আলেমদের টকশোতে না যাওয়ার পরামর্শ
আলেমদের টকশোতে না যাওয়ার পরামর্শ

আলেমদের টকশোতে না যাওয়ার পরামর্শ

অনলাইন ডেস্ক

মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)-কে কটুক্তি করা নিয়ে মুসলিম বুদ্ধিজীবী ও মৌলভীদের টেলিভিশন টকশোতে অংশ না নিতে পরামর্শ দিয়েছে অল ইন্ডিয়া মুসলিম পারসোনাল ল’ বোর্ড (এআইএমপিএলবি)। গত শুক্রবার সংগঠনটির পক্ষ থেকে দেওয়া বিবৃতিতে এ পরামর্শ দেওয়া হয়।

বিবৃতিতে সংগঠনটি বলেছে, টিভি টকশোতে গিয়ে ইসলামের কোনো উপকার করতে পারবেন না। বরং চ্যানেলগুলো পরোক্ষভাবে ইসলাম ধর্ম ও মুসলিমদের খাটো করার চেষ্টা করবে।

এ ধরনের অনুষ্ঠান বর্জন করলে চ্যানেলের টিআরপি প্রভাবিত হবে এবং তারা ‘কাঙ্ক্ষিত ফলাফল’ অর্জনে ব্যর্থ হবে।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস জানিয়েছে, ভারতে এআইএমপিএলবি একটি গুরুত্বপূর্ণ সংস্থা। স্বার্থ রক্ষায় লড়াইয়ের পাশাপাশি তারা মুসলিম সম্প্রদায়কে নানাভাবে পরামর্শ দিয়ে থাকে।

এআইএমপিএলবি’র মুখপাত্র ড. এস কিউ আর ইলিয়াস বলেছেন, কিছু টিভি চ্যানেল আছে যারা কোনো সমস্যা বোঝার জন্য বা কোনো উপসংহারে পৌঁছানোর জন্য এ ধরনের বিতর্ক করছে না। এগুলো শুধুই সাম্প্রদায়িক ভিত্তিতে সমাজকে মেরুকরণ করার জন্য পরিচালিত হচ্ছে।

তিনি বলেন, তারা প্রায়ই একটি নির্দিষ্ট সম্প্রদায়, ধর্ম এবং বিশেষ ব্যক্তিকে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করে। যেমন, নূপুর শর্মা বিতর্ক। মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)-কে অপমান করে তিনি শুধু ভারতীয় মুসলমানদেরই নয়, সারা বিশ্বের মুসলমানদের অনুভূতিতে আঘাত করেছেন। ফলে এ ঘটনায় আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতিক্রিয়া অনিবার্য ছিল, যা ভারতের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ করেছে।

গত মাসে একটি টিভি টকশোতে বিজেপির সাবেক মুখপাত্র নূপুর শর্মার মন্তব্য নিয়ে দেশের বিভিন্ন অংশে বিক্ষোভের মধ্যে এই বিবৃতিতে দেওয়া হলো।

news24bd.tv তৌহিদ