সেনাপ্রধানের সঙ্গে কাতার সশস্ত্র বাহিনীর প্রধানের সাক্ষাৎ
সেনাপ্রধানের সঙ্গে কাতার সশস্ত্র বাহিনীর প্রধানের সাক্ষাৎ

সংগৃহীত ছবি

সেনাপ্রধানের সঙ্গে কাতার সশস্ত্র বাহিনীর প্রধানের সাক্ষাৎ

অনলাইন ডেস্ক

বাংলাদেশ সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন কাতার সশস্ত্র বাহিনীর চিফ অব স্টাফ লেফটেন্যান্ট জেনারেল (পাইলট) সালেম হামাদ আল-আকীল আল-নাবেত। মঙ্গলবার (৭ জুন) সেনাবাহিনীর সদর দফতরে বাংলাদেশের সেনাপ্রধানের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন লেফটেন্যান্ট জেনারেল সালেম। বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানায় শফিউদ্দিন আহমেদের কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তিনি।

কাতার সশস্ত্র বাহিনীর প্রধানের আমন্ত্রণে বিমডেক্সের প্রদর্শনীতে যোগ দিতে গত মার্চে দেশটিতে সফর করেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনী প্রধান।

সফরে কাতার সশস্ত্র বাহিনীর প্রধানকে বাংলাদেশ সফরে আমন্ত্রণ জানান শফিউদ্দিন আহমেদ।

বাংলাদেশের সেনাপ্রধানের আমন্ত্রণে গতকাল সোমবার ঢাকায় আসেন কাতার সশস্ত্র বাহিনীর চিফ অব স্টাফ।

আজ একান্ত সাক্ষাতে পারস্পরিক কুশলাদি বিনিময় ছাড়াও তারা দুই দেশের সশস্ত্র বাহিনীর মধ্যে বিদ্যমান সুসম্পর্ক ও ভবিষ্যৎ অগ্রযাত্রায় সহযোগিতার বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করেন তারা। এরপর সেনা সদরের হেলমেট কনফারেন্স রুমে প্রতিনিধি দলের জন্য বিশেষ ব্রিফিংয়ের আয়োজন করা হয়।

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর রণপ্রস্তুতি, উন্নত প্রশিক্ষণ ব্যবস্থা, বিশ্বশান্তিতে ভূমিকা এবং সামগ্রিক প্রশাসনিক কাঠামো সম্পর্কে অবহিত হয়ে কাতার সশস্ত্র বাহিনীর প্রধান বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর বর্তমান নেতৃত্ব এবং সামগ্রিক উচ্চমান সম্পর্কে ভূয়সী প্রশংসা করেন।

অপারেশন কুয়েত পুনর্গঠনে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর প্রশংসনীয় ভূমিকার অনুপ্রেরণায় কাতারেও অনুরূপ উদ্যোগের সম্ভাব্যতা নিয়ে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি। কাতারের প্রতিনিধি দলটি প্রশিক্ষণ বিনিময় এবং বিশ্বকাপ ফুটবলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর বাদক দলের উপস্থিতি নিয়ে আগ্রহ প্রকাশ করেন।

সেনাসদরে আগমনের আগে সেনাকুঞ্জে তিন বাহিনীর একটি চৌকস দল কাতার সশস্ত্র বাহিনীর প্রধানকে গার্ড অব অনার দেয়। পরবর্তীতে লেফটেন্যান্ট জেনারেল সালেম, প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা উপদেষ্টা মেজর জেনারেল (অব.) তারিক আহমেদ সিদ্দিক এবং বাংলাদেশ নৌবাহিনী এবং বিমানবাহিনী প্রধানদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন লেফটেন্যান্ট জেনারেল সালেম।

সফররত প্রতিনিধিদলটি গতকাল বাংলাদেশে পৌঁছানোর পর সন্ধ্যায় আর্মি মাল্টিপারপাস কমপ্লেক্সে লেফটেন্যান্ট জেনারেল সালেমের সম্মানে সেনাপ্রধান কর্তৃক আয়োজিত নৈশভোজে অংশগ্রহণ করেন। নৈশভোজের পর একটি মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এ সময়ে কাতারের রাষ্ট্রদূত সিরাইয়া আলি আল-কাহতানি, কাতার সশস্ত্র বাহিনী এবং বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

আগামীকাল (৮ জুন) চট্টগ্রামের ভাটিয়ারিতে অবস্থিত বাংলাদেশ মিলিটারি একাডেমির ৮২তম লং কোর্সের প্রশিক্ষণ সমাপনী কুচকাওয়াজে লেফটেন্যান্ট জেনারেল সালেম প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে প্যারেড পরিদর্শন ও অভিবাদন গ্রহণ করবেন। ঐতিহ্যবাহী এই রাষ্ট্রপতি প্যারেডে প্রধান অতিথি হিসেবে আমন্ত্রিত হওয়ায় তিনি সেনাবাহিনী প্রধানকে আন্তরিক কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানান।

কাতার সশস্ত্র বাহিনীর চিফ অব স্টাফের এই অত্যন্ত ফলপ্রসূ সফরের মধ্য দিয়ে কাতার ও বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর মধ্যকার নিবিড় যোগাযোগের নতুন দ্বার উন্মোচিত হলো, যা দুই দেশের পারস্পরিক সম্পর্কোন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। সফর শেষে আগামীকাল বুধবার কাতার প্রতিনিধিদলের দেশের উদ্দেশে ঢাকা ছাড়ার কথা রয়েছে।

news24bd.tv/আলী