প্রথমবার পদ্মা সেতু পার হয়ে উচ্ছ্বসিত চালক ও যাত্রীরা
প্রথমবার পদ্মা সেতু পার হয়ে উচ্ছ্বসিত চালক ও যাত্রীরা

সংগৃহীত ছবি

প্রথমবার পদ্মা সেতু পার হয়ে উচ্ছ্বসিত চালক ও যাত্রীরা

শফিকুজ্জামান রুবেল

পদ্মা সেতু যানবাহন চলাচলের জন্য খুলে দেয়া হয়েছে। ভোর পৌনে ছয়টায় সব ধরনের যান চলাচল শুরু হয় । অনেকেই গভীর রাতে এসে পদ্মাসেতুর মাওয়া প্রান্তে টোল প্লাজার সামনে এসে অপেক্ষায় ছিলেন। প্রতিক্ষা শেষে স্বপ্ন ছুতে পেরে উচ্ছ্বসিত চালক ও যাত্রীরা।

 

দূর-দূরান্ত থেকে অনেকেই ছুটে এসেছেন কালের সাক্ষী হতে। ভোর পৌনে ছয়টায় গাড়ি পারাপারের জন্য পদ্মা সেতু খুলে দেয়া হয়। সবার আগে সেতু পার হওয়ার আশায় মাওয়া প্রান্তে সৃষ্টি হয় যানবাহনে দীর্ঘ সারি। তবে পরিকল্পিত এই সেতুর টোল গ্রহণে রয়েছে অত্যাধুনিকতা, তাই স্বল্প সময়েই নির্দিষ্ট টোল দিয়ে সেতু পার হয় যানবাহন। জীবনের প্রথম পদ্মা সেতু পার হতে পেরে আনন্দ-উল্লাস প্রকাশ করেন অনেকেই।

দীর্ঘ দিনের নদী পথের ভোগান্তির শেষ, তাই খুশি পণ্য পরিবহনের চালকরা। তারা বলছেন, সেতুর ফলে দিনে দিনে যাতায়াত করা সম্ভব, তাই ঘুরে যাবে জীবনের চাকাও।

পদ্মা সেতুর তত্তাবধায়াক প্রকৌশলী তোফাজ্জল হোসেন জানান, শিগগিরই সেতুতে শুরু হবে ডিজিটাল টোল গ্রহণ।

পদ্মা সেতুর মাধ্যমে রাজধানীর সাথে দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলের যোগাযোগের যে বন্ধন সৃষ্টি হয়েছে, এতে সমৃদ্ধি হবে দেশের অর্থনীতি।

news24bd.tv/রিমু