বড়াইগ্রামে বসুন্ধরা গ্রুপের কিং ব্র্যান্ড সিমেন্টের হালখাতা
বড়াইগ্রামে বসুন্ধরা গ্রুপের কিং ব্র্যান্ড সিমেন্টের হালখাতা

বড়াইগ্রামে বসুন্ধরা গ্রুপের কিং ব্র্যান্ড সিমেন্টের হালখাতা

নাটোর প্রতিনিধি

নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার বনপাড়ায় দেশের শীর্ষ শিল্পগোষ্ঠী বসুন্ধরা গ্রুপের কিং ব্র্যান্ড সিমেন্টের হালখাতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। একই সঙ্গে কিং ব্র্যান্ড সিমেন্টের বর্ষসেরা বিক্রেতাদের মধ্যে বিতরণ করা হয়েছে পুরস্কার।

মঙ্গলবার (২৮ জুন) সকাল থেকে বনপাড়ায় “মেসার্স মিজানুর রহমান” নামে কিং ব্র্যান্ড সিমেন্টের পরিবেশক মিজানুর রহমানের দোকানে বাৎসরিক এ হালখাতা শুরু হয়, চলে সন্ধ্যা পর্যন্ত। বিকেলে এ উপলক্ষে দোয়া, মিলাদ মাহফিল, আলোচনা সভা ও বিক্রেতাদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন- কিং ব্র্যান্ড সিমেন্টের ডেপুটি সেলস ম্যানেজার শরিফুল ইসলাম, নাটোর জেলা টেরিটরি সেলস ম্যানেজার মিজানুর রহমান, বড়াইগ্রাম উপজেলার অ্যাসিসট্যান্ট সেলস এক্সিকিউটিভ আব্দুল্লাহ আল হাসানসহ অনেকে।  

এছাড়া জেলার কিং ব্র্যান্ড সিমেন্টের বিক্রেতা ও ক্রেতারা হালখাতায় উপস্থিত ছিলেন। কিং ব্র্যান্ড সিমেন্টের পরিবেশক ‘মেসার্স মিজানুর রহমানে’র কর্ণধার মিজানুর রহমান এতে সভাপতিত্ব করেন।

হালখাতা অনুষ্ঠানে আয়োজিত আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, সিমেন্টের জগতে কিং ব্র্যান্ড সিমেন্ট গুণে ও মানে সেরা। নতুন প্রযুক্তি ও উন্নত কাঁচামালের মাধ্যমে প্রস্ততকৃত এ সিমেন্ট দিয়ে দেশের গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন অবকাঠামোসহ নানা স্থাপনা নির্মাণ করা হচ্ছে। গুণগত মান ভালো হওয়ায় এ সিমেন্টের প্রতি মানুষের আস্থা ও বিশ্বাস অনেক বেড়েছে। এজন্য তারা নিজেদের স্বপ্নের বাসস্থান গড়তে কিং ব্র্যান্ড সিমেন্ট ব্যবহার করছেন। দেশে কিং ব্র্যান্ড সিমেন্টের চাহিদা বেড়েছে।

হালখাতা অনুষ্ঠানে বর্ষসেরা কিং ব্র্যান্ড সিমেন্ট বিক্রেতাদের মধ্যে প্রথম তিনজন বিক্রেতাকে সেরা বিক্রেতা হিসেবে পুরস্কার দেওয়া হয়। এছাড়া আরও ১৫ জন ভালো বিক্রেতাকে উপহার দেওয়া হয়।  

কিং ব্র্যান্ড সিমেন্টের নাটোর জেলায় সেরা ও সর্বোচ্চ বিক্রেতা হিসেবে মেসার্স মাহী এন্টারপ্রাইজকে প্রথম পুরস্কার ৩২ ইঞ্চি এলইডি স্মার্ট টেলিভিশন দেওয়া হয়। দ্বিতীয় সেরা হিসেবে মেসার্স ভাই ভাই খুঁটি মিলের মিন্টু প্রামাণিককে একটি উন্নতমানের ওয়ারড্রব এবং বাবু-রামিম ট্রেডার্সকে তৃতীয় পুরস্কার হিসেবে ননস্টিকি ফ্রাইপ্যান দেওয়া হয়।

নাটোর জেলা টেরিটরি সেলস ম্যানেজার মিজানুর রহমান জানান, হালখাতা সুন্দর ও সার্থকভাবে সম্পন্ন হয়েছে। হালখাতা অনুষ্ঠান ক্রেতা-বিক্রেতাদের মিলনমেলায় পরিণত হয়। বসুন্ধরা গ্রুপের এ আয়োজনে ক্রেতা-বিক্রেতারাও অনেক খুশি। এমন আয়োজনের জন্য তারা বসুন্ধরা গ্রুপকে স্বাগত জানিয়েছেন।

news24bd.tv/আলী 

সম্পর্কিত খবর