বিমানের ড্রিমলাইনার দুর্ঘটনার শিকারের ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন
বিমানের ড্রিমলাইনার দুর্ঘটনার শিকারের ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন

সংগৃহীত ছবি

বিমানের ড্রিমলাইনার দুর্ঘটনার শিকারের ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন

অনলাইন ডেস্ক

ঢাকার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এবার দুর্ঘটনার শিকার হয়েছে বিমানের বোয়িং-৭৮৭ ড্রিমলাইনার। বোর্ডিং ব্রিজের সংযোগ না খুলেই বিমানটির পুশব্যাক শুরু করায় দরজা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৬ জুন) বিকেলে বিমানবন্দরের ৪ নম্বর বোর্ডিং গেটে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় দুই সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

পাশাপাশি বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ইঞ্জিনিয়ারিং শাখা থেকে ব্যাখ্যা চেয়েছে বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ।

জানা গেছে, বিমানের বোয়িং-৭৮৭ ড্রিমলাইনার ৪ নম্বর বোর্ডিং গেটে যাত্রী নামায়। বৃহস্পতিবার বিমানটির আর কোনও ফ্লাইটও ছিল না। সাধারণত ফ্লাইট না থাকলে প্রথমে বিমানের দরজা বন্ধ করে বোর্ডিং ব্রিজ থেকে একে আলাদা করা হয়। এরপর সেটাকে পেছনে ধাক্কা দিয়ে নির্দিষ্ট স্থানে নিয়ে যাওয়া (পুশব্যাক) হয়।

ওই দিন ওই ড্রিমলাইনারটিকে পার্কিং পজিশনে নেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু বিমানের দরজা বন্ধ না করে এবং বোর্ডিং ব্রিজের সঙ্গে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা ছাড়াই এটিকে পুশব্যাক করা শুরু হয়। এতে বিমানের দরজার সঙ্গে বোর্ডিং ব্রিজের টান লেগে বোর্ডিং ব্রিজ ও দরজা ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

এ বিষয়ে বিমানবন্দরের নির্বাহী পরিচালক গ্রুপ ক্যাপ্টেন মোহাম্মদ কামরুল ইসলাম বলেন, বোর্ডিং ব্রিজ থেকে বিমান পৃথক করার সময় যেসব নিয়ম-কানুন মানতে হয় ওই বিমানে (বোয়িং-৭৮৭ ড্রিমলাইনার) সেগুলো মানা হয়নি। ঘটনাটি কীভাবে এবং কেন হয়েছে তা বিমানের ইঞ্জিনিয়ারিং সেকশনের কাছে জানতে চেয়েছি। তারা বিস্তারিত জানাবে। তবে বোর্ডিং ব্রিজের কোনো ক্ষতি হয়নি।

 news24bd.tv/কামরুল

সম্পর্কিত খবর