খাদ্যাভ্যাস ও জীবনধারা পরিবর্তন করে লিভারের রোগ ‘ন্যাশ’ প্রতিরোধ করা যায়
খাদ্যাভ্যাস ও জীবনধারা পরিবর্তন করে লিভারের রোগ ‘ন্যাশ’ প্রতিরোধ করা যায়

সংগৃহীত ছবি

দেশে ৫ম আন্তর্জাতিক ন্যাশ দিবস পালিত

খাদ্যাভ্যাস ও জীবনধারা পরিবর্তন করে লিভারের রোগ ‘ন্যাশ’ প্রতিরোধ করা যায়

অনলাইন ডেস্ক

নন–অ্যালকোহলিক স্টিয়াটো হেপাটাইটিসকে মেডিক্যালের ভাষায় বলে ‘ন্যাশ’। এটি লিভারের দীর্ঘমেয়াদী একটি রোগ। ফ্যাটি লিভারে আক্রান্ত অনেকেরই এই স্টিয়াটো হেপাটাইটিস বা ন্যাশ দেখা দিতে পারে। এসব রোগীর প্রায় ৩০ ভাগ পরবর্তীতে লিভার সিরোসিসে আক্রান্ত হতে পারে; অনেকের লিভার ক্যান্সারও হতে পারে।

ফ্যাটি লিভার থেকে একবার লিভার সিরোসিস হলে ১৫ ভাগ রোগী ৭ বছরের মধ্যে এবং ২৫ ভাগ ১০ বছরের মধ্যে মারা যাবার ঝুঁকিতে থাকেন।  

বাংলাদেশে ফ্যাটি লিভারের মূল কারণ মেদ-ভুড়ি, ডায়াবেটিস, ডিজলিপিডেমিয়া (রক্তে অতিরিক্ত চর্বি), হাইপারটেনশন (অতিরিক্ত রক্তচাপ), হাইপোথাইরয়েডিজম, নারীদের পলিসিস্টিক ওভারি সিনড্রোম (পিসিওএস) ইত্যাদি। ডায়াবেটিসের রোগীদের এ রোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি খুবই বেশি। আমেরিকায় ৩৩ শতাংশ ডায়াবেটিসের রোগীর ফ্যাটি লিভার রয়েছে। এশিয়ায় যাদের ডায়াবেটিস রয়েছে তাদের ৪৯ শতাংশ ফ্যাটি লিভারেও আক্রান্ত। হেপাটাইটিস ভাইরাসগুলোর মধ্যে হেপাটাইটিস ‘সি’ অনেক সময়ই ফ্যাটি লিভার তৈরি করে থাকে।  

আশার কথা হলো, শুধুমাত্র খাদ্যাভ্যাস ও জীবনধারা পরিবর্তন করলে এসব রোগ প্রতিরোধ করা সম্ভব। এজন্য আয়েশি জীবনযাপন বাদ দিয়ে কায়িক শ্রম দিতে হবে বা নিয়মিত ব্যায়াম করতে হবে। পাশাপাশি অতিরিক্ত কার্বোহাইড্রেট বা ফ্যাটযুক্ত খাবার, ফাস্ট ফুড, ভাত খাওয়া নির্ভরতা কমাতে হবে অথবা বর্জন করতে হবে।

বৃহস্পতিবার (৯ জুন) ৫ম আন্তর্জাতিক ন্যাশ দিবস পালন উপলক্ষ্যে বাংলাদেশে লিভার চিকিৎসকদের আয়োজিত নানা অনুষ্ঠানে বক্তারা এসব কথা বলেন। ৫ম বারের মতো সারা বিশ্বের ন্যায় বাংলাদেশেও দিবসটি উদযাপন হলো।

ইন্টারভেনশনাল হেপাটোলজি ডিভিশন, বিএসএমএমইউ
৫ম আন্তর্জাতিক ন্যাশ দিবস পালিত উপলক্ষ্যে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ইন্টারভেনশনাল হেপাটোলজি ডিভিশনের উদ্যোগে একটি বর্নাঢ্য র্যা লি বের হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ আনুষ্ঠানিকভাবে এর উদ্বোধন করেন। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপ-উপাচার্য (শিক্ষা)অধ্যাপক ডা. মোশাররফ হোসেন, প্রক্টর অধ্যাপক ডা. হাবিবুর রহমান, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আতিকুর রহমান, পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ডা. নজরুল ইসলাম, হেপাটোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. মো. আইয়ুব আল মামুন,  ইন্টারভেনশনাল হেপাটোলজি ডিভিশনের প্রধান অধ্যাপক ডা. মামুন আল মাহতাব স্বপ্নীলসহ  বিশ্ববিদ্যালয়ের ফ্যাকাল্টি ও রেসিডেন্টবৃন্দ।  
পরে বঙ্গবন্ধু মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের হেপাটোলজি বিভাগে ফ্যাটি লিভারের জেনেটিক স্টাডি সংক্রান্ত যৌথ গবেষণার বিষয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ইন্টারভেনশনাল হেপাটোলজি ডিভিশন এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিপার্টমেন্ট অব ক্লিনিক্যাল ফার্মেসি ও ফার্মাকোলজির মধ্যে একাধিক সমঝোতার সম্মতিপত্র বিনিময় হয়। অধ্যাপক ডা. মামুন আল মাহতাব স্বপ্নীল এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্লিনিক্যাল ফার্মেসি ও ফার্মাকোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. আব্দুর রহমান স্ব-স্ব বিভাগের প্রতিনিধিত্ব করেন।  

