পরপর তিন মেয়ে হওয়ায় নবজাতককে হত্যা 
পরপর তিন মেয়ে হওয়ায় নবজাতককে হত্যা 

প্রতীকী ছবি

পরপর তিন মেয়ে হওয়ায় নবজাতককে হত্যা 

অনলাইন ডেস্ক

পরপর তিন মেয়ে। আবার তৃতীয় কন্যা সন্তানের গায়ের রং কালো। এ কারণেই সদ্যোজাতকে শ্বাসরোধ করে খুন করার অভিযোগ উঠল বাবার বিরুদ্ধে। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের উত্তর ২৪ পরগনার বসিরহাটে।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম সংবাদ প্রতিদিনের প্রতিবেদনে বলা হয়, বসিরহাটের বাসিন্দা আমিন সর্দার। স্ত্রী ও দুই কন্যা সন্তানকে নিয়ে তার সংসার। সম্প্রতি ফের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েন তার স্ত্রী। গত ২০ জুন জন্ম দেন এক কন্যা সন্তানের। সেখানেই সমস্যার শুরু। একে ফের কন্যাসন্তান, তার ওপর গায়ের রং কালো, বিষয়টা একেবারেই মানতে পারেনি আমিন।  

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার (২১ জুন) নবজাতককে নিয়ে স্বামীর ঘরে ফেরেন ওই নারী।  স্ত্রীর অনুপস্থিতিতে ঘরে ঢুকে সন্তানকে গলা টিপে খুন করে আমিন। ঘরে ফিরে সন্তানের অবস্থা দেখে আর্তনাদ শুরু করে দেয় মা। এরপরই প্রতিবেশীরা সেখানে যান। অবস্থা বেগতিক বুঝে শিশুটিকে বাদুড়িয়া গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যায় স্থানীয়রা। সেখানেই চিকিৎসকরা শিশুটিকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

স্থানীয়রা পরে আটকে রাখে অভিযুক্তকে। খবর দেওয়া হয় থানায়। ইতিমধ্যেই অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মৃত শিশুর মা দাবি করেছে, আগেই শিশুটিকে মেরে ফেলতে চেয়েছিল স্বামী। কোনওরকমে সন্তানের প্রাণ বাঁচাতে পেরেছিলেন তিনি। কিন্তু এবার আর শেষ রক্ষা হলো না।

news24bd.tv/কামরুল

সম্পর্কিত খবর