প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণের পর পুড়িয়ে হত্যাচেষ্টা, যুবক গ্রেফতার
প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণের পর পুড়িয়ে হত্যাচেষ্টা, যুবক গ্রেফতার

প্রতীকী ছবি

প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণের পর পুড়িয়ে হত্যাচেষ্টা, যুবক গ্রেফতার

নোয়াখালী প্রতিনিধি

নোয়াখালীর সদরে বুদ্ধি প্রতিবন্ধী এক তরুনীকে (১৮) ধর্ষণের পর পুড়িয়ে হত্যাচেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। আজ মঙ্গলবার দুপুরে গ্রেফতারকৃত আসামীকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। এর আগে সোমবার রাতে এ ঘটনায় অভিযুক্ত ইব্রাহিম খলিল (১৯) নামে এক অটোরিকশা চালককে মধুপুর থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতার খলিল নোয়াখালী পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের মধুপুর গ্রামের ঘড়ি মেকার বাড়ির মো. আবদুর রহিমের ছেলে।

সুধারাম মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আনোয়ারুল ইসলাম মামলা ও গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ভুক্তভোগীর মায়ের অভিযোগের ভিত্তিতে মামলা রুজু করে আসামিকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। ভুক্তভোগী ভিকটিমকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।  

পুলিশ জানায়, অভিযুক্ত খলিল নিজের যৌন লালসা চরিতার্থ করার জন্য বিয়ের প্রলোভন দিয়ে বিভিন্নস্থানে নিয়ে ধর্ষণ করে তরুনীকে। গত ১২ মে মাইজদী হাউজিং এলাকায় একটি দেওয়ালের মধ্যে ধর্ষণের পর হত্যার উদ্দেশ্য তরুনীকে শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। এতে তার পিছনের সম্পুর্ন অংশ পুড়ে যায়। সামাজিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন হওয়ার ভয়ে এতোদিন থানায় অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেয়েই আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এদিকে মঙ্গলবার (৭ জুন) দুপুরে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে গিয়ে দেখা যায় ভুক্তভোগী তরুনীকে বেডে কাতরাচ্ছে। আসামি ইব্রাহিম খলিলের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চান স্বজনরা।

news24bd.tv/আলী