ফোরাম ফর দ্য স্টাডি অব দ্য লিভার বাংলাদেশ 
সকালে ফোরাম ফর দ্য স্টাডি অব দ্য লিভার বাংলাদেশের উদ্যোগে জাতীয় জাদুঘরের সামনের সড়কে একটি সচেতনতামুলক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে বাউল সঙ্গীত পরিবেশন করেন পল্লী বাউল সমাজ উন্নয়ন সংস্থার সদস্যরা। পাশাপাশি পথ নাটক সংগঠন ইউনিভার্সেল থিয়েটারের শিল্পীরা একটি পথ নাটকও  মঞ্চায়ন করেন।  অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পথ নাটক পরিষদের সাধারন সম্পাদক আহমেদ গিয়াস, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের নাট্য স্নাতক মঞ্চের সাধারন সম্পাদক সাইফ উদ্দিন আহমেদ ও বাংলাদেশ পল্লী বাউল সমাজ উন্নয়ন সংস্থার সভাপতি বেগম নাজমা ফেরদৌসী।  

অতিথিরা ফ্যাটি লিভারের মত একটি মারাত্মক রোগ সম্বন্ধে জনসচেতনতা সৃষ্টিতে এ ধরণের ব্যতিক্রমী উদ্যোগ গ্রহণ করায় ফোরাম ফর দ্য স্টাডি অব দ্য লিভার বাংলাদেশের প্রশংসা করেন। ফোরামের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. মামুন আল মাহতাব স্বপ্নীল ভবিষ্যতে বৃহত্তর পরিসরে এ ধরণের অনুষ্ঠান আয়োজনের আগ্রহ ব্যক্ত করেন।

অ্যাসোসিয়েশন ফর দ্য লিভার ডিজিজেজ বাংলাদেশ 
দিবসটি উদযাপন উপলক্ষ্যে অ্যাসোসিয়েশন ফর দ্য লিভার ডিজিজেজ বাংলাদেশ ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে দুপুরে একটি গোল টেবিল বৈঠক আলোচনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। এতে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনটির সভাপতি অধ্যাপক ডা. সেলিমুর রহমান।  আলোচনায় অংশ নেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. মো. নিজামুল হক ভূইয়া, বিএসএমএমইউর মেডিসিন অনুষদের ডিন অধ্যাপক ডা. মাসুদা বেগম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসি অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. সীতেশ চন্দ্র বাছার, ফোরামের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ডা. মামুন আল মাহতাব স্বপ্নীল, সহ-সভাপতি ডা. ফারুক আহমেদ, কোষাধ্যক্ষ ডা. ফজল করিম, সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. শেখ মোহাম্মদ নুর ই আলম ডিউ, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাধারণ সম্পাদক ডা. নুরুল ইসলাম হাসিব, বিকন ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের ডিএসএম দেবাশীষ সাহা প্রমূখ।  

অন্যান্য
বিএসএমএমইউ ছাড়াও কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল ও শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজের হেপাটোলজি বিভাগের উদ্যোগে দিবসটি উপলক্ষ্যে একটি র‌্যালি বের হয়। পরে তারা এ বিষয়ে বৈজ্ঞানিক সেমিনারের আয়োজন করে।

উল্লেখ্য, সারা পৃথিবীর ১৫০ জন লিভার বিশেষজ্ঞ স্বাক্ষরিত যৌথ বিবৃতি প্রচারের মাধ্যমে ২০১৮ সালের ৫ জুন  প্রথমবারের মতো পালিত হয়েছিল আন্তর্জাতিক ‘ন্যাশ’ দিবস। বাংলাদেশ থেকে ওই সময় স্বাক্ষর দান করেছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ইন্টারভেনশনাল হেপাটোলজি ডিভিশনের বর্তমান প্রধান অধ্যাপক ডা. মামুন আল মাহতাব স্বপ্নীল। অপরজন ছিলেন  জাপান প্রবাসী লিভার বিশেষজ্ঞ ডা. শেখ মোহাম্মদ ফজলে আকবর। এরপর থেকে প্রতিবছর পালিত হয়ে আসছে দিবসটি।

৫ম আন্তর্জাতিক ন্যাশ দিবস ২০২২ উপলক্ষ্যে পরিবেশিত থিম সং :

news24bd.tv/kabul