুলো ব্যবহার করব; যা আমাদের যথেষ্ট আছে। সেই লক্ষ্যগুলোতে আঘাত করা হবে যা আমরা এখনো আঘাত করছি না।

news24bd.tv/রিমু