শ্রীলঙ্কায় দুই সপ্তাহ পেট্রল-ডিজেল বিক্রি বন্ধ
শ্রীলঙ্কায় দুই সপ্তাহ পেট্রল-ডিজেল বিক্রি বন্ধ

সংগৃহীত ছবি

শ্রীলঙ্কায় দুই সপ্তাহ পেট্রল-ডিজেল বিক্রি বন্ধ

অনলাইন ডেস্ক

ভয়াবহ অর্থনৈতিক সংকটে নিমজ্জিত শ্রীলঙ্কায় আগামী দুই সপ্তাহের জন্য জ্বালানি বিক্রিতে বিধিনিষেধ জারি করা হয়েছে। সরকারি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, এ সময়ে শুধু আপদকালীন বা জরুরি পরিষেবায় যুক্ত গাড়িগুলোতে পেট্রোল ও ডিজেল সরবরাহ করা হবে। খবর বিবিসি।  

গতকাল সোমবার শ্রীলঙ্কা সরকার এক ঘোষণায় জানিয়েছেন, আগামী ১০ জুলাই পর্যন্ত দেশে সকল বেসরকারি পরিবহনের পেট্রল ও ডিজেল কেনায় নিষেধাজ্ঞা জারি করা হলো।

ইতিমধ্যে সরকার, রাজধানী কলম্বোসহ বিভিন্ন এলাকায় স্কুল বন্ধের ঘোষণা দিয়েছেন এবং জ্বালানি  সাশ্রয়ে জন্য কর্মীদের ঘরে বসে অফিসের কাজ করার নির্দেশ দিয়েছেন।  

এদিকে শ্রীলঙ্কার মন্ত্রিসভার একজন মুখপাত্র বান্দুলা গুনেবর্ধনা বলেছেন, শ্রীলঙ্কা তার ইতিহাসে আগে কখনই এমন ভয়াবহ অর্থনৈতিক সংকটের মুখোমুখি হয়। এই সংকট মুহূর্তে, শ্রীলঙ্কা সরকারি প্রতিনিধিদল পাঠিয়েছে বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ দুই তেল উৎপাদনকারী দেশ রাশিয়া ও কাতারে মূল্যছাড়ে জ্বালানি কেনার জন্য।  

দেশটিতে গত রোববার ডিজেলের দাম ১৫ শতাংশ বাড়িয়ে প্রতি লিটার বর্তমান মূল্য ৪৬০ রুপি (১.২৭ ডলার) ও পেট্রলের দাম ২২ শতাংশ বাড়িয়ে বর্তমান মূল্য ৫৫০ রুপি (১.৫১ ডলার) করা হয়।  

এছাড়া গত শনিবার শ্রীলঙ্কার জ্বালানিমন্ত্রী কাঞ্চনা ভিজেসেকেরা জানান, জ্বালানির নতুন চালান পেতে অনির্দিষ্টকাল সময় লাগতে পারে। তাই তিনি মোটরযান চালকদের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করে অনুরোধ করেন, জ্বালানি স্টেশনের সামনে ভিড় না করার জন্য। কেননা মোটরযান চালকদের ফিলিং স্টেশনের সামনে  লাইন ক্রমাগত দীর্ঘ হচ্ছে জ্বালানির আশায়।
news24bd.tv/মল্লিকা