স্বামীকে বেঁধে স্ত্রীকে ধর্ষণের দায়ে দুজনের যাবজ্জীবন
স্বামীকে বেঁধে স্ত্রীকে ধর্ষণের দায়ে দুজনের যাবজ্জীবন

সংগৃহীত ছবি

স্বামীকে বেঁধে স্ত্রীকে ধর্ষণের দায়ে দুজনের যাবজ্জীবন

অনলাইন ডেস্ক

রংপুরে স্বামীকে বেঁধে রেখে স্ত্রীকে তুলে নিয়ে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় দুই যুবককে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। দীর্ঘ ১৮ বছর পর মামলার রায়ে খুশি ভুক্তভোগীর স্বজনরা।

বৃহস্পতিবার বিকেলে রংপুরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালত-৩ এর বিচারক এম আলী আহমেদ এ রায় ঘোষণা করেন। এ সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন আসামিরা।

দণ্ডিতরা হলেন- রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার একবারপুর দক্ষিণপাড়া গ্রামের একরামুল হক ও আবুল কালাম আজাদ।

মামলার বিবরণ দিয়ে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী মাকজিয়া হাসান দীবা জানান, ২০০৪ সালের ২ সেপ্টেম্বর রাতে স্বামীর সঙ্গে আত্মীয়ের বাড়িতে দাওয়াত খেতে যান ওই গৃহবধূ। ফেরার পথে দক্ষিণপাড়া গ্রামে তাদের পথরোধ করেন একরামুল ও আজাদ। এরপর অস্ত্রের মুখে স্বামীকে গাছের সঙ্গে বেঁধে স্ত্রীকে তুলে নিয়ে একটি কলেজের পাশে নির্জনে পালাক্রমে ধর্ষণ করেন তারা। পরে ভুক্তভোগীর চিৎকারে লোকজন এসে উদ্ধার করেন।

এ ঘটনায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে পীরগঞ্জ থানায় মামলা করেন ভুক্তভোগীর স্বামী। তদন্ত শেষে একরামুল ও আজাদের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পীরগঞ্জ থানার তৎকালীন এসআই ইকবাল বাহার। দীর্ঘ শুনানি শেষে বৃহস্পতিবার এ রায় দেয় আদালত।

news24bd.tv/আলী