শারীরিক সম্পর্কে ইচ্ছুক নন স্ত্রী, আদালতে সাংসদ
শারীরিক সম্পর্কে ইচ্ছুক নন স্ত্রী, আদালতে সাংসদ

সংগৃহীত ছবি

শারীরিক সম্পর্কে ইচ্ছুক নন স্ত্রী, আদালতে সাংসদ

অনলাইন ডেস্ক

বিয়ের পর থেকেই কোনও রকম শারীরিক ঘনিষ্ঠতায় ইচ্ছুক নন স্ত্রী বর্ষা প্রিয়দর্শিনী। তার উপর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তার নামে অপপ্রচার চালাচ্ছেন। এমনই অভিযোগে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন ভারতের উড়িষ্যা রাজ্যের সাংসদ এবং অভিনেতা অনুভব মোহান্তি। মোহান্তির স্ত্রী বর্ষা প্রিয়দর্শিনীও উড়িষ্যার জনপ্রিয় অভিনেত্রী।

উড়িষ্যার কটক অতিরিক্ত জেলা বিচারক ম্যাজিস্ট্রেট (এডিজেএম) আদালতে বিবাহ বিচ্ছেদের আবেদন করেছিলেন অনুভব। অবশেষে নিষ্পত্তি হতে চলেছে সেই মামলার।

বিচারক বর্ষাকে দু’মাসের মধ্যে অনুভবের পৈতৃক বাড়ি খালি করার নির্দেশ দিয়েছেন। অপর দিকে অনুভব মোহান্তিকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে প্রতি মাসে বর্ষাকে ৩০,০০০ টাকা খরচ হিসেবে দেওয়ার জন্য।  

অন্য এক পিটিশনে স্ত্রী বর্ষার আয়ের উৎস প্রকাশের দাবিও করেছিলেন অনুভব। গত সপ্তাহে এর শুনানি শেষ হলেও, এখন পর্যন্ত রায় দেননি আদালত।

কয়েক দিন আগে, অনুভব সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি ভিডিও পোস্ট করেছিলেন। সেই ভিডিওতে অনুভব অভিযোগ করেন, ২০১৪ সালে বিয়ে করলেও বর্ষার সঙ্গে তার কোনও শারীরিক ঘনিষ্ঠতা ছিল না। ভিডিওতে অনুভব আরও দাবি করেন যে, তিনি বিচ্ছেদের যে আবেদন করেছেন তাতে শুধু একটিই কারণ উল্লেখ করেছেন, বিবাহের অ-সম্পূর্ণতার। কারণ তার স্ত্রী আজ পর্যন্ত তাকে ‘স্বামীর বৈবাহিক অধিকার’ দেননি। স্বামী হয়ে কত দিন তিনি বিষয়টি ‘সহ্য করবেন তা আদালতের উপর নির্ভরশীল’ বলেও ভিডিও জানান অনুভব।

news24bd.tv/আলী