একজনের সাজা খাটছেন অন্যজন!

একজনের সাজা খাটছেন অন্যজন!

হাবিবুল ইসলাম হাবিব

এক জনের মাদক মামলায় জেল খাটছেন আরেক ব্যাক্তি।  ৫ বছরের সাজা মাথায় নিয়ে ৪ মাস ধরে কক্সবাজার কারাগারে রয়েছেন ১০ বছর পর বিদেশ থেকে ফেরা জাশেদুল হক নামের এক হতভাগা ।  এদিকে মুল আসামী গ্রেপ্তারের ২ মাস পরই জামিনে বেরিয়ে লাপাত্তা। নিউজ টোয়েন্টিফোরের অনুসন্ধানে বেরিয়ে এসেছে এর সত্যতা।

এমন ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে তাকে মুক্তি দাবি জানিয়েছেন রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী।  

দীর্ঘ ১০ বছর মালয়েশিয়া কাটিয়ে ২০২০ সালে দেশে ফেরেন কক্সবাজারের রামুর জাশেদুল হক।   ২০২২ সালে তাকে গ্রেপ্তার করে কক্সবাজার কারাগারে পাঠায় পুলিশ। পরে তার পরিবার জানতে পারেন তিনি মাদক মামলায় ৫ বছরের দণ্ডপ্রাপ্ত আসামী।

এমন তথ্য কিছুতেই মেনে নিতে পারেনি তার পরিবার। তাদের দাবি জাশেদুল ২০১০ সালে মালয়েশিয়ায় যান। তাহলে কিভাবে ২০১১ সালের মাদক মামলার আসামী হলেন তিনি।

২০২১ সালের ২২ সেপ্টেম্বর জাশেদুল হককে ৫ বছরের কারাদন্ড দেন চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ আদালত। মামলার নথি থেকে জানা যায় ২০১১ সালের মার্চে চট্টগ্রামের পাহাড়তলিতে টহল পুলিশের কাছে ১৫০ পিচ ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার হন এক ব্যাক্তি। গ্রেপ্তারকৃত আসামী জাশেদুল হকের নাম ঠিকানা দেন পুলিশকে। যার এক বছর আগেই মালয়েশিয়ায় যান জাশেদুল। যদিও গ্রেপ্তারকৃত আসামী ২ মাস ২০ দিন পর জামিনে বেরিয়ে যান। তবে পুলিশের তদন্ত চলে বিদেশে থাকা জাশেদুলের ঠিকানায়।

হযরত শাহজালার আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকেই  মালয়েশিয়ার উদ্দেশ্যে রওনা হন জাশেদুল হক। ইমিগ্রেশনের তথ্য বলছে ২০১০ সালের ১৫ এপ্রিল বিজি-০৮৮ বিমানে করে দেশ ছাড়েন তিনি। আর দেশে ফেরেন ২০১৯ সালের ২০ এপ্রিল।

চট্টগ্রাম কারাগারে ২০১১ সালে ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার হওয়া ব্যাক্তির তথ্য অনুসন্ধানে দেখা যায় সেখানে কারাগারের রেকর্ড বুকে জাশেদুল নামে পাওয়া ছবির সাথে কোন মিল নেই কারাভোগ করা জাশেদুলের।

এমন ঘটনার প্রকৃত দোষীকে খুজে বের করার দাবি জানান চট্টগ্রাম মহানগর পিপি মো. ফখরুদ্দীন। তিনি বলেন, এ ধরনের ঘটনার যেন আর পুনরাবৃত্তি না ঘটে।

news24bd.tv/আলী