'পদ্মা সেতু বাংলাদেশের গর্ব ও অহংকার'
'পদ্মা সেতু বাংলাদেশের গর্ব ও অহংকার'

সংগৃহীত ছবি

'পদ্মা সেতু বাংলাদেশের গর্ব ও অহংকার'

অনলাইন ডেস্ক

দেশের সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সংবাদ সম্মেলন চলছে। আজ বুধবার সকাল ১১টায় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলন শুরু হয়। সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, 'আগামী ২৫ জুন শনিবার বহুল আকাঙ্ক্ষিত পদ্মা সেতুর শুভ উদ্বোধন হবে, ইনশাআল্লাহ। পদ্মা সেতু বাংলাদেশের গর্ব ও অহংকার'।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, 'পদ্মা সেতুর নির্মাণ কাজের গুণগত মানে আপস করা হয়নি। এই সেতু নির্মিত হয়েছে বিশ্বের সর্বাধুনিক প্রযুক্তি ও উপকরণ দিয়ে। পুরো নির্মাণ প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে সর্বোচ্চ মান বজায় রেখে। পদ্মা সেতুর পাইল বা মাটির গভীরে বসানো ভিত্তি এখন পর্যন্ত বিশ্বে গভীরতম। সর্বোচ্চ ১২২ মিটার গভীর পর্যন্ত এই সেতুর পাইল বসানো হয়েছে। ভূমিকম্প প্রতিরোধ বিবেচনায় ব্যবহৃত হয়েছে অত্যাধুনিক প্রযুক্তি। '

তিনি আরও বলেন, 'ভূমি অধিগ্রহণের ফলে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোর পুনর্বাসনের যথাযথ ব্যবস্থা আমরা নিয়েছি। ভূমিহীনসহ ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোকে আবাসিক ও বাণিজ্যিক প্লট বরাদ্ধ দেওয়া হয়েছে। অতিরিক্ত সহায়তা, ভিটা উন্নয়ন সহায়তা দেওয়া হয়েছে। তাদের জীবনযাত্রার মানোন্নয়েনের জন্য কর্মমুখী ও আয়বর্ধনমূলক বিভিন্ন প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। '

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ‌সিলেটে যে বন্যা হয়েছে তা অকল্পনীয়। বন্যা মোকাবেলায় সব ধরণের প্রস্তুতি নিয়েছে সরকার।

news24bd.tv/রিমু