কাবাঘরের যেসব স্থান চুম্বন ও স্পর্শ করা যায়
কাবাঘরের যেসব স্থান চুম্বন ও স্পর্শ করা যায়

প্রতীকী ছবি

কাবাঘরের যেসব স্থান চুম্বন ও স্পর্শ করা যায়

আলেমা মারিয়া মিম 

কাবাঘরের সব স্থানে চুমু দেওয়া, গিলাফ ধরা, স্পর্শ করা ও  সিনা লাগানোর বিধান প্রমাণিত নেই এবং তা সওয়াবের কাজও নয়; বরং নবী (সা.) ও সাহাবা-তাবেঈন থেকে শুধু সীমিত কিছু স্থান স্পর্শ করা আর কিছু ক্ষেত্রে চুমু খাওয়ার কথা বর্ণিত আছে। তাহলো—

১. হাজরে আসওয়াদে স্পর্শ করা, চুমু খাওয়া হাদিস দ্বারা প্রমাণিত।

২. বায়তুল্লাহর দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থিত রোকনে ইয়ামানি। এই কোণে ডান হাত বা উভয় হাত দ্বারা স্পর্শ করা সুন্নত।

কেউ কেউ চুমু খাওয়ার কথাও বলেছেন।

৩. এটি হাজরে আসওয়াদ থেকে বায়তুল্লাহর দরজা পর্যন্ত জায়গাকে মুলতাজাম বলে। এখানে সিনা, গাল ও উভয় হাত দিয়ে জড়িয়ে ধরে দোয়া করার কথা হাদিসে বর্ণিত আছে।

৪. কাবাঘরের দরজার চৌকাঠ ধরা এবং দোয়া করা।

সম্পর্কিত খবর