হুমকির পরে পুলিশি প্রহরায় বিমানবন্দরে সালমান
হুমকির পরে পুলিশি প্রহরায় বিমানবন্দরে সালমান

সংগৃহীত ছবি

হুমকির পরে পুলিশি প্রহরায় বিমানবন্দরে সালমান

অনলাইন ডেস্ক

হুমকি চিঠি পাওয়ার পর থেকেই বাড়ানো হয়েছে সালমান খানের নিরাপত্তা ব্যবস্থা। কোনোরকম ছাড় দিতে রাজি নয় মুম্বাই পুলিশ। সোমবার (৬ জুন) মুম্বাইয়ের কালিনা এয়ারপোর্টে পুলিশি নিরাপত্তায় দেখা যায় সালমান খানকে। এর আগের দিন সালমান খান ও তার বাবা সেলিম খান হুমকি চিঠি পান।

খবর হিন্দুস্তান টাইমস।

ইনস্টাগ্রামে শেয়ার হওয়া ভিডিওতে দেখা গেছে এয়ারপোর্টে সালমানের গাড়ি ঢুকতেই সেখান থেকে প্রথমে নেমে আসেন এক পুলিশ অফিসার। তারপর সালমানকে গাড়ি থেকে বের করে নিয়ে আসা হয়। সেখানে ছিলেন তার ব্যক্তিগত নিরাপত্তারক্ষী শেরাও।  

সালমান খান কালো টি-শার্টের উপর নিল চেক শার্ট পরে আছেন। সঙ্গে ডেনিম প্যান্ট। করোনার নতুন নিয়ম মেনে মুখে মাস্কও পরেছিলেন তিনি। এরপর পাপারাজ্জিদের দেখে হাত নাড়েন ভাইজান। জানা গেছে ব্যক্তিগত প্লেনে হায়দ্রাবাদে গেছেন সালমান নিজের নতুন ছবির কাজের জন্য।  

সোমবার খান পরিবারের বান্দ্রার গ্যালাক্সি অ্যাপার্টমেন্টও ঘুরে দেখেন পুলিশ কর্মকর্তারা। সেখানকার নিরাপত্তা ব্যবস্থাও বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। পাঞ্জাবের গায়ক সিধু মুসেওয়ালার মৃত্যুর পর কোনোরকম ঝুঁকি নিতে রাজি না মহারাষ্ট্র সরকার। মুম্বাই পুলিশ কমিশনার সঞ্জয় পাণ্ডে জানিয়েছেন, ‘এই চিঠি ভুয়া কি না, তা এত দ্রুত বলা সম্ভব নয়। লরেন্স বিষ্ণোয়ি গ্যাং নিয়ে কিছু বলাই মুশকিল। ’

প্রসঙ্গত, আইফা ২০২২-র জন্য সালমান ছিলেন আবুধাবিতে। সেখানে থেকে মুম্বাই ফেরেন রোববারই। জানা গেছে সালমানের জন্য কেউ ছেড়ে গিয়েছেন একটি বেনামি চিঠি। রিপোর্ট অনুযায়ী, প্রতিদিন সকালে নিজের বডিগার্ডদের নিয়ে হাঁটতে বের হন সালমান। একটি নির্দিষ্ট লোকেশনে গিয়ে বিরতিও নেন। সেখানেই একটা বেঞ্চে ছেড়ে যাওয়া হয়েছে সেই বেনামি চিঠিটি। যা খুঁজে পায় সালমানের নিরাপত্তারক্ষীরা।   সেই কাগজে লেখা ছিল, ‘মুসেওয়ালা-র মতো অবস্থা করে দেব’।
news24bd.tv/আলী