দখলকৃত ইউক্রেনের শহরগুলোতে পাসপোর্ট দিচ্ছে রাশিয়া
দখলকৃত ইউক্রেনের শহরগুলোতে পাসপোর্ট দিচ্ছে রাশিয়া

সংগৃহীত ছবি

দখলকৃত ইউক্রেনের শহরগুলোতে পাসপোর্ট দিচ্ছে রাশিয়া

অনলাইন ডেস্ক

ইউক্রেনে সামরিক অভিযান চালাচ্ছে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম পরাশক্তি রাশিয়া। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ভোর থেকে ইউক্রেনে সামরিক অভিযান শুরু করে রাশিয়া। তিন মাসেরও বেশি সময় ধরে চলছে এই অভিযান। অভিযানে এরইমধ্যে ইউক্রেনের বেশ কয়েকটি নগরী দখলে নিয়েছে রুশ বাহিনী।

এবার দখলকৃত অঞ্চলের নাগরিকদের রাশিয়ার পাসপোর্ট দিচ্ছে দেশটি। দক্ষিণ ইউক্রেনে রুশ দখলদার কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, তারা দুটি শহরে স্থানীয় বাসিন্দাদের কাছে রাশিয়ার পাসপোর্ট বিতরণ শুরু করেছে। খারসান ও মেলিতোপোল শহরে পাসপোর্ট দেওয়া হচ্ছে আনুষ্ঠানিকভাবে।

ইউক্রেনের ভূখণ্ডে রুশ নাগরিক সৃষ্টিকে 'রাশিফিকেশন' বলে নিন্দা করেছেন প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। এটাকে ইউক্রেনের আঞ্চলিক অখণ্ডতার ‘প্রকাশ্য লঙ্ঘন’ বলেও অভিযোগ করা হয়েছে।

অন্যদিকে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন প্রক্রিয়াটি দ্রুতগতিতে সম্পন্ন করার চেষ্টা করছেন। খবর বিবিসির

বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, স্থানীয় সময় শনিবার এক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে প্রথমবারের মতো খারসনের ২৩ জন বাসিন্দার হাতে পাসপোর্ট তুলে দেওয়া হয়। খারসনের হাজার হাজার বাসিন্দা রাশিয়ার পাসপোর্ট পেতে এর আগে আবেদন করেছিলেন।

খারসনে রাশিয়ার নিযুক্ত সামরিক গভর্নর ভলোদিমির সালদো বলেন, শহরটির বাসিন্দারা যত দ্রুত সম্ভব রাশিয়ার নাগরিকত্ব ও পাসপোর্ট পেতে আগ্রহ দেখিয়েছেন।

ইতোমধ্যেই ক্রিমিয়া, লুহানস্ক ও দোনেৎস্কে রুবলের ব্যবহার শুরু করেছে রাশিয়া। স্কুলগুলোতে রাশিয়ার পাঠ্যক্রম চালু করতে বলপ্রয়োগ করা হচ্ছে। তবে রুবল ব্যবহারের নির্দেশ মানছেন না খারসনের বাসিন্দারা।

news24bd.tv রিমু