বাসযোগ্যতার সূচকে ১৭২টি শহরের মধ্যে ঢাকা ১৬৬তম
বাসযোগ্যতার সূচকে ১৭২টি শহরের মধ্যে ঢাকা ১৬৬তম

সংগৃহীত ছবি

বাসযোগ্যতার সূচকে ১৭২টি শহরের মধ্যে ঢাকা ১৬৬তম

অনলাইন ডেস্ক

বাসযোগ্যতার বিচারে বিশ্বের বড় ১৭২টি শহরের মধ্যে চলতি বছর ১৬৬তম অবস্থানে আছে ঢাকা। অর্থাৎ বাসযোগ্যতার দিক থেকে খারাপ অবস্থানে থাকা শহরগুলোর মধ্যে ঢাকা ৭ম স্থানে আছে। যুক্তরাজ্যভিত্তিক মিডিয়া কোম্পানি দ্যা ইকোনমিস্ট গ্রুপের গবেষণা সংস্থা ইকোনমিস্ট ইন্টেলিজেন্স ইউনিট (ইআইইউ) তাদের সর্বশেষ প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে।

অবশ্য বাসযোগ্য শহরের এ তালিকায় আগের বছরের চেয়ে তিন ধাপ এগিয়েছে ঢাকা।

২০২১ সালের সূচকে ১৪০টি শহরের মধ্যে ১৩৭তম ছিল বাংলাদেশের রাজধানী।

প্রতি বছর বসবাসযোগ্যতার বিচারে বিশ্বের বড় শহরগুলোর তালিকা প্রকাশ করে ইআইইউ। স্থিতিশীলতা, স্বাস্থ্যসেবা, সংস্কৃতি, পরিবেশ, শিক্ষা ও অবকাঠামো— এই পাঁচ সূচকের ওপর ভিত্তি করে চলানো হয় এই জরিপ।

জরিপে পয়েন্টের সর্বোচ্চ ঘর ১০০। যে শহর যত বেশি পয়েন্ট পায়, তালিকায় সেটির অবস্থান থাকে তত ওপরে। চলতি বছর ১৭২টি দেশের ওপর জরিপ চালানো হয়েছে।

বাসযোগ্য শহরের তালিকায় শীর্ষে রয়েছে অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনা, গত বছরের তালিকায় এই শহরের অবস্থান ছিল ১২তম।

দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ডেনমার্কের রাজধানী কোপেন হেগেন এবং যুগ্মভাবে তৃতীয় অবস্থান অর্জন করেছে সুইজারল্যান্ডের বৃহত্তম শহর জুরিখ ও কানাডার জ্বালানি তেল শিল্পের প্রধান কেন্দ্র ক্যালগারি। চতুর্থ স্থানে রয়েছে কানাডার ব্রিটিশ কলাম্বিয়া প্রদেশের উপকূলীয় শহর ভ্যানকুভার।

তালিকায় থাকা শীর্ষ ১০ দেশের সবগুলোই পশ্চিম ইউরোপ ও কানাডার।

ইআইইউ’র ২০২২ সালের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ১০০ তে ৩৯ দশমিক ২ পয়েন্ট নিয়ে চলতি বছর ১৬৬তম অবস্থানে আছে ঢাকা। ঢাকার পেছনে অবস্থান করছে পাকিস্তানের বন্দর শহর করাচি, উত্তর আফ্রিকার দেশ আলজেরিয়ার রাজধানী আলজিয়ার্স, লিবিয়ার রাজধানী ত্রিপোলিসহ মোট ৬টি শহর।

পয়েন্টের হিসেবেও গত বছরের তুলনায় এবার উন্নতি করেছে ঢাকা। ২০২১ সালে ইআইইউ প্রতিবেদনে ঢাকার প্রাপ্ত পয়েন্ট ছিল ৩৩ দশমিক ৫। সেই হিসেবে চলতি বছর প্রায় ৬ পয়েন্ট বেশি পেয়েছে বাংলাদেশের রাজধানী।

তবে ঢাকার অবকাঠামোগত অবস্থা একেবারেই সন্তোষজনক নয় বলে উল্লেখ করা হয়েছে প্রতিবেদনে। এই সূচকে ঢাকার প্রাপ্ত পয়েন্ট মাত্র ২৬ দশমিক ৮; অবকাঠামো সূচকে তালিকায় থাকা ১৭২টি শহরের মধ্যে সবচেয়ে কম স্কোর ঢাকার।

চলতি বছরের ইআইইউ প্রতিবেদন বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে— গত বছর ভালো অবস্থানে থাকা অনেক শহর আগের অবস্থান থেকে বিচ্যুত হয়েছে। যেমন— গত বছর বাসযোগ্য শহরের তালিকায় শীর্ষে থাকা নিউজিল্যান্ডের শহর অকল্যান্ড চলতি বছর নেমেছে ৩৩ তম অবস্থানে।

এছাড়া গত বছরের তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে থাকা নিউজিল্যান্ডের রাজধানী ওয়েলিংটন ও তৃতীয় স্থানে থাকা  অস্ট্রেলিয়ার উপকূলীয় রাজধানী হিসেবে পরিচিত অ্যাডেইলেইড  চলতি বছর পৌঁছেছে যথাক্রমে ৪৬ ও ২৭ নম্বরে। তালিকায় সর্বনিম্ম, অর্থাৎ ১৭২তম অবস্থানে রয়েছে যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশ সিরিয়ার রাজধানী দামেস্ক।

news24bd.tv/আলী