হাত-পা বেঁধে পাঁচতলা থেকে ফেলে দেওয়া হলো নারী ব্লগারকে
হাত-পা বেঁধে পাঁচতলা থেকে ফেলে দেওয়া হলো নারী ব্লগারকে

হাত-পা বেঁধে পাঁচতলা থেকে ফেলে দেওয়া হলো নারী ব্লগারকে

অনলাইন ডেস্ক

ঘটনাটি ভারতে উত্তরপ্রদেশের আগ্রার। সেখানে সাবেক স্বামী ও তার পরিবারের সদস্যদের রোষানলে প্রাণ গেল এক নারী ব্লগারের। বছর তিরিশের ওই নারীকে হাত-পা বেঁধে পাঁচতলা থেকে ছুঁড়ে ফেলে দেয়ার অভিযোগে তারই সাবেক স্বামীসহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

স্থানীয় গণমাধ্যম এনটিভি ও আনন্দবাজারের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ওই ব্লগারের নাম রিতিকা সিংহ।

স্বামীর সঙ্গে বিচ্ছেদের পর আগ্রার তাজগঞ্জে একটি ফ্ল্যাটে লিভ ইন সঙ্গী বিপুলের সঙ্গে থাকতেন। যার সঙ্গে ফেসবুকে আলাপ হয়েছিল রিতিকার। উত্তরপ্রদেশের গাজিয়াবাদের বাসিন্দা রিতিকার ২০১৪ সালে বিয়ে হয় ফিরোজাবাদের আকাশ গৌতমের সঙ্গে। তিন বছর পর ফিরোজাবাদেরই যুবক বিপুলের সঙ্গে ফেসবুকে আলাপ হয় তার। ২০১৮-তে স্বামী আকাশের সঙ্গে বিবাহবিচ্ছেদের পর বিপুলের সঙ্গে লিভ ইন সম্পর্কে থাকতেন রিতিকা।

গেল আড়াই মাস আগে ১৩ হাজার টাকা ভাড়ায় তাজগঞ্জে ফ্ল্যাট নেন রিতিকা এবং বিপুল। রিতিকা একজন ইনফ্লুয়েন্সার ছিলেন। ইনস্টাগ্রামে তার অনুরাগীর সংখ্যা ৪৪ হাজার। মূলত ফ্যাশন, খাবার এবং ভ্রমণ সংক্রান্ত বিষয়ে নেটমাধ্যমে লেখালেখি করতেন। পুলিশ জানিয়েছে, শুক্রবার দুই নারীকে নিয়ে সাবেক স্বামী আকাশ গৌতম রিতিকার তাজগঞ্জের ফ্ল্যাটে যান। কারও যাতে সন্দেহ না হয়, সে কারণে প্রথমে দুই নারীকে অ্যাপার্টমেন্টে ঢুকতে বলেন। নিরাপত্তারক্ষী বাঁধা দিলে আকাশ সামনে আসেন এবং ওই দুই নারীকে ভিতরে ঢোকানোর ব্যবস্থা করে দেন।
পুলিশ আরও জানায়, ওই দুই নারী অ্যাপার্টমেন্টের নামতালিকার খাতায় ভুল নাম লেখেন। আকাশরা যখন রিতিকার ফ্ল্যাটে যান, লিভ ইন সঙ্গী বিপুল ফ্ল্যাটেই ছিলেন। বিপুলের অভিযোগ, আকাশ এবং দুই নারী ঘরে ঢুকেই তাদের দু’জনকে মারতে শুরু করেন। তার পর বিপুলের হাত বেধে বাথরুমের মধ্যে আটকে দেন আকাশ এবং দুই নারী। বিপুলের দাবি, তিনি বাথরুমের জানলা ভেঙে প্রতিবেশীদের চিৎকার করে ডাকতে থাকেন। সেই আওয়াজ শুনে পাশের ফ্ল্যাটের লোকেরা ছুটে আসেন।

প্রত্যক্ষদর্শীদের দাবি, মিনিট ২০ পর উপর থেকে ভারী কিছু পড়ার আওয়াজ, সেই সঙ্গে আর্তনাদ শুনতে পেয়েছিলেন। নিরাপত্তারক্ষী আওয়াজ পেয়ে অ্যাপার্টমেন্টের পিছনের দিকে যেতেই দেখেন রিতিকা মুখ থুবড়ে পড়ে আছেন। রক্তে ভেসে যাচ্ছে চার দিক। তার হাত-পা বাঁধা ছিল। আগ্রার এসএসপি সুধীর কুমার সিংহ বলেন, “নাগলা মেওয়াটি এলাকায় পাঁচতলা থেকে এক মহিলার পড়ে মৃত্যুর খবর পেয়েছি। মাথায় গুরুতর চোট পান তিনি। হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। ”

news24bd.tv তৌহিদ