সাইকেল চালিয়ে পদ্মা সেতু দেখলো ১০১ জন
সাইকেল চালিয়ে পদ্মা সেতু দেখলো ১০১ জন

সংগৃহীত ছবি

সাইকেল চালিয়ে পদ্মা সেতু দেখলো ১০১ জন

অনলাইন ডেস্ক

শরীয়তপুর জেলা শহর থেকে সাইকেল চালিয়ে পদ্মা সেতু ভ্রমণ করেছেন ১০১ সাইক্লিস্ট। ‘সোনালি সেতুর শ্যামল ভূমির শরীয়তপুরে আপনাকে স্বাগতম’ এমন স্লোগানে পদ্মা সেতুর ছবি সংযুক্ত প্ল্যাকার্ড ও জাতীয় পতাকা নিয়ে পদ্মা সেতুর অভিমুখে যাত্রা করেন তারা। সাইকেল আরোহীরা বিভিন্ন স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। বুধবার (২২ জুন) দুপুর ১২টায় তারা যাত্রা শুরু করেন।

সাইকেল শোভা যাত্রাটি উদ্বোধন করেন শরীয়তপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য ইকবাল হোসেন অপু। এতে অংশ নেওয়া সবাই ‘শরীয়তপুর সাইক্লিস্ট’ নামের একটি সংগঠনের সদস্য। শরীয়তপুর শহর থেকে পদ্মা সেতুর দূরত্ব ৩০ কিলোমিটার। আসা যাওয়া মিলিয়ে তারা প্রায় ৬০ কিলোমিটার পথ সাইকেল চালিয়েছেন।

সাইকেল চালিয়ে তারা পদ্মা সেতুর টোলপ্লাজা, সংযোগ সড়ক, রেল প্রকল্পসহ সেতু সংশ্লিষ্ট নানা স্থান ঘুরে দেখেন। পরে তারা জাজিরার নাওডোবায় শেখ রাসেল সেনানিবাসের সামনের সড়ক ধরে শরীয়তপুর শহরে ফিরে আসেন।

তাদের কয়েকজন বলেন, এই সেতু শুধু শরীয়তপুরবাসীর নয়, সমস্ত বাঙালি ও বাংলার অদম্য স্বপ্ন। পদ্মা সেতু উদ্বোধন কোটি হৃদয়ের আশা আকাঙ্ক্ষার বাস্তব প্রতিফলন। উদ্বোধনের দিন আমাদের সেখানে বাইসাইকেল নিয়ে যাওয়ার কথা ছিল। তবে নিরাপত্তার জন্য সেই দিন যাওয়া সম্ভব নয় বলে আজ ৬০ কিলোমিটার সাইকেল চালিয়ে স্বপ্নের সেতু এলাকা ঘুরে এলাম।

শরীয়তপুর সাইক্লিস্ট সংগঠনের সমন্বয়ক আবদুল মোতালেব বলেন, ‘পদ্মা সেতু উদ্বোধনের দিন আমাদের সাইকেল শোভা যাত্রা নিয়ে যাওয়ার কথা ছিল। তবে নিরাপত্তাজনিত কারণে অনুমতি মেলেনি, তাই আজ আমরা সাইকেল শোভা যাত্রা করে এলাম। সত্যিই এই শোভা যাত্রাটি ছিল ভালো লাগার অনুভূতি। তবে ওই দিন যেতে পারলে আরেকটু ভালো লাগতো। ’

এ শোভাযাত্রার আয়োজক ছিলেন সংসদ সদস্য ইকবাল হোসেন অপর ছেলে দানিব বিন ইকবাল। তিনি বলেন, ‘পদ্মা সেতু প্রধানমন্ত্রীর সাহসিকতার কারণেই সম্ভব হয়েছে। আমরা শরীয়তপুরের তরুণেরা দেশবাসীকে সোনালী সেতুর শ্যামল ভূমিতে স্বাগতম জানাই। ’

news24bd.tv/আলী