সেভেরোদোনেস্কে আটকা পড়েছে হাজারো বেসামরিক, সতর্কতা জাতিসংঘের
সেভেরোদোনেস্কে আটকা পড়েছে হাজারো বেসামরিক, সতর্কতা জাতিসংঘের

সংগৃহীত ছবি

সেভেরোদোনেস্কে আটকা পড়েছে হাজারো বেসামরিক, সতর্কতা জাতিসংঘের

নিবিড় আমীন

ইউক্রেনের সেভেরোদোনেস্ক শহরে হাজারো বেসামরিক লোক আটক পড়েছে এবং তাদের প্রয়োজনীয় সরবরাহ শেষ হয়ে গেছে বলে সতর্ক করেছে জাতিসংঘ। এদিকে, জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধির জন্য রাশিয়ার রাষ্ট্রমালিকানাধীন গ্যাস কোম্পানি গ্যাজপ্রমকে দায়ী করেছে জার্মানি। অন্যদিকে, রাশিয়ার ওপর জ্বালানি নির্ভরতা কমাতে একটি ত্রিপক্ষীয় প্রাকৃতিক গ্যাস রপ্তানি চুক্তি সই করেছে ইসরায়েল, মিশর ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন।  

গেল কয়েক সপ্তাহ ধরেই ইউক্রেনের সেভেরোদোনেৎস্ক শহরটি রাশিয়ার একটি শীর্ষ সামরিক লক্ষ্য ছিল।

বর্তমানে শহরটির বেশরিভাগই রুশ নিয়ন্ত্রণে। এরইমধ্যে জাতিসংঘ জানালো, শহরটির বাইরে যাওয়ার শেষ সেতুটি চলতি সপ্তাহের শুরুতেই ধ্বংস হয়ে যাওয়ায় শহরের ভেতর আটকা পড়েছে প্রায় ১২ হাজার বাসিন্দা।

বৃহস্পতিবার বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আটকে পড়াদের অনেকেই শহরের অ্যাজোত কেমিক্যাল প্লান্টের নিচের বাঙ্কারের নিচে আশ্রয় নিয়েছেন।

বুধবার এক ভিডিও বার্তায় ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি জানালেন, স্বদেশের জন্য প্রয়োজনীয় অস্ত্র ও সরঞ্জাম পাওয়ার জন্য প্রতিদিনই সংগ্রাম করছেন তিনি।

এদিকে, এক ধাক্কায় সরবরাহ অনেকটা কমিয়ে জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধির জন্য রাশিয়ার রাষ্ট্রমালিকানাধীন গ্যাস কোম্পানি গ্যাজপ্রমকেই জার্মানি দায়ী করেছে।

জার্মান অর্থমন্ত্রী রবার্ট হ্যাবেক বলেছেন, কোনো কারিগরি সমস্যা নয় বরং রাজনৈতিকভাবেই গ্যাজপ্রম এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

তিনি বলেন, এরইমধ্যে রাশিয়ার ওপর জ্বালানি নির্ভরতা কমাতে ইসরায়েল, মিশর ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন একটি ত্রিপক্ষীয় প্রাকৃতিক গ্যাস রপ্তানি চুক্তি সই করেছে।

চুক্তিটি ইউরোপের জ্বালানি নিরাপত্তায় গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে বলে মন্তব্য করেছেন ইউরোপীয় কমিশনের প্রধান উরসুলা ভন দার লেইন।

অন্যদিকে দিকে যুক্তরাষ্ট্রের হোয়াইটহাউজের জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের মুখমাত্র জন কিরবি বলেছেন, আগামী মাসে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন যখন সৌদি আরব সফর করবেন তখন তেল উৎপাদনও থাকবে আলোচ্য বিষয়সূচিতে।

news24bd.tv রিমু