নিজেকে বিয়ে করলেন তরুণী
নিজেকে বিয়ে করলেন তরুণী

সংগৃহীত ছবি

নিজেকে বিয়ে করলেন তরুণী

অনলাইন ডেস্ক

নিজেকে বিয়ে করার ঘোষণা দিয়ে রীতিমতো হইচই ফেলে দেওয়া ভারতের গুজরাট প্রদেশের ২৪ বছর বয়সী তরুণী শামা বিন্দু তার মনের আশা পূরণ করেছেন। নির্ধারিত তারিখের দু’দিন আগেই বৃহস্পতিবার গুজরাটের এই তরুণী নিজেকে বিয়ে করেছেন বেশ কিছু রীতিনীতি মেনে। গুজরাট প্রদেশে ‘সলোগামি বা নিজেকে বিয়ের’ এটিই প্রথম ঘটনা বলে দেশটির গণমাধ্যমের খবরে জানানো হয়েছে।

এনডিটিভি বলছে, আগামী ১১ জুন বহুল আলোচিত এই বিয়ের তারিখ নির্ধারণ করেছিলেন শামা বিন্দু।

কিন্তু তার দু’দিন আগেই বৃহস্পতিবার একাকীত্বের বিভিন্ন রীতিনীতি মেনে নিজেকে বিয়ে করেছেন তিনি।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ইনস্টাগ্রামে হলুদ এবং মেহেদিসহ বিয়ের বিভিন্ন ধরনের অনুষ্ঠানের ছবি শেয়ার করেছেন তিনি। তার বিয়ের অনুষ্ঠানে পরিবার এবং ব্ন্ধুদের অংশগ্রহণ করতে দেখা যায়। বিয়ের অনুষ্ঠানটি প্রায় ৪০ মিনিট ধরে চলেছে। তবে এই বিয়েতে যে কেবল বরই অনুপস্থিত ছিলেন সেটি নয়, বরং কোনও পুরোহিতও ছিলেন না।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার তথ্য অনুযায়ী, বিন্দুর বন্ধু এবং শুভাকাঙ্ক্ষীরা ফুল দিয়ে তাকে শুভেচ্ছা জানান। নিজেকে বিয়ে করা এই তরুণীর পাশে সবসময় থাকার ঘোষণা দিয়েছেন তারা। বিন্দু বলেন, ‘অবশেষে একজন বিবাহিত নারী হতে পেরে আমি খুবই খুশি। অন্যান্য কনের মতো বিয়ের পর আমাকে বাড়ি ছেড়ে যেতে হবে না!’

বিয়ের পর ফেসবুকে দেওয়া এক ভিডিও বার্তায় শামা বিন্দু বলেছেন, সমর্থন এবং উত্সাহ দেওয়ার জন্য সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছেন তিনি। অসংখ্য মানুষ বিয়েতে উপস্থিত হতে চেয়েছিলেন, সেজন্যও তিনি খুশি বলে জানিয়েছেন।

ইনস্টাগ্রামে প্রাক-বিয়ের অনুষ্ঠানের ছবিও শেয়ার করেছেন শামা বিন্দু। হলুদ অনুষ্ঠানের ছবি শেয়ার করে তিনি বলেছেন, আমি হলুদ লাগিয়েছি এবং নিজেকে সাজিয়েছি। আমি নিজের সাথে একটি পবিত্র সম্পর্কে আবদ্ধ হয়েছি। মেহেদির একটি ছবি শেয়ার করে তিনি লিখেছেন, ‘আমি মেহেদির রঙে নিজেকে রাঙিয়েছি। ’

বিয়ের সময় ১১ জুন নির্ধারিত থাকলেও তা দু’দিন এগিয়ে আনার ব্যাপারে গুজরাটের এই তরুণী বলেছেন, যেকোনও ধরনের বিতর্ক এড়াতে তিনি দু’দিন আগেই বিয়ে করেছেন। বিন্দু বলেছেন, আমার বিয়ের অনুষ্ঠানে মাত্র ১০ জন বন্ধু এবং সহকর্মী উপস্থিত ছিলেন। এটাকে লুকিয়ে বিয়ে করাও বলা যেতে পারে। এছাড়া ঝামেলা এড়াতে মন্দিরের পরিবর্তে বিয়ের অন্য স্থান তিনি বেছে নিয়েছেন বলে জানিয়েছেন।

বেসরকারি একটি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত বিন্দু তার এই বিয়েকে ‘নিজের জন্য নিঃশর্ত ভালোবাসার মাঝে ডুবে থাকা’ বলে অভিহিত করেছেন। এই বিয়েতে তার বাবা মায়ের সমর্থন ছিল বলেও জানিয়েছেন। বিন্দু বলেছেন, দুই সপ্তাহের হানিমুনে গোয়ায় যাওয়ার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন তিনি।

news24bd.tv/আলী