এক শিঙাড়ার দাম হাজার টাকারও বেশি!
এক শিঙাড়ার দাম হাজার টাকারও বেশি!

সংগৃহীত ছবি

এক শিঙাড়ার দাম হাজার টাকারও বেশি!

অনলাইন ডেস্ক

আমেরিকায়, অর্থাৎ দেশের বাইরে গিয়ে দেশি খাবারের স্বাদ। সত্যিই অন্যরকম ব্যাপার। এ কারণেই নিউ ইয়র্কে ইন্ডিয়ান রেস্টুরেন্ট খুলেছেন বলি-হলি অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। রেস্টুরেন্টের নাম ‘সোনা’।

বেশ সুন্দর ইন্টেরিয়র ডিজাইন করা। আর এতে খাবারের দাম কত জানেন? দাম শুনলে চোখ কপালে উঠে যাবে আপনার!

হিন্দুস্তান টাইমসের প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, বন্ধু মণীশ গোয়েলের যৌথ উদ্যোগে রেস্টুরেন্ট ব্যবসা শুরু করেছেন হলিউড অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা।

নায়িকার রেস্টুরেন্টে ভারতীয় নানা খাবার রয়েছে। এসবের মধ্যে রয়েছে ম্যাঙ্গো প্যাশন শরবত, সোনা চকলেট গেটক্স, টাকিলা ভর্তি গোলগাপ্পা, ক্রাব পুরি এবং কেভিয়ার, কোকোনাট চাটনিসহ একাধিক সুস্বাদু খাবার। এছাড়াও রয়েছে শিঙাড়া, বড়া পাও, মশলা এগ, এগ অ্যান্ড চিজ ধোসা, মাসরুম ভুজিসহ একাধিক ছোট খাবারের পদ।

এদিকে অবাক করার বিষয় হচ্ছে, বলি অভিনেত্রীর ‘সোনা’ রেস্টুরেন্টের ছোট ছোট পদের দামই অনেক বেশি। যা ভারতীয় কোনো মধ্যবিত্ত পরিবারের কাছে আকাশ ছোঁয়া স্বপ্নের মতো। একটি শিঙাড়ার দাম নাকি হাজার টাকারও বেশি। আর এই শিঙাড়াই নাকি সবচেয়ে কম দামি খাবার।

মুম্বাইয়ের অন্যতম জনপ্রিয় স্ট্রিট ফুড বড়া পাও, যা সাধারণ দোকানে ভারতীয় মুদ্রায় মাত্র ৪০ রুপি। কিন্তু নায়িকার রেস্টুরেন্টে এর দাম ১৪ ডলার, যা ভারতীয় মুদ্রায় ১ হাজার ৩৯ রুপি। আর রেস্টুরেন্টটিতে যেকোনো পদের দাম ১২ ডলার থেকে শুরু।

এছাড়া ছোট ছোট খাবারের প্লেটের দামও প্রায় একই রকমের। ডিমের পদের মধ্যে মশলা এগ, এগ অ্যান্ড চিজ ধোসা, মাসরুম ভুজি—এসব ভারতীয় মুদ্রায় ১ হাজার ৪০৬ রুপি থেকে ১ হাজার ৭১৮ রুপির মধ্যে। তবে শুধু ভারতীয় পদই নয়। এছাড়া বার্গার, ফ্রেঞ্চ ফ্রাই, পিৎজা থেকে চিংড়ির পকোড়া, চাটনি সমেত ধোসা, ফুচকা সাজানো প্লেট, অ্যালকোহল দিয়ে পানিপুরির কম্বিনেশনসহ নানা পদ রয়েছে নায়িকার রেস্টুরেন্টে।
news24bd.tv/আলী