জাতির পিতা এক্সপ্রেসওয়েতে মোটরসাইকেল চলাচল বন্ধের প্রস্তাব
জাতির পিতা এক্সপ্রেসওয়েতে মোটরসাইকেল চলাচল বন্ধের প্রস্তাব

সংগৃহীত ছবি

জাতির পিতা এক্সপ্রেসওয়েতে মোটরসাইকেল চলাচল বন্ধের প্রস্তাব

অনলাইন ডেস্ক

উদ্বোধনের একদিন পর পদ্মা সেতুতে রোববার (২৬ জুন) ভয়াবহ এক সড়ক দুর্ঘটনায় দুই মোটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যু হয়। এ ঘটনার পর সোমবার (২৭ জুন) থেকে পদ্মা সেতু দিয়ে মোটরসাইকেল চলাচল অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করে বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষ।

এবার জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মহাসড়কেও (পূর্ববর্তী নাম ঢাকা-মাওয়া-ভাঙ্গা এক্সপ্রেসওয়ে) মোটরসাইকেল চলাচল বন্ধের প্রস্তাব উঠেছে।  আর এ প্রস্তাব দিয়েছে সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর (সওজ)।

সওজ’র প্রধান প্রকৌশলী এ কে এম মনির হোসেন পাঠান এক্সপ্রেসওয়ের টোল আদায়ে অপারেটর নিয়োগের চুক্তি সই অনুষ্ঠানে বুধবার (২৯ জুন) এ কথা জানান।

তিনি বলেন, এক্সপ্রেসওয়েতে মোটরসাইকেল চলাচল বন্ধের প্রস্তাব আগেই করা হয়েছে। সরকার অনুমোদন দিলে এক্সপ্রেসওয়েতে মোটরসাইকেল চলবে না। তবে পাশের সার্ভিস লেনে চলতে বাধা থাকবে না।

আগামী ১ জুলাই থেকে এক্সপ্রেসওয়েতে টোল আদায় করা হবে বলেও জানান সওজ’র প্রধান প্রকৌশলী।

এদিকে পদ্মা সেতুতে মোটরসাইকেল চলাচল বন্ধের সিদ্ধান্ত সাময়িক বলে মঙ্গলবার সাংবাদিকদের জানান নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী। তিনি বলেন, স্পিডগান মেশিন ও সিসি ক্যামেরা বসানোর পর সেতুতে কবে থেকে মোটরসাইকেল চলবে বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষ সেই সিদ্ধান্ত জানাবে।

news24bd.tv/আলী