ইতিহাসের অংশ হওয়ার চাপ, বাগেরহাটে মিলছে না গাড়ির টিকিট
ইতিহাসের অংশ হওয়ার চাপ, বাগেরহাটে মিলছে না গাড়ির টিকিট

ইতিহাসের অংশ হওয়ার চাপ, বাগেরহাটে মিলছে না গাড়ির টিকিট

বাগেরহাট প্রতিনিধি

উদ্বোধনের পর যানবাহন চলাচলের প্রথমদিনে রবিবার (২৬ জুন) সকালে স্বপ্নের পদ্মা সেতুর উপর দিয়ে রাজধানী ঢাকায় যেতে হুমড়ি খেয়ে পড়েছে সর্বস্তরের মানুষ। ইতিহাসের অংশ হতে আগ্রহী মানুষদের মধ্যে যাদের ব্যক্তিগত গাড়ি বা মোটরসাইকেল নেই তারা ঢাকাগামী দূরপাল্লার পরিবহনের রবিবার সকাল ও দুপুরের টিকিটের জন্য বাগেরহাটের কেন্দ্রীয় বাস টর্মিনালসহ জেলা ও উপজেলায় পরিহন কাইন্টারগুলোতে ভিড় করছে।

বাগেরহাট থেকে ঢাকাগামী দূরপাল্লার পরিবহনগুলোর রবিবারের সকাল ও দুপুরের টিকিট শনিবার বিকালের মধ্যে প্রায় বিক্রি হয়ে গেছে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা। কাংখিত পরিবহনের টিকিট না পেয়ে অনেককে হা-হুতাশ করতে দেখা গেছে।

তবে, পরিবহগুলো শনিবার বিকাল পর্যন্ত পদ্মা সেতুর উপর দিয়ে গাড়ি চলাচলে সরকার নির্ধারিত বর্ধিত নতুন ভাড়া কার্যকর করেনি।

বাগেরহাট আন্ত:জেলা পরিবহন মালিক সমিতির সাধারন সম্পাদক তালুকদার আব্দুল বাকী জানান, স্বপ্নের পদ্মা সেতু চালুর মধ্যদিয়ে সড়ক পথে বাগেরহাট ও মোংলা বন্দরের দূরত্ব কমে দাঁড়িয়েছে মাত্র ১৭০ কিলোমিটারে। পদ্মা সেতু চালুর আগে ফেরি বিড়ম্বনার কারণে দূরপাল্লার পরিবহনে এই সড়কপথে সময় লাগত কমপক্ষে ৮ থেকে ১২ ঘণ্টা। স্বপ্নের পদ্মা সেতু চালু হওয়ায় এখন এই সড়ক পথে সময় লাগবে মাত্র ৩ ঘণ্টা। এসব কারণে বাগেরহাটসহ দক্ষিণাঞ্চলের ২১ জেলার সর্বস্তরের মানুষ দেশি-বিদেশি সব ষড়যন্ত্র উপেক্ষা করে স্বপ্নের পদ্মা সেতু নির্মাণ করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞ। এই অবস্থায় উদ্বোধনের পর রবিবার ভোর থেকে যানবাহন চলাচলের প্রথমদিনে রবিবার স্বপ্নের পদ্মা সেতুর উপর দিয়ে রাজধানী ঢাকায় যেতে সর্বস্তরের মানুষের প্রবল আগ্রহ রয়েছে। এসব আগ্রহী মানুষদের মধ্যে যাদের ব্যক্তিগত গাড়ি বা মোটরসাইকেল নেই তারা ঢাকাগামী দূরপাল্লার পরিবহনের টিকিটের জন্য কাউন্টারগুলোতে ভিড় করছে এটাই বাস্তবতা। বাগেরহাট কেন্দ্রীয় বাস টর্মিনালসহ জেলার ৯টি উপজেলা থেকে ২০টির অধিক দূরপাল্লার পরিবহনের শতাধিক গাড়ি প্রতিদিন সকাল, দুপুর ও রাতে ঢাকায় গিয়ে থাকে বলে জানান এই পরিবহন নেতা।

বাগেরহাট শহরের শিক্ষার্থী রেদওয়ান হোসেন, এনজিও কর্মী রঞ্জন দাস, শরণখোলার সাবিল হেসেন জানান, স্বপ্নের পদ্মা সেতুর উপর দিয়ে রবিবার প্রথম দিনে রাজধানী ঢাকায় গিয়ে ইতিহাসের অংশ হতে চেয়ে ছিলাম। সকাল ও দুপুরের ভালো পরিবহনগুলোর সব টিকিট ইতিমধ্যেই বিক্রি হয়ে যাওযায় আমরা দিনে যেতে পারছি না। এই অবস্থায় খুবই খারাপ লাগছে। স্বপ্নের পদ্মা সেতু দেখবো তাই সোমবার সকালের টিকিট কেটেছি।

দূরপাল্লার হানিফ পরিবহনের ম্যানেজার একরামুল কবির শনিবার বিকালে জানান, ইতিহাসের অংশ হতে রবিবার স্বপ্নের পদ্মা সেতুর উপর দিয়ে প্রথম দিনে সকাল ও দুপুরে রাজধানী ঢাকায় যেতে যাত্রীদের চাপ রয়েছে। পরিবহনগুলোর টিকিটই বিকালের মধ্যে বিক্রি প্রায় শেষ হয়ে গেছে।

যাত্রীদের চাঁপ থাকলেও পদ্মা সেতুর উপর দিয়ে রাজধানী ঢাকায় যেতে পরিবহনগুলো সরকার নির্ধারিত বর্ধিত নতুন ভাড়া কার্যকর করেনি বলে জানান এই পরিবহন ম্যানেজার।

ওয়েলকাম পরিবহনের কাইন্টার ম্যানেজার সজিব জানান, বাগেরহাট থেকে রবিবার সকাল ও দুপুরে তাদের ঢাকাগামী পরিবহনের সব টিকিট বিক্রি হয়ে গেছে। পদ্মা সেতু চালু হবার কারণে প্রধম দু’এক সপ্তাহ যাত্রীদের চাঁপ থাকবে জানান তিনি।

news24bd.tv তৌহিদ